ব্রেকিং নিউজ
Food-department-office-open-at-midnight-What-evidence-is-being-destroyed-
Food: মাঝরাতে খাদ্য দফতরের অফিস খোলা, তথ্যপ্রমাণ কি লোপাট করা হচ্ছে? সরগরম মেখলিগঞ্জ

Post By : সিএন ওয়েবডেস্ক
Posted on :2022-08-06 18:58:06


গভীর রাতেও (Mid Night) খোলা মেখলিগঞ্জ মহকুমা খাদ্য নিয়ামকের অফিস (Food Supply Office)। আর তা নিয়েই চরম দ্বন্দ্ব এলাকাবাসীর মনে। রাতে চোর ঢুকেছে, এই সন্দেহে অফিসের সামনে জড়ো হন এলাকাবাসী। গোটা বিষয়টি নিয়ে সন্দেহ জাগে সাধারণ মানুষের মধ্যে। দফতরের সামনে বিক্ষোভ (Agitation) দেখাতে থাকেন উপস্থিত সাধারণ মানুষ। পরে অফিসের দরজা বন্ধ করে পুলিসে খবর দেন তাঁরা। খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে পৌঁছয় মেখলিগঞ্জ থানার পুলিস। এরপরই অফিস থেকে বেরিয়ে আসেন খাদ্য দপ্তরের আধিকারিকরা। সংবাদ মাধ্যমের সামনে তাঁরা কিছু বলতে চাননি।

বিরোধীদের দাবি, কী এমন প্রয়োজন, যার জন্য গভীর রাত পর্যন্ত অফিস খুলে রেখে কাজ করতে হচ্ছিল? এর অবশ্য কোনও উত্তর মেলেনি। বিরোধীরা দাবি করেন, বামেদের খাদ্যমন্ত্রী থাকার সময় পরেশ অধিকারী অন্যায়ভাবে অনেক রেশন কার্ড (Ration Card) থেকে শুরু করে দুর্নীতির (Corruption) সাথে যুক্ত ছিলেন, সেই সমস্ত তথ্যপ্রমাণ লোপাট করার চেষ্টা করছিলেন আধিকারিকরা।

যদিও শাসকদলের পক্ষ থেকে অভিযোগ অস্বীকার করা হয়। তাদের বক্তব্য, সরকারি অফিসে কাজের চাপ থাকলে অন্যত্রও রাতে কাজ হয়। এখানেও আগে হয়েছে। এর মধ্যে ফাইল লোপাট করার কোনও ব্যাপার নেই। তবে অত রাতে কাজ হওয়ায় বাইরে কয়েকজন লোক থাকাটা দরকার ছিল।

ঘটনার জেরে ব্যাপক চাঞ্চল্য ছড়ায় এলাকায়। প্রশ্ন উঠতে শুরু করেছে, কী কারণে এত রাত পর্যন্ত অফিস খুলে রেখে কাজ করছিলেন আধিকারিকরা? পরেশবাবু (Paresh Adhikary) অবশ্য এসব অভিযোগ পুরোপুরি খণ্ডন করে জানিয়ে দিয়েছেন, তিনি এর বিরুদ্ধে আইনি ব্যবস্থা নেবেন।

যদিও খাদ্য দফতরের অফিসাররা এ নিয়ে একটি কথাও বলতে চাননি। বরং হাত দিয়ে নিজের মুখ আড়াল করতেই ব্যস্ত ছিলেন।








All rights reserved © 2021 Calcutta News   Home | About | Career | Contact Us

এই সংক্রান্ত আরও পড়ুন