১৫ জুন, ২০২৪

Katwa: সুদ-আসল না মেটানোয় বাড়ি গিয়ে 'তাণ্ডব' সুদ কারবারীদের, শিক্ষকের অভিযোগে ধৃত ৪
CN Webdesk      শেষ আপডেট: 2022-11-14 14:07:30   Share:   

কিছুদিন ধরেই কাটোয়ার (Katwa) বিভিন্ন এলাকায় চড়া সুদে (High interest) টাকা ধার দেওয়া হচ্ছে এই অভিযোগ উঠে আসে। এবার সেই একই অভিযোগ করেন কাটোয়ায় এক শিক্ষক (teacher)। তাঁর অভিযোগের ভিত্তিতে তদন্তে নেমে কাটোয়া থানার পুলিস (police) গ্রেফতার করে চার সুদ কারবারীকে। তাঁদের বিরুদ্ধে অভিযোগ, চড়া সুদের টাকা ধার দিয়ে কখনও বাড়ি গিয়ে অশ্লীল ভাষায় গালি, কখনও মারধর, আবার কখনও খুনের হুমকি (Threat)। ভয়ে শিক্ষক থানায় দ্বারস্থ হলে তদন্তে নামে কাটোয়া থানার পুলিস। ধৃতদের সোমবারই তোলা হবে কাটোয়া মহকুমা আদালতে।

জানা যায়, কাটোয়ার এক শিক্ষক তাঁর বাবার চিকিৎসার জন্য বছর দেড়েক আগে চড়া সুদে ৫ লক্ষ টাকা ঋণ নিয়েছিলেন। এরপর থেকেই সেই ঋণের অঙ্ক ক্রমশ চক্রবৃদ্ধি হারে বাড়তে থাকে। প্রতি সপ্তাহে তাঁকে সুদ মেটাতে হত। দীর্ঘ দেড় বছর ধরে ৫ লক্ষ টাকার অধিক প্রায় ১০ লক্ষ টাকা সুদ মেটালেও এখনও আসল টাকা না মেটানোয় সুদে-আসলে সেটা হয়ে গিয়েছে প্রায় ১৫ লক্ষ টাকা।

এরপরই ওই শিক্ষকের বাড়িতে গত শনিবার রাতে চড়াও হয় সেই সুদের কারবারীরা। তাঁকে এবং তাঁর স্ত্রীকে অশ্লীল ভাষায় গালিগালাজ করে এবং খুনেরও হুমকি দেয় বলে অভিযোগ। এরপর রবিবার দুপুরে ওই শিক্ষক ও তাঁর স্ত্রী কাটোয়া থানায় অভিযোগ দায়ের করেন। সেই অভিযোগের ভিত্তিতে রবিবার বিকেলে চারজনকে গ্রেফতার (arrest) করে পুলিস।

প্রসঙ্গত, কেতুগ্রামে গত কয়েকদিন আগে চড়া সুদের ধার নিয়ে এক ব্যক্তি আত্মহত্যা (suicide) করতে যান। রেললাইনের ধার থেকে উদ্ধার করা হয় তাঁকে। অভিযোগ ওঠে, রেললাইনে সুদ কারবারিরা বেঁধে রেখেছিলেন ওই ব্যক্তিকে। কোনওরকমে বাঁচতে গিয়ে তাঁর একটি পা বাদ হয়ে যায়। যদিও কাটোয়া এসডিপিও কৌশিক বসাক জানান, ওই ঘটনার সঙ্গে এই ঘটনার কোনও যোগ নেই। মানুষকে সচেতন হতে হবে এবং এভাবে যদি কেউ সুদ নিয়ে থাকেন, তাহলে থানার দ্বারস্থ হন। থানা সাহায্য করবে।


Follow us on :