ব্রেকিং নিউজ
In-love-with-Malkin-for-taking-care-of-the-dog
Affairs: কুকুরের দেখাশোনা করার কাজ নিয়ে মালকিনের প্রেমে হাবুডুবু

Post By : সিএন ওয়েবডেস্ক
Posted on :2022-08-04 17:12:37


পোষ্যের (Pet) দেখাশোনার জন্য রাখা হয়েছিল একজনকে। কিন্তু সেই মালকিনের সঙ্গেই ধীরে ধীরে সখ্যতা, ভালোবাসা (Love), শারীরিক সম্পর্ক (Physical Relation)। তারপরই পলাতক যুবক (Youth)। অভিযোগ দায়েরের পরও নাকি নিরুত্তাপ তদন্তকারী পুলিস অফিসার। তাই বিচারের আশায় উচ্চপদস্থ পুলিসকর্তার দ্বারস্থ নির্যাতিত মহিলা। চাঞ্চল্যকর ঘটনাটি ঘটেছে চন্দননগর থানার বারাসত গেট এলাকায়। অভিযুক্ত যুবকের নাম শীতলদীপ জৈন।

পুলিস সূত্রে খবর, মাস ছয়েক আগে বারাসত গেট এলাকার বছর ২৯-এর এক যুবতী বাড়িতে কুকুর দেখাশোনার জন্য ফেসবুক পেজে বিজ্ঞাপন দেন। সেই বিজ্ঞাপন দেখে বছর ২৫ এর যুবক শীতলদীপ জৈন ওই যুবতীর সাথে যোগাযোগ করেন। তাঁর বাড়ি উত্তরাখণ্ডে বলে জানিয়েছিলেন। শীতল আরও জানান, তাঁর মামাবাড়ি হুগলির সাহাগঞ্জে এবং তাঁর ভোটার কার্ডও পশ্চিমবঙ্গের। কাজ পাকা হওয়ায় মহিলার বাড়িতে এসে ওঠেন শীতলদীপ। কাজ করতে করতেই শীতল ওই যুবতী ও তাঁর মায়ের মন জয় করে নেন। ইতিমধ্যে ভালোবাসা থেকে শারীরিক সম্পর্কও তৈরি হয় শীতল ও ওই মহিলার। মহিলার গর্ভে সন্তান চলে আসে। অভিযোগ, এই খবর জানানোর পরই শীতলের ব্যবহার খারাপ হওয়া শুরু হয়। ইতিমধ্যে মহিলার পায়ের ব্যথার সুযোগ নিয়ে তাঁকে গর্ভ নিরোধক ওষধ খাইয়ে দেন শীতল। ফলে গর্ভেই সন্তান নষ্ট হয়। তারপর গত ৮ই জুন বিকেল থেকে শীতলের আর কোনও খোঁজ পাননি মহিলা।

অভিযোগ, এরপর শীতলের মামা ও বাবা-মা বাড়িতে এসে মহিলাকে মারধর করে। এ বিষয়ে চন্দননগর থানায় ওই মহিলা অভিযোগ দায়ের করেন। অভিযোগ, চন্দননগর থানার তদন্তকারী অফিসারের কাছ থেকে কোনও সহযোগিতা পাননি মহিলা। আজ তাই ওই মহিলা চুঁচুড়ায় অবস্থিত চন্দননগর কমিশনারেটের অফিসে এসে ডিসিপি (সদর) নিধিরানীর দ্বারস্থ হন।






All rights reserved © 2021 Calcutta News   Home | About | Career | Contact Us

এই সংক্রান্ত আরও পড়ুন