ব্রেকিং নিউজ
  (12:20 PM)-এখনও সংকট কাটেনি পদ্মশ্রী পুরস্কারপ্রাপ্ত কার্টুনিস্ট নারায়ণ দেবনাথের     (12:18 PM)-মদন মিত্রকে এবার সতর্ক করল দল     (11:17 AM)-ওমিক্রন আক্রান্তের সংখ্যা গোটা দেশে বেড়ে দাঁড়াল ৮২০৯, সুস্থ ৩১০৯     (11:14 AM)-করোনা রুখতে সকাল ১০টার পর থেকে বন্ধ গ্যালিফ স্ট্রিটের পাখিবাজার     (11:02 AM)-সিঁথি থানা এলাকায় রামলীলা বাগানের একটি বাড়িতে ভোররাতে আগুন লাগল     (08:54 AM)-প্রখ্যাত কত্থক শিল্পী পণ্ডিত বিরজু মহারাজ প্রয়াত     (08:48 AM)-সিরিয়াল দেখার ফাঁকে কসবায় দুঃসাহসিক চুরি     (08:48 AM)-রাজ্যের করোনা আক্রান্ত কমলেও মৃত্যুসংখ্যা উর্ধ্বমুখীই     (08:47 AM)-তাপমাত্রা স্বাভাবিকের নিচে, ফের বঙ্গে শীতের আমেজ  
paddy-field-destroyed-bankura-westbengal
Paddy বিঘার পর বিঘা ধানজমি নষ্ট, চিন্তায় চাষিরা


Post By : সিএন ওয়েবডেস্ক
Posted on :2021-11-22 15:28:26


অজানা এক রোগে বিঘার পর বিঘা ধানজমি মাঠে নষ্ট হয়ে যাচ্ছে, চাষিদের চিন্তার ভাঁজ পড়েছে কপালে। বাঁকুড়া জেলার বিস্তীর্ণ এলাকায় এই একই ঘটনা ঘটছে। অথচ কোনও সমাধানসূত্র খুঁজে পাচ্ছেন না তাঁরা। ফলে তাঁদের গ্রাস করছে হতাশা।

শীতকাল ইতিমধ্যেই আমাদের রাজ্যে হাজির হয়েছে। এই সময় মূলত চাষিরা তাঁদের জমির পাকা ধান তোলেন। এমনিতেই প্রাকৃতিক দুর্যোগে নষ্ট হয়েছে চাষিদের জমির ফসল। তারপর আবার হাতির তাণ্ডবে যতটুকু ছিল, তাও নষ্ট হয়ে গেছে। অবশিষ্ট যা আছে, তা আবার অজানা রোগে নষ্ট হয়ে যাচ্ছে। জানা যায়, বাঁকুড়া জেলার ইন্দাস ব্লকের সিমুলিয়া, দশরথবাটি, গোবিন্দপুর, ঠাকুররাণী পুষ্করিনী সহ করিশুনডা অঞ্চলের বিস্তীর্ণ এলাকার ধান জমিতেই নষ্ট হয়ে গেছে। যে লক্ষ্মী সারা বছর কৃষকদের মুখে অন্ন তুলে দেয়, সেই লক্ষ্মী অজনা রোগে আজ বিপন্ন বলে মনে করছেন চাষিরা।

স্থানীয় চাষিরা জানান, তাঁরা দিন এনে দিন খান। চাষের উপর নির্ভর করেই তাঁদের সংসার চলে। আর এই ধান যদি মাঠেই নষ্ট হয়ে যায়, এরপর কিভাবে সংসার চালাবেন তাঁরা। কী রোগ, তাই খুঁজে পাচ্ছেন না। ধারদেনা করে তাঁরা চাষ করেছিলেন। তবে সেখানেও বাধা এই অজানা রোগ।  কেউ বলছে শোষক, তো কেউ আবার চুষি। আদতে কী সমস্যা, কেউই ধরতে পারছে না। জমিতে দামি দামি ওষুধ দিয়েও মিলছে না কোনও সুরাহা। সব জমির ফসল নষ্ট হয়ে যাচ্ছে। এই রোগে শুধু তাঁরা নয়, আশেপাশের সমস্ত গ্রামেও এই একই সমস্যা। ভালো ধান ধীরে ধীরে শুকিয়ে যাচ্ছে। ধানের যা পরিস্থিতি তাতে কাটছাঁট করেও কিছু পাওয়া যাবে না। ফলে স্বাভাবিকভাবেই চিন্তায় রাতে ঘুম আসছে না তাঁদের।

সরকারের কাছে এখন তাঁদের একটাই দাবি, সরকার যেন তাঁদের কথা একটু ভাবে। ক্ষতিপূরণের দাবি জানাচ্ছেন তাঁরা। কৃষকদের চোখেমুখে বিষাদের ছায়া।




All rights reserved © 2021 Calcutta News   Home | About | Career | Contact Us