ব্রেকিং নিউজ
83-days-of-continuous-walking-at-an-altitude-of-18-thousand-feet-in-Ladakh
Environment: ৮৩ দিন লাগাতার হেঁটে লাদাখের ১৮ হাজার ফুট উচ্চতায়!

Post By : সিএন ওয়েবডেস্ক
Posted on :2022-05-22 21:18:37


'গাছ লাগান, পরিবেশ বাঁচান।' এই শপথ নিয়ে পায়ে হেঁটে লাদাখ গিয়েছিলেন সিঙ্গুরের বাজেমেলিয়া গ্রামের যুবক মিলন মাঝি। তাঁরই সাফল্যের সুবাদে ইতিহাসের পাতা সরিয়ে আবার একবার জ্বলজ্বল করছে সিঙ্গুরের নাম। 

গত ২২ শে ফেব্রুয়ারি হাওড়া ব্রিজ থেকে পায়ে হেঁটে ৮৩ দিনের মাথায় ১৫ মে  লাদাখের খারদুংলা পাস পৌঁছেছিলেন তিনি। কাশ্মীরের লাদাখ অঞ্চলে ১৮ হাজার ৩৮০ ফুট উচ্চতায় অবস্থিত এই খারদুংলা পাসটি পৃথিবীর উচ্চতম মোটরগাড়ি চলাচলযোগ্য পাস বলে পরিচিত। প্রায় আড়াই হাজার কিলোমিটার পথ অতিক্রম করে সেখানে উঠে মিলন ভারতের জাতীয় পতাকা লাগিয়ে দেন।

রবিবার গ্রামের ছেলে বাড়িতে ফিরতেই গ্রামবাসীরা মিলনকে নিয়ে ব্যান্ড বাজিয়ে বর্ণাঢ্য শোভাযাত্রা করে কামারকুন্ডু স্টেশন থেকে বাড়িতে নিয়ে আসেন। হরিপালের বিধায়ক করবী মান্না মিলনের সাথে পায়ে হেঁটে আসেন তাঁর বাড়িতে। পুষ্পস্তবক দিয়ে সংবর্ধনা দেন বিধায়ক। গ্রামে মিলন ফিরে আসায় এদিন গ্রামবাসীরা দু হাত তুলে আশীর্বাদ করেন তাঁকে। রাস্তায় চলতে চলতে মিলন বয়স্কদের পায়ে হাত দিয়ে প্রণাম করেন।

মিলন বলেন, প্রকৃতি তাঁর কাছে খুব প্রিয়। ছোটবেলা থেকে ইচ্ছা, পাহাড়ে পাহাড়ে ঘুরে বেড়ানো। কলকাতার অনেক প্রকৃতিপ্রেমী আছে, যারা সাইকেলে, মোটরবাইকে বিভিন্ন জায়গায় ঘুরে বেড়ায়। তাদের দেখে উৎসাহিত হয়ে বাইক ছাড়াই পায়ে হেঁটে বাড়ি থেকে বেরিয়ে পড়েন মিলন। দেশে সবুজ ফিরিয়ে আনার বার্তা নিয়ে তাঁর এই উদ্যোগ। বার্তা একটাই, পরিবেশকে বাঁচাতে গাছ লাগানো ছাড়া আর কোনও বিকল্প নেই। 

হরিপালের বিধায়ক করবী মান্না বলেন, ও যে স্বপ্ন সার্থক করতে পেরেছে, এটা আমাদের সিঙ্গুরের গর্ব।






All rights reserved © 2021 Calcutta News   Home | About | Career | Contact Us

এই সংক্রান্ত আরও পড়ুন