২৬ ফেব্রুয়ারী, ২০২৪

Shankar Adhya: টানা ১৭ ঘণ্টা তল্লাশি ও জিজ্ঞাসাবাদ পর গ্রেফতার বনগাঁর প্রাক্তন পুরপ্রধান শঙ্কর আঢ্য়
CN Webdesk      শেষ আপডেট: 2024-01-06 10:40:18   Share:   

রেশন বণ্টন দুর্নীতি মামলায় গ্রেফতার বনগাঁর প্রাক্তন পুরপ্রধান শঙ্কর আঢ্য়। জ্যোতিপ্রিয় মল্লিক ঘনিষ্ঠ ওই নেতাকে শুক্রবার রাতে গ্রেফতার করে নিয়ে যাওয়ার সময় ফের কেন্দ্রীয় তদন্তকারী সংস্থার আধিকারিকদের হামলার মুখে পড়তে হয়।  ইডি ও কেন্দ্রীয় বাহিনীকে  লক্ষ্য করে ছোড়া হয় ইট, ভাঙে গাড়ির কাচ। কেন্দ্রীয় বাহিনী লাঠিচার্জ করে বলেও অভিযোগ। সূত্রের খবর,  শনিবার সকালে স্বাস্থ্য পরীক্ষার পর জোকা ইএসআই হাসপাতাল থেকে বের করে শঙ্কর আঢ্যকে নিয়ে যাওয়া হয় ব্য়াঙ্কশাল আদালতে। এদিন স্বাস্থ্য পরীক্ষার জন্য় শঙ্করকে হাসপাতালে নিয়ে আসার সময় তাঁর মেয়ে ঋতুপর্ণা আঢ্যও সেখানে উপস্থিত ছিলেন।  

শুক্রবার টানা ১৭ ঘণ্টা তল্লাশি ও জিজ্ঞাসাবাদ পর রাত সাড়ে ১২ টা নাগাদ ইডি হতে গ্রেফতার উত্তর ২৪ পরগনার বনগাঁর প্রাক্তন পুরো প্রধান শঙ্কর আঢ্য়। সূত্রের খবর, তার শ্বশুরবাড়ি থেকে সাড়ে ৮ লক্ষ টাকা উদ্ধার হয়েছে। তল্লাশির সময় শঙ্করের বাড়ি থেকে লেনদেন সংক্রান্ত যে সমস্ত নথি উদ্ধার হয়েছে তা সন্দেহজনক। এমনটাই ইডি সূত্রে খবর। শুক্রবার রাতেই বনগাঁ থেকে শঙ্করকে নিয়ে কলকাতার উদ্দেশ্য়ে রওনা দেন ইডির আধিকারিকেরা। এরপর রাত ২:৩০ টে নাগাদ সিজিও কমপ্লেক্সে ঢোকানো হয় শঙ্কর আঢ্যকে। শনিবার শঙ্করকে আদালতে হাজির করিয়ে তাঁকে নিজেদের হেফাজতে নেওয়ার আবেদন জানাতে পারে কেন্দ্রীয় সংস্থা। এমনটাই ইডি সূত্রে জানা গিয়েছে। 

সূত্রের খবর, শঙ্করের নামে রয়েছে একাধিক সংস্থা। সেগুলিই এবার চলে এসেছে ইডি-র নজরে। শঙ্কর এবং তাঁর পরিবার একাধিক বিদেশি মুদ্রা বিনিময় ব্যবসার সঙ্গে যুক্ত বলেও খবর রয়েছে ইডি-র কাছে। অর্থলগ্নি সংস্থা রয়েছ বলেও সূত্রের খবর। শঙ্করের স্ত্রী, ছেলে এবং একাধিক আত্মীয় এই সংস্থাগুলির ডিরেক্টর পদে রয়েছেন বলেও জানা যায়। বিদেশি মুদ্রা বিনিময় ব্যবসার আড়ালে কি কোনও আর্থিক বেনিয়ম ঘটেছে? সেই খোঁজই চালাচ্ছে ইডি। তবে এই আর্থিক দুর্নীতির সঙ্গে রেশন বা শিক্ষা দুর্নীতির যোগ আছে কি না, তা এখনও স্পষ্ট নয়।



Follow us on :