বড় স্বস্তি বিজেপির, ভারতী ঘোষের গ্রেফতারিতে ‘সুপ্রিম’ স্থগিতাদেশ

বিধানসভা ভোটের ফল ঘোষণার আগে পর্যন্ত ডেবরার বিজেপি প্রার্থী তথা নেত্রী ভারতী ঘোষকে গ্রেফতার করা যাবে না। মঙ্গলবার এমনই নির্দেশ দিল দেশের সর্বোচ্চ আদালত। ফলে বিধানসভা নির্বাচনের আগে বড় স্বস্তি পেল বঙ্গ বিজেপি। সুপ্রিম কোর্ট এদিন নির্দেশ দিয়েছে, আগামী ১০ মে পর্যন্ত গ্রেফতার করা যাবে না। আগামী ২ মে বিধানসভা ভোটের ফল ঘোষণা, অর্থাৎ বিধানসভা ভোটের ফল ঘোষণার আগে পশ্চিম মেদিনীপুরের ডেবরার বিজেপি প্রার্থীকে গ্রেফতার করতে পারবে না পুলিশ। তিনি প্রার্থী হিসেবে মনোনয়ন এবং প্রচারও করতে পারবেন।


উল্লেখ্য, প্রাক্তন আইপিএস অফিসার ভারতী ঘোষের নামে মোট ৩০টি এফআইআর রয়েছে। গোটা পরিস্থিতি জানিয়ে ভারতী ঘোষ সুপ্রিম কোর্টের দ্বারস্থ হন। দেশের সর্বোচ্চ আদালতে ভারতী ঘোষের আইনজীবী এন কে কল সাওয়ালে দাবি করেন, তাঁর মক্কেলের বিরুদ্ধে একের পর এক FIR দায়ের করা হয়েছে। তিনি রাজ্য সরকারের বিরুদ্ধে মুখ খুলেছেন বলেই এই FIR দায়ের। তিনি আরও জানান, বিগত লোকসভা নির্বাচেনের আগেও তাঁকে বারবার জিজ্ঞাসাবাদ করেছে রাজ্য পুলিশ এবং সিআইডি। এবারও জামিন অযোগ্য ধারায় গ্রেফতারি পরোয়ানা জারি করা হয়েছে। ভারতী ঘোষের আইনজীবীর দাবি, তাঁর মক্কেল যাতে মনোনয়ন জমা করতে না পারেন তার জন্যই এই পরোয়ানা। আগামী ১৩ মার্চ তাঁর ডেবরা আসনে মনোনয়ন জমা দেওয়ার কথা।


পাশাপাশি তাঁর আরও বক্তব্য, ভারতী ঘোষের বিরুদ্ধে যারা অভিযোগ দায়ের করেছেন তাঁরা বেশিরভাগই হয় পাচারে না হয় ধর্ষণে অভিযুক্ত। রাজ্য সরকারের আইনজীবী সিদ্ধান্ত লুথেরা পাল্টা দাবি করেন, গ্রেফতারি পরোয়ানা জারি করেছে আদালত। সব পক্ষের বক্তব্য শোনার পর সুপ্রিম কোর্টের বিচারপতি বিজেপি নেত্রী ভারতী ঘোষের গ্রেফতারি পরোয়ানার ওপর স্থগিতাদেশ দেন। রাজ্যের বক্তব্য খারিজ করে বিচারপতি বলেন, ‘FIR করেছিল পুলিশ, কমিশন করেনি। তাই পুলিস কমিশনের অধীনে নেই, এটা বলা ঠিক নয়’।