ব্রেকিং নিউজ
  পুজোর আগেই ফের দুইবঙ্গে বৃষ্টির পূর্বাভাস     নন্দীগ্রামে একটি বাড়ি থেকে উদ্ধার লক্ষাধিক টাকা, চাঞ্চল্য     শিলিগুড়ি মহাকুমার ফুলবাড়ী ঘোষপুকুর বাইপাস রাস্তায় টেলার ও ট্রাকের সংঘর্ষে ভয়াবহ দুর্ঘটনা, আশঙ্কাজনক অবস্থায় ৩     ক্যানিং-এ বাইক দুর্ঘটনায় মৃত্যু এক বৃদ্ধের, আটক বাইক চালক  
nation-is-observing-vice-president-election-where-nda-candidate-sees-win-before-counting-
Rajya Sabha: উপরাষ্ট্রপতি ভোটে ক্রশ ভোটিং অবশ্যম্ভাবী? ধনকরের জয় নাকি শুধু সময়ের অপেক্ষা

Post By : সিএন ওয়েবডেস্ক
Posted on :2022-08-06 13:26:25


প্রসূন গুপ্ত: ভারতের পরবর্তী উপরাষ্ট্রপতি নির্বাচনের ভোট প্রক্রিয়া চলেছে। রাষ্ট্রপতি নির্বাচনের থেকে এই নির্বাচন কিছুটা আলাদা। এই নির্বাচনে শুধুমাত্র আইনসভা অর্থাৎ সংসদ সদস্যরা অংশগ্রহণ করতে পারবেন। রাজ্য বিধানসভার কোনও ভূমিকা নেই।  রাষ্ট্রপতি দেশের সংবিধানের প্রধান, সংবিধানসম্মত সিদ্ধান্ত তাঁকে নিতে হয়। পার্লামেন্টে পাশ যে কোনও বিলকে আইনে রূপান্তর করতে রাষ্ট্রপতির স্বাক্ষর আবশ্যিক। ব্রিটেনের মতোই এদেশে প্রধানমন্ত্রীর ক্যাবিনেটের কোনও কাজে সাধারণত রাষ্ট্রপতি হস্তক্ষেপ করেন না। বাজেট অধিবেশনের সূচনা এবং বিভিন্ন রাষ্ট্রীয় পুরস্কার প্রদান ছাড়া রাষ্ট্রপতির কোনও ভূমিকা সেভাবে থাকে না। তবে দেশের তিন সামরিক বাহিনীর চিফ কমান্ডার অবশ্যই রাষ্ট্রপতি। এই ট্র্যাডিশনই গত সাতের বেশি দশক ধরে চলছে।

তবে উপরাষ্ট্রপতির বিশেষ কাজ রয়েছে। তিনি রাজ্যসভা পরিচালনা করেন সংসদের উচ্চকক্ষের চেয়ারম্যান হিসেবে। ড. সর্বপল্লী রাধাকৃষ্ণান থেকে হামিদ আনসারি এবং মোদী সরকারের আমলে ভেঙ্কাইয়া নাইডুর মতো রাজনৈতিক অথবা দেশের শিক্ষিত মহলের ব্যক্তিরাই উপরাষ্ট্রপতির আসন সমৃদ্ধ করেছেন। এক সময়ে রাজ্যসভা মানে অরাজনৈতিক ব্যক্তিত্ব।

অনেকেই ভেবেছিলেন বাজপেয়ীর আমলের মন্ত্রী ভেঙ্কাইয়া নাইডু হয়তো ফের উপরাষ্ট্রপতি হতে পারেন। কিন্তু এক সময়ের কট্টর আরএসএস করা নাইডুকে আর ফেরাতে চাননি মোদী সরকার। তাঁকে মোটামুটি বিশ্রামে পাঠিয়ে দেওয়া হলো আদবানি, মুরলি মনোহর জোশির মতো। পার্লামেন্টের দুই কক্ষ মিলিয়ে এখন সদস্য সংখ্যা ৭৮৮। তার মধ্যে লোকসভাতে বিপুল সংখ্যাগরিষ্ঠতা আছে বিজেপি তথা এনডিএর। রাজ্যসভায় এনডিএ জোট সংখ্যাগরিষ্ঠ না হলেও বিজেপি ভোট ম্যানেজ করে নিয়েছে। এমনটাই অনুমান রাজনৈতিক বিশ্লেষকদের। অর্থাৎ গোপন ব্যালটে ভোটদানের ক্ষেত্রে এবারেও ক্রস ভোটিংয়ের সম্ভাবনা প্রবল।

এরই মধ্যে তৃণমূল যদি কোনও দিকেই ভোট না দেয় তবে তো আরও ভোটের ফারাক বাড়বে ধনকর ও মার্গারেট আলভার | কিন্তু প্রশ্ন এসেছে এতো দলের কাজের লোক থাকতে মোদী-অমিত শাহরা জগদীপ ধনকরের মতো মানুষকে বাছলেন কেন?

ধানকর আদতে জাঠ সম্প্রদায়ের এবং কৃষক পরিবারের মানুষ। কাজেই উত্তর ভারতের কৃষকদের মন পেতেই নাকি এই পরিকল্পনা। আদতে সেটাই কি আসল যুক্তি? গুঞ্জন আছে, ধনকরের মতো একগুঁয়ে মানুষ যিনি চরম বিরোধিতা করেছেন মমতা সরকারের, তাঁকেই দরকার রাজ্যসভায় বিরোধীদের চাপে রাখতে। এবারে দেখা যাক ধনকরের দ্বিতীয় ইনিংস কতটা সফল হয়।






All rights reserved © 2021 Calcutta News   Home | About | Career | Contact Us

এই সংক্রান্ত আরও পড়ুন