ব্রেকিং নিউজ
  মহালয়ার আগে কাটছে নিম্নচাপ দক্ষিণবঙ্গে, উত্তরবঙ্গের ৫ জেলায় ভারী বৃষ্টির সম্ভাবনা     অস্থায়ী কর্মীদের স্থায়ীকরণের দাবীতে দক্ষিণবঙ্গ রাষ্ট্রীয় পরিবহন সংস্থার বাঁকুড়া ডিপো ঘেরাও করে বিক্ষোভ     কুড়মিদের রেল অবরোধ আজ পঞ্চম দিন, পুরুলিয়া কুস্তাউর রেল স্টেশনে রেল ট্রাক এ বসে আন্দোলনকারীরা      ক্যানিংয়ে গাছ কাটার প্রতিবাদ করায় আক্রান্ত বৃদ্ধ দম্পতি     রোগী মৃত্যুকে কেন্দ্র করে উত্তেজনা বারাসাতে এক বেসরকারি হাসপাতালে, মৃতদেহ ফেলে রেখে বিক্ষোভ পরিবারের  
Multiple-villages-of-Gazol-in-drinking-water-crisis-trust-pond-water
Maldaha: পানীয় জল সংকটে গাজোলের একাধিক গ্রাম, ভরসা পুকুরের জল!

Post By : সিএন ওয়েবডেস্ক
Posted on :2022-04-29 13:48:12


গরমের দাবদাহে অতিষ্ট রাজ্যবাসী। তার উপর ভয়ঙ্কর জল কষ্ট। গ্রামে নেই পানীয় জলের (Drinking Water) ব্যবস্থা। নেই কোনও ডিপ টিউবওয়েল (tubewell)। মানুষকে খেতে হচ্ছে পুকুরের জল। এ যেন কোনও নরকের দৃশ্য। ডিজিটাল ইন্ডিয়ার (Digital India) যুগে এই ছবি উঠে আসল মালদহ (Maldaha) জেলার গাজোল ব্লকের পাণ্ডুয়া গ্রাম পঞ্চায়েতের (Panchayet) কানোট, বেতা শাড়ি, ধুমাদিঘীর মতন গ্রামগুলিতে।

উল্লেখ্য, সারাবছর গ্রামবাসীদের একমাত্র ভরসা কুয়োর জল। কিন্তু বৈশাখ-জ্যৈষ্ঠ মাসে সেই কুয়োর জলের স্তরও নেমে যায়। জল দিয়ে উঠতে থাকে কাদা। এই পরিস্থিতিতে পুকুরের জল খেতে হচ্ছে গ্রামবাসীদের। যে পুকুরে স্নান করানো হয় গবাদি পশুদের। জামা-কাপড় কাচা হয়। এই পুকুরের জল দীর্ঘদিন খেয়ে গ্রামের মানুষদের শরীরে বাসা বাঁধছে বিভিন্ন রোগ।

গ্রামবাসীরা জানান, পরিশ্রুত পানীয় জলের জন্য বারবার আবেদন করলেও কোনও লাভ হয়নি। ফলে সারা বছর ধরে তাঁদের কুয়োর জল খেতে হয়। আর তীব্র গরমে কুয়োর জল স্তর নেমে গেলে ভরসা একমাত্র গ্রামের পুকুর।

তীব্র গরমে এই ভয়ঙ্কর জল কষ্ট নিয়ে সরব হয়েছে বিজেপি। বিজেপির উত্তর মালদা সাংগঠনিক জেলার সভাপতি উজ্জ্বল দত্ত বলেন, তৃণমূল পরিচালিত পাণ্ডুয়া গ্রাম পঞ্চায়েত লক্ষ লক্ষ টাকা খরচ করে ইকো পার্ক তৈরি করছে। কিন্তু গ্রামে পরিশ্রুত পানীয় জলের ব্যবস্থা করতে অক্ষম।

ঘটনা শুনে হতবাক জেলা তৃণমূলের মুখপাত্র শুভময় বসু। তিনি বলেন, এই বিষয়টি তিনি জানতেন না। এটা কখনোই মেনে নেওয়া যায় না। একবিংশ শতাব্দীতে মানুষকে এভাবে পুকুরের জল খেতে হচ্ছে। দলের পক্ষ থেকে স্থানীয় গ্রাম পঞ্চায়েত ও জেলা পরিষদকে জানান হবে । দ্রুত পানীয় জলের ব্যবস্থা করা হবে। এর সঙ্গে কাটমানির কোনও যোগাযোগ নেই। বিজেপি সবেতেই রাজনীতি করে বলে জানান তিনি।

এখন দেখার গ্রামবাসীরা আদৌ তাঁদের বেঁচে থাকার জন্য ন্যূনতম ন্যায্য পাওনা পায় কিনা। এই গরমে সরকার তাঁদের জন্য জলের ব্যবস্থা করে কীনা।






All rights reserved © 2021 Calcutta News   Home | About | Career | Contact Us

এই সংক্রান্ত আরও পড়ুন