ভরদুপুরে মহাকরণে চলল গুলি, মৃত কনস্টেবল

0
388

ভরদুপুরে মহাকরণে চলল গুলি। চেয়ারে বসা অবস্থাতেই নিজের সার্ভিস বন্দুক থেকে গুলি ছিটকে মারা গেলেন এক পুলিশকর্মী। তবে তিনি নিজেই গুলি চালিয়ে আত্মঘাতী হয়েছেন নাকি অসাবধানবশত গুলি ছিটকে তাঁর মৃত্যু হয়েছে, সেটা নিয়ে ধোঁয়াশা তৈরি হয়েছে। কলকাতা পুলিশ সূত্রে খবর, মৃত পুলিশকর্মীর নাম বিশ্বজিৎ কারক (৩৩)। তাঁর বাড়ি মেদিনীপুরে, তবে বর্তমানে তিনি লেকটাউনে ভাড়া থাকতেন। কলকাতা পুলিশের পঞ্চম ব্যাটালিয়নে কর্মরত ছিলেন ওই পুলিশকর্মী। এদিন মহাকরণ তথা রাইটার্স বিল্ডিংয়ে ৬ নম্বর গেটের প্রেস কর্নারের সামনে ডিউটি করছিলেন বিশ্বজিৎ। শুক্রবার দুপুর ৩টে ৩৫ মিনিট নাগাদ সেখানে আচমকাই গুলির শব্দ শুনতে পান কর্তব্যরত পুলিশকর্মী ও সরকারি কর্মচারীরা। ছুটে এসে তাঁরা দেখেন, রক্তাক্ত অবস্থায় চেয়ারেই বসে রয়েছেন ওই কনস্টেবল। গুলির আঘাতে চোয়ালের একাংশ ক্ষতবিক্ষত হয়ে গিয়েছে।

গুলিও মাথা ভেদ করে দেওয়ালে গিয়ে লাগে। সঙ্গে সঙ্গেই তাঁকে মেডিকেল কলেজে নিয়ে যাওয়া হয়। সেখানেই তাঁরে মৃত বলে ঘোষণা করেন কর্তব্যরত চিকিৎসকরা। খবর পেয়েই ঘটনাস্থলে চলে আসেন কলকাতা পুলিশের শীর্ষ আধিকারিকরা। কীভাবে এই গুলি চলল, তা জানতে সেখানে থাকা সিসিটিভি ক্যামেরার ফুটেজ খতিয়ে দেখা হচ্ছে। তিনি আত্মঘাতী হয়েছেন, নাকি অসাবধানে রাইফেল থেকে গুলি ছিটকে গিয়েছে, তাও খতিয়ে দেখা হচ্ছে। বিশ্বজিতের সহকর্মীদের দাবি, কয়েকদিন ধরেই মানসিক অবসাদে ভুগছিল সে। সেই কারণেই আত্মহত্যা করেছেন কিনা সেটাও দেখা হচ্ছে। আপাতত মহাকরণের ওই এলাকা ঘিরে রেখেছে পুলিশ।