নাচের তালে পা মেলালেন মুখ্যমন্ত্রী, বললেন বিজেপি কোনও কাজ করে না

মঙ্গলবার উত্তরবঙ্গ সফরেরে দ্বিতীয় দিনে আলিপুরদুয়ারের ফালাকাটায় খোশমেজাজে দেখা গেল মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে। এক গণবিবাহের আসরে যোগ দিয়ে আদিবাসী নৃত্যের তালে পা মেলালেন তিনি। সেই অনুষ্ঠান থেকেই অবশ্য বিরোধী দল বিজেপিকে তীব্র আক্রমণও শানিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী। এদিন ফালাকাটায় চা-শ্রমিক ও আদিবাসী তরুণ-তরুণীদের জন্য একটি গণ বিবাহের আসর ছিল। এই অনুষ্ঠানেই যোগ দেন মুখ্যমন্ত্রী। সেখানে তিনি বিভিন্ন সরকারি প্রকল্পের সুযোগ-সুবিধা এলাকাবাসীর হাতে তুলে দেন। এছাড়া চা বাগানের শ্রমিকদের হাতেও জমির পাট্টা তুলে দেন।


এই মঞ্চ থেকেই কেন্দ্রের বিজেপি সরকারকে একহাত নিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। তিনি বলেন, ‘বিজেপি ভোটের আগে এসে বলে চা বাগান খুলবে। আর ভোট মিটলেই পালিয়ে যায়। চা বাগান আর খোলে না। আগেরবার (লোকসভা ভোট) বলেছিল ৭টা চা বাগান খুলে দেবে। কিন্তু একটাও খোলেনি’। এরপরই বিজেপিকে কটাক্ষ করে তিনি বলেন, ‘ওরা কোনও কাজ করে না, শুধু কুৎসা আর অপপ্রচার করে বেড়ায়। কোনও কাজ নেই। আমরাই ৯টা চা বাগান খুলে দিয়েছি। চা বাগানের শ্রমিকদের পাট্টা দেওয়া হল। তাঁরা পাকাপাকি ভাবে জমির পাট্টা পেলেন’। মমতার আরও দাবি, গত বাজেটেই জমির পাট্টা দেওয়ার প্রস্তাব দিয়েছিল রাজ্য, একবছরের আগেই সেটা করা হল। এছাড়া চা সুন্দরী প্রকল্পের জন্য ৫০০ কোটি টাকা ঘোষণা করেন তিনি। তিনবছরের মধ্যেই গৃহহীনদের ঘর পাইয়ে দেওয়ার প্রতিশ্রুতিও দেন তিনি। এদিন গণবিবাহের আসরে নব দম্পতিদের হাতে তুলে দেন উপহার সামগ্রী তুলে দেন মুখ্যমন্ত্রী। পাশাপাশি আগামী জীবনের জন্য শুভেচ্ছাও জানান। এই গণ বিবাহের পাশেই আদিবাসী নাচ-গানের আসর বসেছিল। আচমকাই সেখানে চলে যান তিনি, এরপরই আদিবাসী মহিলাদের সঙ্গে নাচের তালে পা মেলান মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।