১৫ জুন, ২০২৪

ED: জোর করেই কোম্পানি মেয়ের নামে করেছিলেন অনুব্রত, ইডির জেরায় দাবি মনীশ কোঠারির
CN Webdesk      শেষ আপডেট: 2023-03-19 13:14:57   Share:   

রীতিমত ভয় দেখিয়েই কোম্পানির মালিকানা মেয়ের নাম করে ছিলেন, এমনই দাবি কেষ্ট মণ্ডলের (Anubrata Mondal) হিসেব রক্ষক মনীশ কোঠারির (Manish Kothari)। ইডির (ED) জেরায় মনীশ জানিয়েছেন, 'সুকন্যার নামে থাকা একটি খাবারের কোম্পানি আসলে মনীশ কোঠারি এন্ড গ্রুপের। মনীশের সঙ্গে আরও ১৬ জন ছিল এই কোম্পানির শেয়ার হোল্ডার।

ইডি সূত্রে দাবি, জেরায় মনীশ স্বীকার করেছে ২০১৮ সালে এই কোম্পানিটি জোর করে সুকন্যার নামে হস্তান্তর করতে বাধ্য করেছিলেন অনুব্রত মণ্ডল। ৩ কোটি ৬০ লক্ষ টাকায় ফুড কোম্পানিটি সুকন্যার নামে হস্তান্তর করেছিলেন মনীশ কোঠারিরা। কোম্পানির নামে থাকা ১৫ কোটি টাকার সম্পত্তি অনুব্রতর নির্দেশে বাধ্য হয়ে দিতে হয়েছে সুকন্যাকে। ইচ্ছে না থাকলেও অনুব্রত মণ্ডলের নির্দেশেই এই কোম্পানি সুকন্যাকে বিক্রি করতে বাধ্য হয়েছিলেন মনীশরা।

এর আগে সিবিআইয়ের জেরার মুখে অনুব্রতর হিসাব রক্ষক মনীশ কোঠারি জানিয়েছিলেন, 'যখন যা বলতেন অনুব্রত, তখন তাই করতে হতো।' এছাড়া কেন্দ্রীয় সংস্থার জেরার মুখে পড়ে তিনি আরও জানিয়েছিলেন, অনুব্রত মনীশদের পুরোনো কোম্পানির নামে আরও জমি কিনেছিলেন।

এছাড়া তাঁর স্ত্রীর নামেও কেনা হয়েছিল বহু টাকার সম্পত্তি। এই সংক্রান্ত সমস্ত নথিপত্র তদন্ত করে উদ্ধার করেছে সিবিআই। যা সিবিআই এর চার্জশিটেও উল্লেখ রয়েছে। ২০১৩ সাল থেকে ২০২২ সাল পর্যন্ত ওই  ফুড কোম্পানির নামে কেনা সম্পত্তি তথ্যের এক অংশ সিএন এর হাতে। একইসঙ্গে ইডি সূত্রে খবর, মনীশের মাধ্যমেই আরো এক কোম্পানি নীর ডেভলপার প্রাইভেট লিমিটেড চালু করেন সুকন্যা।


Follow us on :