ব্রেকিং নিউজ
eviction-stalls-asansol-bengal
Eviction সাত সকালেই উচ্ছেদ অভিযান, মাথায় হাত দোকানদারদের

Post By : সিএন ওয়েবডেস্ক
Posted on :2021-11-15 17:46:12


সোমবার সকালে এমন ছবি দেখতে হবে, বোধহয় ভাবতে পারেননি দোকানদাররা। সপ্তাহের শুরুর দিন এই ঘটনায় মাথায় হাত ব্যবসায়ীদের। বিনা নোটিসে দখলদার উচ্ছেদ অভিযানের অভিযোগ। কুলটির বরাকরের পর এবার আসানসোল উত্তর থানার অন্তর্গত রেলপাড় এলাকায় রাস্তার ধারে দখলদার উচ্ছেদের কাজ শুরু করল আসানসোল পুরনিগম।

চোখের সামনে জেসিবি দিয়ে ভাঙা হয় দোকানঘর। রুটিরুজির একমাত্র পথকে এভাবে ভেঙে যেতে দেখে বাকরুদ্ধ দোকানদাররা। তাঁদের অভিযোগ, আগে থেকে কোনও রকম নোটিস ছাড়াই সোমবার উচ্ছেদের কাজ শুরু করে আসানসোল পুরনিগম। ছটপুজোর কারণে অনেকেই নিজেদের ঘরে গিয়েছিলেন। সেখান থেকে ফিরে এসে দেখেন, সকাল থেকে তাঁদের দোকানগুলি ভাঙা হয়েছে। এই দোকানের উপর নির্ভর করেই তাঁদের সংসার চলে। কিন্তু হঠাৎ এই পরিস্থিতিতে দিশাহারা তাঁরা। জানেন না, আগামীদিনে কীভাবে সংসার চালাবেন তাঁরা।  

ক্ষতিগ্রস্ত দোকানদাররা আরও জানান, পুরকর্মীরা অতি দ্রুত জায়গা খালি করে দিতে বলেন। দোকান ও দোকানের বিভিন্ন সামগ্রী ভেঙে তছনছ করে দেন তাঁরা। এছাড়া পুলিসের বিরুদ্ধেও একরাশ অভিযোগ তোলেন দোকানদাররা। নিজেদের রুটিরুজির একমাত্র উপায় এভাবে নষ্ট হওয়ায় আতান্তরে ক্ষতিগ্রস্তরা।

অন্যদিকে, সরকারি জায়গা দখল করে দোকান দেওয়া বেআইনি। এর ফলে রাস্তার দৈর্ঘ্য অনেকটাই ছোট হয়ে যাচ্ছে বলে জানান আসানসোল পুরনিগমের প্রশাসক অমরনাথ চট্টোপাধ্যায়।

ভেঙে গুঁড়িয়ে যাওয়া দোকানগুলিতে মিশে আছে তাঁদের রক্ত জল করা পরিশ্রম। প্রশ্ন উঠছে, তবে কার অনুমতিতে এতদিন ধরে চলছিল এইসব দোকান ? পুনর্বাসনের কথা না ভেবে কীভাবে দখলদার উচ্ছেদ সম্ভব, এই প্রশ্নগুলিই ঘুরে মরছে গোটা চত্বরে। একেবারে নিজেদের সর্বস্ব খুইয়ে কোন অজানা ভবিষ্যৎ তাঁদের জন্য অপেক্ষা করছে, সেই চিন্তায় মাথায় হাত দোকানিদের। এখন কবে নিজেদের জীবিকায় ফিরতে পারবেন ক্ষতিগ্রস্ত এইসব দোকানিরা, তা বলবে সময়ই।






All rights reserved © 2021 Calcutta News   Home | About | Career | Contact Us

এই সংক্রান্ত আরও পড়ুন