ব্রেকিং নিউজ
Extensive-interrogation-of-eight-people-arrested-in-child-abduction-the-fate-of-a-large-circleS
Child: শিশুচুরির ঘটনায় ধৃত আটজনকে ব্যাপক জেরা, বড়সড় চক্রের হদিশ

Post By : সিএন ওয়েবডেস্ক
Posted on :2022-04-16 17:29:15


দক্ষিণ দিনাজপুরে শিশু চুরির (Child Theft) ঘটনায় ধৃত আটজনকে জেরা করে ঘটনার মূলে পৌঁছতে চেষ্টা করছে পাতিরাম থানার পুলিস। এদিন পাতিরাম থানায় ধৃতদের জেরা (Interrogation) করতে আসেন জেলার পুলিস সুপার রাহুল দে সহ জেলা পুলিসের পদস্থ আধিকারিকরা।

পাশাপাশি বিক্রি এবং শিশু কেনার ঘটনা কলকাতা এবং তার পার্শ্ববর্তী এলাকা হলেও পাতিরাম এলাকায় কেন তারা এসেছিল? সেই নিয়ে যেমন পুলিসের মধ্যে প্রশ্ন উঠেছে, একইভাবে বাসিন্দাদের মধ্যে প্রশ্ন উঁকি দিচ্ছে। আতঙ্কিত (Panic) এলাকার মানুষ।

প্রসঙ্গত, সারোগেসি আইন ও শিশু বিক্রির অভিযোগে চক্রের আরও ছজনকে গতকাল গ্রেফতার করে পাতিরাম থানার পুলিস। গতকাল অর্থাৎ বৃহস্পতিবার রাতে কলকাতা সংলগ্ন বেশ কয়েকটি জায়গায় অভিযান চালিয়ে ছজনকে গ্রেফতার করেছিল পুলিস। ছজনের মধ্যে পাঁচজনই মহিলা, একজন পুরুষ। ধৃতদের নাম শ্রাবণী অধিকারী(৩৩), স্বপ্না সরদার(৩৩), পূর্ণিমা চৌধুরী(২২) ও অনিতা ঝুনঝুনওয়ালা(২৩)। ধৃতদের বাড়ি কলকাতা সংলগ্ন এলাকায়। শিশু কেনার অভিযোগে হাওড়ার এক দম্পতিকে (Couple) গ্রেফতার করেছে পাতিরাম থানার পুলিস। ধৃত ছয়জনকে শুক্রবার দুপুরে বালুরঘাট জেলা আদালতে তোলা হয়।

উল্লেখ্য, গত ১০ এপ্রিল শিশু বিক্রির গোপন খবর পেয়ে দক্ষিণ দিনাজপুরের পাতিরাম থানার পুলিস পাতিরাম রোলার মোড় থেকে শোভন সরদার (৩৮) ও পিঙ্কি মান্না (৩৩) নামে এক পুরুষ ও এক মহিলাকে গ্রেফতার করে। শিশু সহ এক মহিলা পালিয়ে যায়। পরেরদিন ১১ এপ্রিল ধৃত দুজনকে বালুরঘাট আদালতের মাধ্যমে পুলিস হেফাজতে নিয়ে জিজ্ঞাসাবাদের পর গতকাল এই ছজনকে গ্রেফতার করে পতিরাম থানার পুলিস। ধৃতদের গতকাল বালুরঘাট আদালতে তোলার পর দশদিনের পুলিস রিমান্ডে নেওয়া হয়েছে। পাশাপাশি পুলিস এক মাসের একটি শিশুকে উদ্ধার করে। তাকে জেলার হিলির একটি হোমে রাখা হয়েছে।

এদিন সিআইডির একটি টিম পাতিরাম থানায় আসে ঘটনার রিপোর্ট নিতে। পুলিস সূত্রে জানা গিয়েছে, তাদের জিজ্ঞাসাবাদ করে আরও তিন-চার জনের নাম পাওয়া যায়। অপরদিকে এই ঘটনায় চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে মফস্বল শহর পাতিরামে।






All rights reserved © 2021 Calcutta News   Home | About | Career | Contact Us

এই সংক্রান্ত আরও পড়ুন