ব্রেকিং নিউজ
  Weather Update: উত্তরবঙ্গে জারি কমলা সতর্কতা     Kalyani: অমানবিক! হাসপাতাল ক্যাম্পাসেই তিনদিন পড়ে থেকে মৃত্যু বৃদ্ধের     Delhi: দুর্বিষহ দিল্লি, তাপমাত্রা ছাড়াল ৪৯ ডিগ্রি     Bowbazar: বউবাজারে চলছে দুটি বাড়ি ভাঙার কাজ, তালিকায় আর ক'টি বাড়ি, আজ সমীক্ষা     Ukraine-Russia War: ব্লাড ক্যান্সারে ভুগে জবুথবু অবস্থা পুতিনের? ঘনিষ্ঠের দাবি ঘিরে চলছে জল্পনা     Mahestala: কমিটি গঠন নিয়ে ধুন্ধুমার মহেশতলায়, দুষ্কৃতী হামলায় রক্তাক্ত বেশ কয়েকজন     Corona Upadte: দেশে করোনায় উত্তরোত্তর বাড়ছে মৃত্যু     Arjun Singh: 'দলের কেউ ভুল করলে বলব', ফের সরব অর্জুন, 'সমাধান বেরোবে', মত দিলীপ-রাহুলের     Domjur: ডোমজুড়ে ভরা বাজারে শুটআউট, খুনের সুপারি দিয়েছিল এক মহিলা?     Sreelekha Mitra: 'আমাদের সবার মানসিক স্বাস্থ্যের পরীক্ষা দরকার', পল্লবীর মৃত্যুতে আবেগঘন শ্রীলেখা     Sundarban: ভয়ঙ্কর! একে ভরা কোটাল, তায় ফাটল বাঁধে! সুন্দরবনের গ্রামে হু হু করে ঢুকছে জল     Paresh Paul: অভিজিৎ সরকার খুনে সিবিআই তলব পরেশ পাল ও স্বপন সমাদ্দারকে     California: এবার ক্যালিফোর্নিয়া, চার্চে বন্দুকবাজের হামলা, মৃত ১, আহত ৫     Banga Bhaban: মোদীর গড় বারাণসীতে তৈরি হতে চলেছে মমতার বঙ্গভবন     Pallavi Dey: 'বিবাহিত' লিভ-ইন সঙ্গীর একাধিক সম্পর্ক পল্লবীর অবসাদের কারণ? কী বলছে অভিনেত্রীর পরিবার     Madhya Pradesh: মন্দিরে নারকেল প্রসাদ নেওয়ার জন্য হুড়োহুড়ি, পদপিষ্ট হয়ে জখম ১৭ পুণ্যার্থী     Ira Khan: বাবার হাঁটুর বয়সী প্রেমিকাকে চুম্বন আমির-কন্যার!     Modi Nepal: বুদ্ধপূর্ণিমায় নেপালে প্রধানমন্ত্রী মোদী, দিলেন মায়াদেবী মন্দিরে পুজো, জ্বালালেন প্রদীপ      Online Exam: কল্যাণী ও বিদ্যাসাগরে অনলাইনে পরীক্ষা, অফলাইন রবীন্দ্রভারতীতে     Firing: ব্যারাকপুরে প্রসিদ্ধ বিরিয়ানির দোকানে দুষ্কৃতীদের গুলি, জখম ২      Durgapur: ছেলে বেঁচে আছে, বিশ্বাসে মৃতদেহ আগলে মা     Bomb blast: এবার মহেশতলা, আবর্জনার স্তূপে বোমা বিস্ফোরণে আহত নাবালক     Bangladesh: ভারত গম রফতানি বন্ধ করায় বেজায় বিপাকে বাংলাদেশ, খাদ্য চাহিদা মেটাতে কী ভাবনা সরকারের?     Marriage: একসঙ্গে দুই প্রেমিকাকে বিয়ে যুবকের! তারপর ঘটল ভয়ঙ্কর কাণ্ড     Viral Dance: প্রকাশ্যে পাঞ্জাবি তুলে চটুল নাচ শাসকদলের বিধায়কের! ভিডিও ভাইরাল     Kashmir: 'হয় কাশ্মীর ছাড়ো, নয়ত মরো!' শরণার্থী-পণ্ডিতদের উদ্দেশ্যে হুমকি চিঠি জঙ্গি গোষ্ঠীর     Cooch Behar: বয়স মাত্র ২ বছর ৭ মাস, প্রতিভার জোরেই রেকর্ড দীপশিখার     Ukraine-Russia: অলিম্পিকসে সোনা জেতা শুটার এবার বন্দুক হাতে দেশ রক্ষায়      Murder Pallavi: পল্লবীর মৃত্যুতে এবার খুনের অভিযোগ পরিবারের, কাঠগড়ায় সাগ্নিক ও তাঁর বান্ধবী     Jalpaiguri: জমি লিখে না দেওয়ায় ধারালো অস্ত্র নিয়ে কোপ বাবাকে, জখম মা ও বোনও      Cooking: মরিচ মুরগি স্বাদে-গন্ধে অতুলনীয়, নৈশভোজে জমে যাবে     CNG Bus: উল্টোডাঙা-সাপুরজি রুটে শুরু হয়ে গেল সিএনজি বাস পরিষেবা     Shootout: গুলির শব্দে কেঁপে উঠল আদ্রা রেলইয়ার্ড     Pallavi: 'পল্লবীর সঙ্গে সম্পর্ক হওয়ায় স্ত্রী সঙ্গ ত্যাগ সাগ্নিকের', বিস্ফোরক দাবি সাগ্নিকের শ্বশুরের     Slapping: বিজেপির মুখপাত্রের গালে সপাটে চড়! ভিডিও সামনে আসতেই তোলপাড়     Corona Bengal: করোনা আক্রান্ত এক ধাক্কায় কমে ১৪, বেড়েছে সুস্থতাও     China: 'ভারতকে দোষারোপ করে লাভ কী?', গম রপ্তানি বন্ধে নয়াদিল্লির পাশেই চিন     Court: জোর করে চুমু ও কিশোরের গোপনাঙ্গ স্পর্শ 'অস্বাভাবিক অপরাধ' নয়: আদালত     Farooq Abdullah: উপত্যকায় পণ্ডিত হত্যার দায় ঘুরিয়ে কাশ্মীর ফাইলসের দিকে দিলেন ফারুক আবদুল্লা     Nepal: 'অযোধ্যার রাম মন্দিরে খুশি হবেন নেপালের মানুষ', লুম্বিনিতে দাঁড়িয়ে মন্তব্য নরেন্দ্র মোদীর     Photography Exhibition: পুরনো দিনের গল্প বলছে তথাগতর ‘সই’   
bardhaman-bank-robbery-bengal
robbery : বড়সড় ডাকাতি বর্ধমানের একটি রাষ্ট্রায়ত্ত ব্যাঙ্কে, প্রায় ৩০লাখ টাকা নিয়ে চম্পট ডাকাতদল


