ব্রেকিং নিউজ
  নাটাপুকুরে আগ্নেয়াস্ত্র, বোমা ও বোমা বাধার সরঞ্জাম উদ্ধারের ঘটনায় গ্রেফতার আইএফএস নেতা     ফের উলুবেড়িয়ায় জাতীয় সড়কে যান নিয়ন্ত্রণ করতে গিয়ে মৃত্যু এক সিভিক ভলেন্টিয়ারের     ফের শ্রমিক মৃত্যু দুর্গাপুর ইস্পাত কারখানায়     তাপমাত্রার পারদ সামান্য নামল বঙ্গে  
elephant-attack-aggitation
Elephant হাতির হানায় মৃতের পরিবারকে চাকরি দেওয়ার দাবিতে বিক্ষোভ

Post By : সিএন ওয়েবডেস্ক
Posted on :2022-01-11 13:19:45


হাতির হানায় মৃতের পরিবারকে চাকরি দেওয়ার দাবি নিয়ে সোমবার পুলিস-আন্দোলনকারীদের মধ্যে দড়ি টানাটানি শুরু হল। আন্দোলনকারীদের অনশনে বসতে বাধা পুলিসের। তবে পৌর নির্বাচন মিটে যাওয়ার পর সমস্যার সুরাহার আশ্বাস পেয়েছেন আন্দোলনকারীরা।

জলপাইগুড়ির ডুয়ার্স অঞ্চলে হাতি-মানুষ সংঘাত নতুন নয়। প্রায়ই হাতির হানায় মানুষের মৃত্যু ঘটে। সেরকমই ৯৬ টি পরিবার রয়েছে গোটা জেলা জুড়ে। যাঁদের পরিবারের কেউ না কেউ ২০১৫ সাল থেকে ২০২০ সালের মধ্যে মারা গিয়েছেন হাতির হানায়। সরকারি নিয়ম অনুযায়ী আর্থিক ক্ষতিপূরণও পেয়েছে মৃতের পরিবার।

পাশাপাশি, পরিবারের একজনকে পুলিশের স্পেশাল হোমগার্ডে চাকরি দেওয়ার প্রতিশ্রুতিও দেওয়া হয়েছিল বলে দাবি আন্দোলনকারীদের। এঁদের মধ্যে ১১ জন ইতিমধ্যে স্পেশাল হোমগার্ডের চাকরি পেয়েওছেন। কিন্তু এখনও ৮৫ জনের চাকরি হয়নি। এর জেরে ওইসব পরিবারের সদস্যরা একাধিকবার জলপাইগুড়ি পুলিস সুপারের দ্বারস্থ হয়েছিলেন। কিন্তু সুরাহা হয়নি।

এরপর তাঁরা সিদ্ধান্ত নেন, সোমবার থেকে পুলিস সুপারের দফতরের সামনে অনশনে বসবেন। কিন্তু অভিযোগ, তাতে পুলিস বাধ সাধে। মঙ্গলবার সকালেই জেলার বিভিন্ন থানায় ডেকে নিয়ে গিয়ে সিংহভাগ আন্দোলনকারীকে আটকে রাখা হয় বলে অভিযোগ। ১৫ জন আন্দোলনকারী জলপাইগুড়ি এসে পৌঁছন। কিন্তু শহরে ঢোকার আগেই পাহাড়পুর মোড়ে তাঁরা কোতোয়ালি থানার পুলিসের বাধার মুখে পড়েন। কোভিড পরিস্থিতিতে কোনোরকম আন্দোলন বা অনশন করা যাবে না বলে পুলিশের তরফে জানিয়ে দেওয়া হয়। এদিকে আন্দোলনকারীরাও নাছোড়বান্দা। অবশেষে জেলার এক পুলিশকর্তার সঙ্গে কথা বলিয়ে, ডেপুটেশন দেওয়ার ব্যবস্থা করার আশ্বাস দিলে আন্দোলনকারীরা বিক্ষোভ তুলে নেন।

আন্দোলনকারীরা জানিয়েছেন, পুর নির্বাচনের পর তাঁদের সুরাহার আশ্বাস দেওয়া হয়েছে। তবে তখনও সমাধান না হলে অনশনে বসা থেকে তাঁদের কেউ আটকাতে পারবে না বলে এদিন হুঁশিয়ারি দিয়ে রেখেছেন আন্দোলনকারীরা।

এরপর পুলিসের পাহারাতেই আন্দোলনকারীদের পাহাড়পুর থেকে পুলিশ সুপারের অফিসে নিয়ে যাওয়া হয়। অতিরিক্ত পুলিশ সুপার সন্দীপ সেন তাঁদের সঙ্গে কথা বলেন। আন্দোলনকারীরা একটি স্মারকলিপিও জমা দেন তাঁকে।






All rights reserved © 2021 Calcutta News   Home | About | Career | Contact Us

এই সংক্রান্ত আরও পড়ুন