ব্রেকিং নিউজ
Because-of-extra-marrital-affairs-daily-turmoi-strangle-the-pregnant-wife
Murder: পরকীয়ার জেরে অন্তঃসত্ত্বা স্ত্রীকে খুন!

Post By : সিএন ওয়েবডেস্ক
Posted on :2022-07-27 13:31:59


অন্তঃসত্ত্বা গৃহবধূকে শ্বাসরোধ করে খুন করার অভিযোগ উঠল স্বামীর বিরুদ্ধে। মৃত গৃহবধূর নাম সুখী বিবি (১৯)। ঘটনাটি ঘটেছে মালদহের হরিশ্চন্দ্রপুর থানা এলাকার সিমলা গ্রামে। এই ঘটনায় অভিযুক্ত স্বামীকে ব্যাপক মারধর করেন গ্রামবাসীরা। অভিযুক্ত স্বামীর নাম মোতালেব আলি (২২)। খবর পেয়ে এলাকায় সাত সকালে ছুটে যায় হরিশ্চন্দ্রপুর থানা এলাকার বিশাল পুলিস বাহিনী। উত্তেজিত গ্রামবাসীর হাত থেকে অভিযুক্ত স্বামী মোতালেবকে উদ্ধার করে হরিশ্চন্দ্রপুর থানায় নিয়ে আসে পুলিস। এই ঘটনার সঙ্গে জড়িত সুখী বিবির শ্বশুরবাড়ির বাকিরা পলাতক বলে জানা গিয়েছে। ঘটনার জেরে এলাকায় উত্তেজনা ছড়িয়েছে। উত্তেজনা সামাল দিতে ঘটনাস্থলে পুলিস মোতায়েন করা হয়েছে।

পুলিস ও স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, হরিশ্চন্দ্রপুর থানা এলাকার বাংরুয়া গ্রামের বাসিন্দা সুখী বিবির সঙ্গে গত ছয় মাস আগে পার্শ্ববর্তী গ্রাম সিমলার বাসিন্দা মোতালেবের বিয়ে হয়েছিল। মোতালেবরা চার ভাই, এক বোন। সে ভিন রাজ্যের পরিযায়ী শ্রমিকের কাজ করে। বিয়ের পর থেকেই সুখী এবং মোতালেবের মধ্যে মাঝেমধ্যে অশান্তি লেগে থাকত। মোতালেব ছিল নেশাখোর এবং অন্য নারীতে আসক্ত বলে জানাচ্ছেন স্থানীয় গ্রামবাসীরা। এই নিয়ে স্বামী-স্ত্রীর মধ্যে অশান্তি দীর্ঘদিন ধরে। আর এই অশান্তির জেরেই সুখী বিবিকে মারধর করত মোতালেব। সুখী বিবি তিন মাসের অন্তঃসত্ত্বা ছিলেন বলে জানা গিয়েছে।

সুখির পরিবারের লোকজন জানিয়েছেন, গতকাল রাতেও সুখী ফোন করে তাকে মারধর করা হয়েছিল বলে জানায়। তারপরে বুধবার সকালে জানা যায়, সুখী বিবিকে আজ সকালে মৃত অবস্থায় তার বাড়ির বিছানায় পাওয়া গিয়েছে। সুখীর পরিবারের লোকরা জানিয়েছেন, মেয়ের গায়ে একাধিক আঘাতের চিহ্ন রয়েছে এবং গলায় শ্বাসরোধ করার চিহ্ন রয়েছে। এদিকে সাত সকালে সুখী বিবির মৃত্যুর খবর ছড়িয়ে পড়তেই ক্ষোভে ফেটে পড়েন সিমলা গ্রামের মানুষজন। তাঁরা মোতালেবের বাড়িতে হামলা চালান। মোতালেবকে বাড়ির বাইরে এনে চলে ব্যাপক মারধর। এলাকায় নেশাখোর এবং চরিত্রহীন বলে পরিচিত ছিল মোতালেব। তার স্ত্রীর এই অস্বাভাবিক মৃত্যুর ঘটনায় ক্ষুব্ধ হয়ে ওঠেন গ্রামবাসী। এদিকে ঘটনার খবর পেয়ে এলাকায় ছুটে যায় হরিশ্চন্দ্রপুর থানার বিশাল পুলিস বাহিনী। ক্ষিপ্ত গ্রামবাসীর হাত থেকে অভিযুক্ত মোতালেবকে উদ্ধার করে থানায় নিয়ে যায়। মোতালেবের বাবা, মা সহ বাকি অভিযুক্তরা পলাতক বলে জানিয়েছে পুলিস। ঘটনাস্থল থেকে মৃতদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য মালদা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। এদিকে সুখীর বাড়ির লোকেরা অভিযুক্ত সহ তার বাড়ির লোকের বিরুদ্ধে থানায় অভিযোগ দায়ের করেছেন এবং শাস্তির দাবি জানিয়েছেন।






All rights reserved © 2021 Calcutta News   Home | About | Career | Contact Us

এই সংক্রান্ত আরও পড়ুন