ব্রেকিং নিউজ
  (15:40 PM)-ফের আগামি কাল গোয়া সফর করবেন অভিষেক বন্দোপাধ্যায়     (15:37 PM)-রাজ্য সরকারের সামাজিক প্রকল্পের জন্য ১০০০ কোটি টাকা ঋণ অনুমোদন করল বিশ্ব ব্যাঙ্ক     (14:19 PM)-কালিম্পং জেলার সামসিং ফাঁড়ির মণ্ডলগাও এবং খাসমহল গ্রামে ভল্লুকের আতঙ্ক      (14:17 PM)- বাঁকুড়ার গঙ্গাজলঘাটিতে হাতির দলের তাণ্ডব। জখম ও মৃত একাধিক গবাদিপশু      (14:15 PM)-বাসন্তীতে উদ্ধার চারটি বেআইনি আগ্নেয়াস্ত্র। ধৃত এক। এলাকায় চাঞ্চল্য      (14:14 PM)-অবৈধ গ্যাস সিলিন্ডার রাখার অভিযোগে মঙ্গলকোটে গ্রেপ্তার এক ব্যক্তি     (14:13 PM)-ডোমজুড়ে পাওয়ার হাউসে অগ্নিকাণ্ড। একটি স্পঞ্জ কারখানায় আগুন     (14:12 PM)-বোমা বিস্ফোরণে জখম তিন শিশু। বহরমপুরের টিকটিকিপাড়া এলাকার ঘটনা     (10:42 AM)-মুম্বাইয়ের বহুতলে সকাল ৭টা নাগাদ আগুন, মৃত ২, হাসপাতালে ভর্তি ১৫     (10:40 AM)-৫ বি তিলজলা রোডে এক প্রৌঢ়ের ঝুলন্ত দেহ উদ্ধার, প্রাথমিক ধারণা আত্মহত্য়া     (10:03 AM)-প্রয়াত প্রাক্তন ফুটবলার তথা কোচ সুভাষ ভৌমিক     (08:15 AM)-২৪ ঘণ্টায় দেশে আক্রান্তের সংখ্যা ৯৪,৭৭৪, সুস্থ ২,৫১,৭৭৭      (08:07 AM)-করোনায় মৃত ৩৫, সংক্রমণের হার কমে ১২.৫৮ শতাংশ      (08:06 AM)-গত ২৪ ঘণ্টায় রাজ্যে মোট করোনা আক্রান্ত ৯,১৫৪     (07:59 AM)-২২ থেকে ২৪ জানুয়ারি হালকা থেকে মাঝারি বৃষ্টির সম্ভাবনা     (07:58 AM)-পশ্চিমী ঝঞ্ঝার জেরে রাজ্য জুড়েই বৃষ্টির সম্ভাবনা  
fresh-ghee-health
ghee: টাটকা ঘি খান


Post By : সিএন ওয়েবডেস্ক
Posted on :2022-01-05 17:30:04


শোনা যায় পুরাণের যুগে নাকি মূল রান্না হতো ঘি দিয়ে। অর্থাৎ রামায়ণ মহাভারতের পর্বে মাছ মাংস খাওয়া হতো কিনা বিবরণ নেই কিন্তু পোলাউ সবজি ইত্যাদি রান্না হতো ঘি দিয়ে। রাজবাড়িতে রান্না হতো ঘি দিয়ে। অবশ্য বলা হতো ঘি তেল দিয়ে সমধুর রন্ধনে পটু ছিলেন দ্রৌপদী। দ্রৌপদীর রান্নার প্রশংসা মহাভারতের পরতে পরতে রয়েছে।

তবে ইতিহাসের পাতায় ঘিয়ের রান্নার বিবরণ পাওযা যায়। আমাদের ইতিহাসে চৈতন্যদেব বৈষ্ণব ধর্মের প্রবতক ছিলেন। বৈষ্ণব ধর্মের মানুষ নিরামিষাশী ছিল। কিন্তু ওই ইতিহাসে আমরা দেখেছি শরীরের প্রতিরোধ ক্ষমতা বজায় রাখতে তারা দুধ ঘি খেতেন। উত্তরভারত থেকে দক্ষিণ ভারতের বহু মানুষ নিরামিষাশী। আজও তারা মাছ মাংসের বিকল্প হিসাবে দুধ ঘি খেয়ে থাকে। মুঘল সাম্রাজ্যে বা তার আগে ইসলামিক ভারতে ঘিয়ের প্রচলন ছিল। সুলতানদের পোলাউ বা বিরিয়ানি মানেই প্রচুর টাটকা ঘি খেতেন তারা। সুলতানরা ভাজাভুজিও খেতেন ঘি ব্যবহার করে।  

আজকাল পেটের রোগীরা বা উচ্চ রক্তচাপ যুক্ত মানুষেরা ঘি খেতে ভয় পায় কিন্তু ডাক্তারবাবুরা বলেন ঘি যদি বিশুদ্ধ হয় এবং টাটকা থাকে তবে পেটের রোগ হওয়ার যৌক্তিকতা নেই। একসময়ে পক্স হলে তাকে নিয়মিত ভাবে ঘিয়ের রান্না খাওয়ানো হতো। বড় কোনও রোগমুক্তি হওয়ার পর বেশ করে ঘি দুধ খাওয়ার পথ্য দিতেন ডাক্তাররা।  

আজকাল কি কেউ আর ঘিয়ের লুচি, রাধাবল্লভী কিংবা কচুরি খেয়েছেন কি? কলকাতার বিখ্যাত মিষ্টির দোকানগুলিতে আজও শুধু ঘিয়ের খাওয়ার পাওয়া যায়। এই ঘি দিয়ে রসগোল্লা সন্দেশ ছাড়া সমস্ত মিষ্টি ঘি দিয়ে বানানো হতো। ঠাকুর রামকৃষ্ণ কলকাতায় থিয়েটার দেখতে গেলে গিরিশ ঘোষ তাঁকে বিশুদ্ধ ঘিয়ের লুচি আলুরদম খাওয়াতেন। এখনও বাঙালির প্রিয় বিরিয়ানি খেতে গেলে ঘি লাগেই প্রচুর। 

করোনা আবহ চলেছে। শরীরের ইমিউনিটি বাড়াতে গেলে অবশ্যই বিশুদ্ধ ঘি খেতেই পারেন ডাক্তারের নির্দেশ নিয়ে। আজও বাজারে বিশুদ্ধ ঘি পাওয়া যায় কেবল খুঁজতে হবে নাকি হাতের কাছে পাওয়া যাবে ? 




All rights reserved © 2021 Calcutta News   Home | About | Career | Contact Us