ব্রেকিং নিউজ
All-government-buses-and-ferries-in-the-state-will-have-a-single-smart-card
Transport: রাজ্যে সমস্ত সরকারি বাস ও ফেরিতে আসছে একটিই স্মার্ট কার্ড

Post By : সিএন ওয়েবডেস্ক
Posted on :2022-08-03 19:59:13


এবার সরকারি বাস (Govt Bus) ও ফেরিতে (Ferry) যাতায়াতের ক্ষেত্রে বাংলাজুড়ে এক রাজ্য এক কার্ড চালু করতে চলেছে পরিবহণ দফতর (Transport Department)। বুধবার এই ঘোষণা করলেন পরিবহণ মন্ত্রী ফিরহাদ হাকিম। এদিন একটি অনুষ্ঠানের শেষে সাংবাদিকদের সঙ্গে কথা বলতে গিয়ে পরিবহণমন্ত্রী ফিরহাদ হাকিম জানান, এবার থেকে একটাই স্মার্ট কার্ড (Smart Card) চালু করা হবে, যা সমস্ত পরিবহণ নিগমে ব্যবহার করা যাবে। বাস থেকে শুরু করে ফেরি চলাচলের ক্ষেত্রেও এই স্মার্ট কার্ড ব্যবহার করা হবে বলে তিনি জানান। তার জন্য বিভিন্ন স্ট্যান্ডের গেটে মেট্রো স্টেশনের আদলে গেট তৈরি করা হবে বলেও তিনি জানিয়েছেন।

এদিন ধর্মতলায় এক বেসরকারি হোটেলে আয়োজিত চুক্তি অনুযায়ী ১১৮০ টি ইলেকট্রিক বাস (Electric Bus) চালানোর সিদ্ধান্ত নিয়েছে রাজ্যের পরিবহণ দফতর। এই মর্মে কনভার্জেন্স এনার্জি সার্ভিসেস লিমিটেড বা সিইএসএল-এর (CESL) সঙ্গে চুক্তিবদ্ধ হল রাজ্যের পরিবহণ দফতর। এক সময় যে সিঙ্গুর থেকে টাটা মোটরসকে (Tata Motors) সরে যেতে হয়েছিল, সেই টাটা মোটরস-এর সঙ্গে সবচেয়ে বড় চুক্তি স্বাক্ষর করে তাদের হাতেই ওয়ার্ক অর্ডার বা কাজের বরাত তুলে দিলেন রাজ্যের পরিবহণমন্ত্রী ফিরহাদ হাকিম। অনুষ্ঠানে হাজির ছিলেন পরিবহণ মন্ত্রী ফিরহাদ হাকিম, পরিবহণ সচিব বিনোদ কুমার, সিইএসএল-এর এমডি মহুয়া আচার্য, টাটা মোটরস-এর পক্ষে রোহিত শ্রীবাস্তব, অসীমকুমার মুখোপাধ্যায় সহ বিশিষ্ট ব্যক্তিবর্গ। এই চুক্তি অনুযায়ী, টাটা মোটরস-এর পক্ষ থেকে ২০২২ সালের শেষের দিকে ১১৮০ টি ইলেকট্রিক বাসই তুলে দেওয়া হবে। এছাড়া আগামী বছর মার্চ মাসের মধ্যে ৫০০ ইলেকট্রিক বাস রাস্তায় নামবে বলে আশ্বাস দিয়েছেন মন্ত্রী। এই ১১৮০ টি বাসের মধ্যে ৫০০টি এসি ইলেকট্রিক বাস এবং ৬৮০টি নন এসি বাস থাকবে।

ফিরহাদ হাকিম বলেন, ২০৩০ এর মধ্যে রাজ্যের সমস্ত বাসকে ইলেকট্রিক বাসে রূপান্তরিত করা হবে। তিনি আরও জানান, দূষণমুক্ত শহর গড়ে তুলতে প্রথম কলকাতায়, তারপরে ধাপে ধাপে রাজ্যজুড়ে ইলেকট্রিক বাস চালানো হবে বলে। তিনি এদিন ঘোষণা করেন, কলকাতা সংলগ্ন মোট ১২ টি ঘাটে এবার থেকে ই-ফেরি চালু করা হবে। এছাড়া বাসের মধ্যে দুর্নীতি ঠেকাতে এবং নিরাপত্তার খাতিরে সমস্ত বাসে সিসিটিভি ব্যবহার করা হবে বলে এদিন জানান রাজ্যের পরিবহণ মন্ত্রী ফিরহাদ হাকিম।

ভারতবর্ষে আমরা প্রথম এই চুক্তি করলাম। আমার উপরে প্রচুর চাপ এসেছিল যে বাস ভাড়া বাড়াতে হবে। আমরা অনেক বড় বৈঠক করেছিলাম। যে হারে রোজ পেট্রোল-ডিজেলের দাম বাড়ছে, সেইভাবে ভাড়া বাড়ানো সম্ভব ছিল না। ফলে একটা বিকল্প চিন্তাভাবনা করতে শুরু করি। গেইল-এর এর সঙ্গে চুক্তি করে ৩০০ বাসস্ট্যান্ডে সিএনজি পাম্প করেছি। আরও বাস যাতে বাংলায় পাওয়া যায়, তার জন্য টাটা মোটরস-এর সঙ্গে কথা বলেছি।






All rights reserved © 2021 Calcutta News   Home | About | Career | Contact Us

এই সংক্রান্ত আরও পড়ুন