ব্রেকিং নিউজ
  (12:20 PM)-এখনও সংকট কাটেনি পদ্মশ্রী পুরস্কারপ্রাপ্ত কার্টুনিস্ট নারায়ণ দেবনাথের     (12:18 PM)-মদন মিত্রকে এবার সতর্ক করল দল     (11:17 AM)-ওমিক্রন আক্রান্তের সংখ্যা গোটা দেশে বেড়ে দাঁড়াল ৮২০৯, সুস্থ ৩১০৯     (11:14 AM)-করোনা রুখতে সকাল ১০টার পর থেকে বন্ধ গ্যালিফ স্ট্রিটের পাখিবাজার     (11:02 AM)-সিঁথি থানা এলাকায় রামলীলা বাগানের একটি বাড়িতে ভোররাতে আগুন লাগল     (08:54 AM)-প্রখ্যাত কত্থক শিল্পী পণ্ডিত বিরজু মহারাজ প্রয়াত     (08:48 AM)-সিরিয়াল দেখার ফাঁকে কসবায় দুঃসাহসিক চুরি     (08:48 AM)-রাজ্যের করোনা আক্রান্ত কমলেও মৃত্যুসংখ্যা উর্ধ্বমুখীই     (08:47 AM)-তাপমাত্রা স্বাভাবিকের নিচে, ফের বঙ্গে শীতের আমেজ  
katwa-bengal-kartick-puja-crisis
Kartick puja কাটোয়ার মৃৎশিল্পীরা চরম সংকটে


Post By : সিএন ওয়েবডেস্ক
Posted on :2021-11-15 13:57:44


কেটেছে শরৎ।  বাঙালির সব থেকে বড় উৎসব দূর্গোৎসবও শেষ। তবে কথায় আছে, বাঙালির ১২ মাসে ১৩ পার্বণ। একটি পুজোর রেশ শেষ হতে না হতেই, অন্য একটি পুজোর জোগাড় শুরু। কলকাতার দূর্গোৎসব, চন্দননগরের জগদ্ধাত্রী পুজো এবং কাটোয়ায় বিখ্যাত 'কার্তিক লড়াই'। আর কিছুদিন পরই কাটোয়ার লোকউৎসব কার্তিক পুজো। এই পুজো ঘিরে কাটোয়ার মানুষের উন্মাদনা থাকে সারা বছর ধরেই।  সাবেক কার্তিক পুজো বর্তমানে ধীরে ধারে রূপ নিচ্ছে বড় বড় থিম পুজোতে। শহরতলিতে বাড়ছে এই পুজোর বাজেট। প্রায় লক্ষাধিক টাকা খরচ করে তৈরি হয় দেবসেনাপতির মণ্ডপ। চলে থিমের লড়াই। থিম ঘিরে উঠে আসে নিত্যদিনের কথা বা পুরোনো ইতিহাস। 

কিন্তু, একের পর এক প্রাকৃতিক দূর্যোগে নাজেহাল খেটে খাওয়া মানুষ। আমফান, বুলবুল, ইয়াসের মত ঝড় ও টানা বৃষ্টিতে সবথেকে বেশি ক্ষতি হয়েছে দিন আনা দিন খাওয়া মানুষদের। এরপর আবার নিম্নচাপ। টানা বৃষ্টিতে চাষিদের পাশাপাশি ক্ষতিগ্রস্ত মৃৎশিল্পীরাও। 

মৃৎশিল্পী অশোক হালদার জানান, ঐতিহ্যবাহী এই পুজো ঘিরে এখানকার মানুষের আবেগ জড়িয়ে রয়েছে। টানা বৃষ্টিতে তাঁদের ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে। রাজ্য সরকারের পক্ষ থেকে ক্ষতিপূরণ বা সাহায্যের হাত বাড়ানো হয়নি তাঁদের দিকে। 

অন্য এক মৃৎশিল্পী জানান, কৃষক, মৎস্যশিল্পী ও বাউল শিল্পীদের সাহায্য সরকার থেকে করা হলেও তাঁদের দিকে কেউ নজর দিচ্ছে না। তাঁদের নিজস্ব কোনও পাকা ঘর নেই। ফলে বহু শিল্পী রাস্তার ধারেই তাঁদের ঠাকুর তৈরি করছেন। একের পর এক ঝড়, বৃষ্টির ফলে মূর্তি তৈরি করতে তাঁদের অসুবিধা হচ্ছে। বারবার ভিজে যাচ্ছে তৈরি হয়ে যাওয়া প্রতিমাগুলি। তাই তাঁদের দাবি, রাজ্য সরকার যদি কিছু আর্থিক সাহায্য বা ঋণ দেয়, তাহলে তাঁদের আগামীতে সুবিধা হবে। এরই সঙ্গে তাঁরা পাকা বাড়ি তৈরি করে প্রতিমা তৈরি করতে পারবেন। 

এখন দেখার, কবে সাহায্যের হাত পৌঁছয় তাঁদের দিকে। সেই দিকেই তাকিয়ে কাটোয়ার মৃৎশিল্পীরা।




All rights reserved © 2021 Calcutta News   Home | About | Career | Contact Us