ব্রেকিং নিউজ
ED-reached-Asansol-Jail-to-interrogate-Jailed-TMC-leader-Anubrata-Mondal
ED: গরু পাচারে এবার ইডির হাতে গ্রেফতার অনুব্রত, তবে কি দিল্লি যাত্রা নিশ্চিত তৃণমূল নেতার?

Post By : সিএন ওয়েবডেস্ক
Posted on :2022-11-17 14:48:29


দু'দফায় প্রায় সাড়ে ৫ ঘণ্টা জেরার পর ইডির হাতে গ্রেফতার অনুব্রত মণ্ডল। দীর্ঘ এই জেরায় কোনও সদুত্তর না পেয়ে তাঁকে শোন অ্যারেস্ট করেছে কেন্দ্রীয় সংস্থা। ইতিমধ্যে গরু পাচার-কাণ্ডে সিবিআইয়ের হাতে গ্রেফতার হয়ে আসানসোল জেলে বন্দি তৃণমূল নেতা। বুধবারই  জেলে (Asansol Jail) গিয়ে তাঁকে নোটিস ধরিয়েছে ইডি (ED)। ২৪ ঘণ্টার মধ্যেই অনুব্রত মণ্ডলকে জেরা করতে জেলেই পৌঁছে গিয়েছিল কেন্দ্রীয় সংস্থা। গরু পাচার-কাণ্ডে (Cow Smuggling case) এই প্রথম তৃণমূল নেতাকে (Anubrata Mondal) জেরা এনফোর্সমেন্ট ডিরেক্টরেটের এবং সেদিনই গ্রেফতার। বৃহস্পতিবার সকাল সাড়ে ১০টা নাগাদ কেন্দ্রীয় সংস্থার একটি দল আসানসোল জেলে পৌঁছয়। তাঁদের সঙ্গে ছিল একটি প্রিন্টার এবং বেশকিছু নথি। এ প্রসঙ্গে উল্লেখ্য বীরভূম (Birbhum) তৃণমূলের সভাপতিকে জেলে গিয়ে জেরা করতে কোর্টের থেকে অনুমতি নিয়েছে কেন্দ্রীয় সংস্থা।

জানা গিয়েছে, গরু পাচার-কাণ্ডে অপরাধের দিকটা খতিয়ে দেখছে সিবিআই। আর ইডি দেখছে বেআইনি আর্থিক লেনদেনের দিক। সূত্রের খবর, হাজার হাজার কোটি টাকার দুর্নীতি এই গরু পাচার-কাণ্ডে। তাঁর বিপুল পরিমাণ সম্পত্তির উৎস, এফডি এমনকি সায়গল হোসেনের, সুকন্যা মণ্ডল এবং মণীশ কোঠারির বয়ানের ভিত্তিতেও তাঁকে জেরা করা হয় এদিন। কিন্তু কোনও সদুত্তর না পাওয়ায় তদন্তে অসহযোগিতার অভিযোগে তাঁকে গ্রেফতার করে ইডি।  পাশাপাশি অনুব্রতর দেহরক্ষী সায়গল হোসেন এই মুহূর্তে তিহার জেলে বন্দি। তাঁকে হেফাজতে নিয়ে দিল্লি গিয়েছিল ইডি। গরু পাচার-কাণ্ডে বেআইনি আর্থিক লেনদেন সংক্রান্ত তাঁর বয়ান ইতিমধ্যে কেন্দ্রীয় সংস্থার হাতে রয়েছে। পাশাপাশি অনুব্রতর মেয়ে সুকন্যা মণ্ডল এবং হিসেব রক্ষক মণীশ তিওয়ারিকে দিল্লিতে ডেকে একাধিকবার জিজ্ঞাসাবাদ করেছে কেন্দ্রীয় সংস্থা।এই দু'জনের বয়ান ইতিমধ্যে হাতে পেয়েছে ইডি। এই বয়ানগুলোর উপর ভিত্তি করে একটা সম্ভাব্য প্রশ্নমালা তৈরি করেই এদিন আসানসোল জেলে পৌঁছে যায় ইডি। গরু পাচার-কাণ্ডে তদন্তে তৃণমূল নেতা ও তাঁর পরিবারের নামে একাধিক সম্পত্তি, চালকলের হদিশ পেয়েছে কেন্দ্রীয় সংস্থা। অনুব্রতর ব্যাঙ্ক নথিও খতিয়ে দেখেছে তাঁরা। এই এতো বিপুল সম্পত্তির উৎস কী, এগুলো কি গরু পাচারের বিনিময়ে প্রোটেকশন মানির অর্থ? 

সম্ভাব্য এই প্রশ্নগুলোর উত্তর খুঁজতে ইডির প্রশ্নবাণের মুখে পড়েছিলেন অনুব্রত মণ্ডলের। কিন্তু তদন্তে সহযোগিতা না করায় তাঁকে গ্রেফতার করে ইডি। তাহলে কি এবার তাঁকে দিল্লি উড়িয়ে নিয়ে যেতে পারে ইডি। সেক্ষেত্রে দিল্লির রাউস অ্যাভেনিউ কোর্টে কিংবা আসানসোল কোর্টেই ফের দরবার করতে পারে ইডি।






All rights reserved © 2021 Calcutta News   Home | About | Career | Contact Us

এই সংক্রান্ত আরও পড়ুন