ব্রেকিং নিউজ
mukul-ray-is-in-still-bjp
Mukul Ray: বিজেপিতে মুকুল রায়, থাকছেন বিধায়কও, বিধানসভায় জানালেন অধ্যক্ষ

Post By : সিএন ওয়েবডেস্ক
Posted on :2022-02-11 18:11:27


দলত্যাগ বিরোধী আইনে মুকুল রায়ের (Mukul Ray) বিধায়ক পদ খারিজের আবেদন খারিজ করলেন অধ্যক্ষ বিমান বন্দ্যোপাধ্যায় (Speaker Biman Banerjee)। শুক্রবার  বিধানসভার অধ্যক্ষ জানান, মুকুল রায় বিজেপিতেই (BJP) আছেন। তাই তাঁর বিরুদ্ধে আনা বিধায়ক পদ খারিজের আবেদন খারিজ করা হল। তিনি বলেন, 'যে দাবি করা হয়েছিল, তার বিরুদ্ধে যথেষ্ট প্রমাণ ছিল না। তাই কৃষ্ণনগর উত্তরের বিধায়ক পদ খারিজের আবেদন খারিজ করা হল। মুকুল রায় বিজেপিতেই আছেন আর তিনি বিধায়ক থাকছেন।'

এ প্রসঙ্গে উল্লেখ্য, একই আবেদন করে সুপ্রিম কোর্টে মামলা ঠুকেছেন রাজ্যের বিরোধী দলনেতা শুভেন্দু অধিকারী। সেই আবেদন গ্রহণ করে শীর্ষ আদালত বিষয়টি নিষ্পত্তির জন্য বিধানসভার অধ্যক্ষর হাতেই দায়িত্ব ছেড়েছিল। সুপ্রিম কোর্টের পর্যবেক্ষণ ছিল, ফেব্রুয়ারির দ্বিতীয় সপ্তাহের মধ্যে এই সমস্যার সমাধান হয়ে যাবে। ইতিমধ্যে বিধানসভায় শুভেন্দু অধিকারীর আবেদনের উপর শুনানি চলাকালীন মুকুল রায়ের আইনজীবী দাবি করেছেন, তাঁর মক্কেল বিজেপিতেই আছেন।

সেই দাবি এবং শীর্ষ আদালতের আবেদন মেনে এদিন রায় দিলেন অধ্যক্ষ। তবে এই রায়ে অখুশি রাজ্যের বিরোধী দলনেতা শুভেন্দু অধিকারী। তাঁর মন্তব্য, 'আশা করি আদালতে ন্যায়-বিচার পাব।' যদিও অধ্যক্ষর এই রায়ের পর ট্যুইট করেছেন তৃণমূল মুখপাত্র কুণাল ঘোষ। কৃষ্ণনগর উত্তরের বিধায়ককে আক্রমণ করে কুণাল লেখেন, 'সারদা, নারদা-কাণ্ডে মুকুল রায় অন্যতম প্রভাবশালী ব্যক্তি। আমি এটা বরাবর বলে এসেছি। সিবিআই এবং ইডি অবিলম্বে মুকুল রায়কে গ্রেফতার করুক। নিজেকে বাঁচাতে ভিন্ন রাজনৈতিক দলের সঙ্গে নিজেকে যুক্ত করেছেন মুকুল রায়।'

দেখুন কুণালের সেই ট্যুইট:

একুশের ভোটে ২ মে ফল ঘোষণার পর থেকেই উলটো স্রোত বয়েছে বঙ্গ রাজনীতিতে। ভোটের আগে তৃণমূল ছেড়ে বিজেপিতে যাওয়া একাধিক পরিচিত মুখ ফের তৃণমূলে ফিরেছে বা ফিরছে। সেই স্রোতের একদম প্রথম দিকে ছিলেন কৃষ্ণনগর উত্তরের বিধায়ক মুকুল রায়। জুন মাসে তিনি ফিরে আসেন তাঁর পুরনো দল তৃণমূল কংগ্রেসে। যদিও তারপর থেকে রাজনীতির ময়দানে নিষ্ক্রিয় মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের একদা সেকেন্ড ইন কমান্ড।






All rights reserved © 2021 Calcutta News   Home | About | Career | Contact Us

এই সংক্রান্ত আরও পড়ুন