Post By : সিএন ওয়েবডেস্ক
Posted on :2022-01-21 17:12:25


সাত সকালে ব্যাঙ্ক খুলতেই ঢুকলো ডাকাত দল। আগ্নেয়াস্ত্র উঁচিয়ে খুন করে দেওয়ার ভয় দেখিয়ে চলে লুঠপাট। সূত্রের খবর, আনুমানিক ৩০ লক্ষ টাকার বেশি নিয়ে চম্পট ডাকাত দলের।

মাথায় বন্দুক ঠেকিয়ে ভল্ট খুলতে বাধ্য করা হয় ব্যাঙ্ক আধিকারিককে। ঘটনাস্থল বর্ধমান শহরের প্রাণকেন্দ্র কার্জন গেট চত্বর। সেখানেই একটি রাষ্ট্রায়ত্ত্ব ব্যাঙ্কের শাখায় এই ডাকাতির ঘটনা ঘটে। ঘটনাকে কেন্দ্র করে শহর জুড়ে ব্যাপক চাঞ্চল্যের সৃষ্টি হয়। ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে পূর্ব বর্ধমান জেলা পুলিস।

ব্য়াঙ্ক সূত্রে জানা গেছে, শুক্রবার সকালে ঘড়ির কাঁটা তখন পৌনে দশটা পার করেছে। ব্যাঙ্ক কর্মী, অফিসাররা একে একে আসতে শুরু করেন। ততক্ষণেই এসে গিয়েছে কিছু আমানতকারীও। ঠিক সেই সময় বিনা বাধায় ব্যাঙ্কে ঢুকে পড়ে ৬ থেকে ৭ জন দুষ্কৃতী। ব্যাঙ্কের শাখায় ঢুকেই প্রত্যেকে স্বমূর্তি ধারণ করে। দুষ্কৃতীদের প্রত্যেকেরই হাতে আধুনিক আগ্নেয়াস্ত্র ছিল। ব্যাঙ্ক কর্মীদের এক জায়গায় নিয়ে আসে তারা। মেঝেতে বসতে বাধ্য করা হয়। সেখানে বসানো হয় ব্যাঙ্কের কাজে আসা মানুষদেরও। প্রত্যেকের সঙ্গে থাকা মোবাইল ফোন দুষ্কৃতীদের একটি ব্যাগে রাখতে বাধ্য করা হয়। দীর্ঘ ৪৫ মিনিট ধরে ব্যাঙ্কের ভেতরে অপারেশন চালায় দুষ্কৃতীরা। এরপর নিজেদের সঙ্গে থাকা পিঠ ব্যাগে টাকার বান্ডিল ভর্তি করে নেয় তারা। সঙ্গে থাকা হাত ব্যাগও টাকার বান্ডিল ভর্তি করে নেওয়া হয়। এরপর বিনা বাধায় চম্পট দেয় তারা।

