ব্রেকিং নিউজ
  Weather update: আজ থেকে টানা তিনদিন ভারী বৃষ্টির সম্ভাবনা কলকাতা সহ পার্শ্ববর্তী এলাকায়     Baguiati: অর্জুনপুরে দুষ্কৃতীদের তাণ্ডব, তৃণমূল যুব সভাপতিকে প্রাণে মারার হুমকি     Rabindra Sarobar: রোয়িং করতে গিয়ে দুই ছাত্রের মৃত্যুর পর বন্ধ ক্লাব, উঠছে নানা প্রশ্ন     Taliban Order: মুখ ঢেকে খবর পড়ার নির্দেশকে তোয়াক্কা না করেই সংবাদ পড়ছেন আফগানি মহিলারা     Uttar Pradesh: উত্তরপ্রদেশে ভোট মিটতেই কি বাতিল হতে চলেছে শয়ে শয়ে রেশন কার্ড?     Arjun Singh: 'সেখানে নৌকা নিয়ে যাই চলো, যেখানে তুফান এসেছে', অর্জুনের নয়া ট্যুইটে জল্পনা     Corona Update: ঊর্ধ্বমুখী মৃত্যুগ্রাফ, কিছুটা নিম্নমুখী সংক্রমণ     Monkeypox: ছড়াচ্ছে মাঙ্কি পক্স, আক্রান্তের সংখ্যা বাড়বে, সতর্ক করল 'হু'     Climate: উষ্ণায়নে পাল্টাচ্ছে সমুদ্রের প্রকৃতি, সঙ্কটে সামুদ্রিক প্রাণীদের অস্তিত্ব  
school-students-are-losing-their-childhood-due-to-corona-pandemic
School: করোনা আবহের পর মহাসংকটে খুদে পড়ুয়ারা


Post By : সিএন ওয়েবডেস্ক
Posted on :2022-04-21 15:41:22


সরকারি স্কুলের বিষয় আলাদা। কারণ সেখানে পড়াশুনা কেমন হচ্ছে, তার খবর খুব একটা প্রকাশ্যে আসে না। আজকের মধ্যবিত্ত থেকে উচ্চবিত্ত পরিবারের শিশুরা ইংরেজি মাধ্যম এবং ক্ষেত্রবিশেষে কনভেন্ট স্কুলে পড়ে। অর্থাৎ বেসরকারি স্কুল। দীর্ঘ দু বছরেরও বেশি স্কুল বন্ধ ছিল। পরে অবশ্য ভার্চুয়াল ক্লাস অর্থাৎ নেট মাধ্যমে ক্লাস হত। যদিও সেসব ফুলটাইম ক্লাস নয়। নেট মাধমের ক্লাসে শিক্ষক বা শিক্ষিকা আলাদা করে কী করে বুঝবেন যে, পড়ুয়ারা কী অবস্থায় আছে বা কতটুকু শিক্ষা গ্রহণ করতে পারছে। একদমই যে সব শিশু কোনও দিনও স্কুলে যায়নি, তাদের সমস্যা সবথেকে বেশি। স্কুলের পঠনপাঠন নিয়ে তাদের কোনও ধারণাই নেই। এই নিয়ে কতটুকু উপলব্ধি হয়েছে শিক্ষক বা শিক্ষিকার? ব্রিটিশ আমলে মন্টেসরি ট্রেনিং দেওয়া হত, যা কিনা স্বাধীনতার পরেও দীর্ঘদিন ছিল। কিন্তু আজকাল স্কুল বা কলেজ শিক্ষার জন্য রয়েছে বিএড। বিএডে কি আদৌ শিশুমনের পঠনপাঠনের ক্লাস হয়?

ইদানিং সমস্ত স্কুল খুলে গিয়েছে। কাজেই ক্লাসও শুরু হয়েছে। যারা আগে স্কুল করেছে, তারা দীর্ঘদিন স্কুলে না যাওয়ার ফলে স্কুল সংস্কৃতি ধরতে পারছে না। এছাড়া দীর্ঘক্ষণ ক্লাস করার অভ্যাসটিও নষ্ট হয়ে গিয়েছে। পাশাপাশি একেবারে ছোট্ট শিশুরা যারা প্রথম স্কুলে যাচ্ছে, তারা ধরতেই পারছে না পঠনপাঠন। অবিভাবকদের সমস্যা সবচেয়ে বেশি। তারা না পারছে শিক্ষক বা শিক্ষিকাকে বোঝতে, না প্রতিবাদ করছে। কারণ আখেরে তাদের সন্তানদের উপর ক্রোধের খাঁড়া নেমে আসতে পারে। এরই মধ্যে একদিন দমদমের নেট খারাপ ছিল। কাজেই ভার্চুয়াল পরীক্ষা দিতে সংকটে পড়ে খুদেরা। কিন্তু সে সমস্ত শুনতে নারাজ স্কুল কর্তৃপক্ষ। এবার শিক্ষা দফতর কী করবে?






All rights reserved © 2021 Calcutta News   Home | About | Career | Contact Us

এই সংক্রান্ত আরও পড়ুন