০৫ মার্চ, ২০২৪

Body Rescue: গৃহবধূকে প্রেমের প্রলোভন দেখিয়ে পাচার! মাটির নিচ থেকে উদ্ধার দেহ, গ্রেফতার ২
CN Webdesk      শেষ আপডেট: 2024-01-25 19:16:43   Share:   

প্রেমের প্রস্তাব দিয়ে গৃহবধূকে পাচার ও খুনের অভিযোগ উঠেছে প্রতিবেশী ভাই ও বোনের বিরুদ্ধে। অভিযোগ, ওই গৃহবধূর গলায় ফাঁস দিয়ে মেরে তাঁকে রান্না ঘরের নিচে পুঁতে দেওয়া হয়েছে। চাঞ্চল্য়কর ঘটনাটি ঘটেছে উত্তর ২৪ পরগনার বাদুড়িয়ার ইশ্বরী গাছা ঢালী পাড়ায়। জানা যায়, মৃত যুবতীর নাম রহিমা খাতুন (২৪)। ঘটনাস্থলে পুলিস গিয়ে মাটি খুঁড়ে মৃতদেহটি উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য় নিয়ে যায়। 

সূত্রের খবর, বছর দশেক আগে গোপালনগর থানার নতিদাঙ্গার বাসিন্দা রহিমা খাতুনের সঙ্গে গোপালনগরের সাতবেড়িয়া বাসিন্দা সেলিম মণ্ডলের বিয়ে হয়। বিয়ের আট বছর পর রহিমা তাঁর গ্রামের প্রতিবেশী বাকিবিল্লা মণ্ডলের সঙ্গে বিবাহবহির্ভূত সম্পর্কে জড়িয়ে পড়ে। এরপর রহিমা তাঁর সাত বছরের মেয়েকে রেখে বাকিবিল্লার সঙ্গে মুম্বাই চলে যায় বলে অভিযোগ পরিবারের। 

এরপর রহিমা তাঁর মেয়ের সঙ্গে মোবাইল ফোনের মাধ্য়মে যোগাযোগ রাখলেও পাঁচ মাস ধরে কোনো যোগাযোগ হয় না তাঁর পরিবারের। এরপর পরিবারের পক্ষ থেকে গোপালনগর থানায় পাচারের অভিযোগ দায়ের করা হয় বাকিবিল্লা ও তার বোন তারাবানু মন্ডলের বিরুদ্ধে। অভিযোগের ভিত্তিতে পুলিস তদন্তে নেমে অভিযুক্ত বাকিবিল্লা ও তারাবানুকে জেরা করে জানতে পারে, ছয় থেকে সাত মাস আগে বসিরহাটের বাদুড়িয়ার ঈশ্বরীগাছায় তারাবানুর শ্বশুরবাড়িতে রহিমাকে গলায় ফাঁস দিয়ে মেরে রান্না ঘরের মাটিতে পুঁতে দেওয়া হয়েছে। খুনের অভিযোগে পুলিস বাকীবিল্লা ও তার বোন তারাবানু কে গ্রেফতার করে। 


Follow us on :