দুষ্কৃতীরা পালিয়ে যাবার পর আশপাশের ব্যবসায়ী ও বাসিন্দারা ডাকাতির কথা জানতে পারে। খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে পৌঁছয় জেলা পুলিস সুপার কামনাশিস সেন সহ অন্যান্য পুলিস আধিকারিকরা। কিন্তু ততক্ষণে ধরা ছোঁয়ার বাইরে চলে যায় দুষ্কৃতীরা।

জনবহুল এলাকায় এত বড় ব্যাঙ্ক ডাকাতির ঘটনায় ব্যাপক চাঞ্চল্যের সৃষ্টি হয়েছে শহরজুড়ে। ঠিক কত টাকা লুট করেছে দুষ্কৃতীরা সে ব্যাপারে এখনও নিশ্চিত হতে পারেনি কর্তৃপক্ষ এবং জেলা পুলিস। তবে প্রায় ৩০ লক্ষ টাকার বেশি ডাকাতি হয়েছে বলে প্রাথমিকভাবে অনুমান জেলা পুলিসের। এ ব্যাপার নিশ্চিত হতে ভল্টে কত টাকা ছিল, এখন কত টাকা রয়েছে তা হিসেব করে দেখা হচ্ছে।

তবে ডাকাতির পর পরই ব্যাঙ্কের নিরাপত্তা ব্যবস্থা নিয়ে বড়সড় প্রশ্ন উঠেছে বর্ধমানে। ডাকাত ঢুকেছে বুঝতে পারার সঙ্গে সঙ্গে এমার্জেন্সি অ্য়ালার্ম বাজানো হলো না কেন? সেই প্রশ্ন তুলছেন আশপাশের ব্যবসায়ীরাও। ঘটনার তদন্তে নেমে ব্যাঙ্কের নিরাপত্তা ব্যবস্থা নিয়ে প্রশ্ন তুলছেন তদন্তকারী পুলিস অফিসাররা।

প্রশ্ন উঠছে ব্যাঙ্কের অন্যান্য নিরাপত্তা ব্যবস্থা নিয়েও। ব্যাঙ্কে ঢোকার মুখেই আগ্নেয়াস্ত্র সহ নিরাপত্তারক্ষী থাকার কথা। সঙ্গেই দরজা বন্ধ থাকার কথা। কর্মী, অফিসার থেকে শুরু করে আমানতকারী সকলকেই নিরাপত্তারক্ষীর নজরদারির মধ্যে থাকার কথা। একসঙ্গে আগ্নেয়াস্ত্রধারী এতজন দুষ্কৃতী একসঙ্গে ব্যাঙ্কে ঢুকে পড়ল অথচ নিরাপত্তারক্ষী তা টের পেল না কেন?

জেলা পুলিসের তদন্তকারী আধিকারিকরা জানিয়েছেন, ব্যাঙ্কে সে সময় নিরাপত্তারক্ষী ছিল কীনা বা এমার্জেন্সি অ্য়ালার্ম ঠিক ছিল কিনা তা তদন্ত করে দেখা হচ্ছে। সেই সঙ্গে ব্যাঙ্কের সিসিটিভি সে সময় কাজ করছিল কিনা তাও খতিয়ে দেখা হচ্ছে।

এরপর জেলা পুলিস সুপার সাংবাদিকদের জানান, ঘটনার তদন্তে স্পেশাল ইনভেস্টিগেশন টিম গঠন করা হয়েছে। সেই সঙ্গে শহর থেকে বেরোনোর সব রাস্তা, বাস স্ট্যান্ড, রেল স্টেশনে বাড়তি নজরদারি ব্যবস্থা করা হয়েছে। পাশাপাশি জেলার সব থানা এলাকায় নাকা তল্লাশি শুরু করা হয়েছে।

তবে সূত্র মারফত জানা গেছে, ব্যাঙ্কের সিঁড়িতে থাকা সি সি টিভি সেসময় কার্যকর অবস্থায় ছিল না। অন্যদিকে ব্যাঙ্কের ভিতরে থাকা সিসিটিভির হার্ডডিস্ক দুষ্কৃতীরা নিয়ে চম্পট দেয় বলে জানা গিয়েছে।






All rights reserved © 2021 Calcutta News   Home | About | Career | Contact Us

এই সংক্রান্ত আরও পড়ুন