ব্রেকিং নিউজ
congress-fears-horse-trading-in-upcoming-rajya-sabha-polls-from-rajasthan-maharashtra
Rajya Sabha: বিজেপির নজরে রাজ্যসভার সংখ্যাগরিষ্ঠতা, ঘোড়া কেনাবেচার আশঙ্কা রাজস্থানে

Post By : সিএন ওয়েবডেস্ক
Posted on :2022-06-03 14:58:52


পরের লোকসভার ভোটের আগেই নরেন্দ্র মোদী এবং বিজেপি চাইছে রাজ্যসভায় শক্তি বৃদ্ধি করতে। রাজ্যসভা আইনসভার উচ্চকক্ষ, মর্যাদা অনেক বেশি। এখানকার সাংসদরা জনতার ভোট পেয়ে নির্বাচিত হন না। তাঁদের নির্বাচিত করে বিভিন্ন রাজ্যের বিধায়করা। রাজ্যসভায় মোট ২৪৫টি আসন তাঁর মধ্যে নির্বাচিত ২৩৩ জন এবং রাষ্ট্রপতি নির্বাচিত ১২ জন। শেষের ১২ জন রাজ্যসভার যে কোনও আলোচনায় অংশগ্রহণ করতে পারেন কিন্তু আইনের বিল পাশের ক্ষেত্রে তাঁদের ভূমিকা থাকে গৌণ।

ফলে যা কিছু ভোটাভুটি ওই ২৩৩ জনের মধ্যে সীমাবদ্ধ রাখতে হয়। এই মুহূর্তে রাজ্যসভায় বিজেপির শক্তি ৯৭ অর্থাৎ সংখ্যাগরিষ্ঠতা থেকে ২৩ জন কম। অবশ্য মোদী সরকার সহযোগী দল বা বন্ধু দলকে ম্যানেজ করে বহু ক্ষেত্রেই বিল পাশ করিয়ে নিয়েছে। এই সংখ্যালঘু সমস্যা রাজীব গান্ধীর আমলে ছিল না। এরপর থেকে যারাই ক্ষমতাতে এসেছে তাঁদের অন্যের উপর নির্ভর করেই বিল পাশ করতে হয়েছে।

এবার মোদী সরকার মরিয়া নিজেদের আসন বৃদ্ধি করতে। যদিও বেশ কঠিন বিষয় তবু আসন্ন ১০ জুন ১৫টি রজ্যের ৫৭ আসনে ভোট। বিজেপি শক্তিবৃদ্ধি করতে ফের কংগ্রেসের বিধায়কদের গেরুয়া শিবিরে আনার চেষ্টা চালাচ্ছে বলে সংবাদ। বিজেপির ম্যানেজাররা রাজস্থান, হরিয়ানা এবং মহারাষ্ট্রকে টার্গেট করেছে।

এমনিতেই কংগ্রেসের অন্দরের কলহ তুঙ্গে। সাম্প্রতিক কংগ্রেসের বিশেষ সভায় কোনও ভাবে দলের কোন্দল ধামাচাপা দিয়েছেন সভানেত্রী সোনিয়া গান্ধী। এসত্বেও আগামী রাজ্যসভা নির্বাচনে, কে কাকে ভোট দেবে তা নিয়ে সন্দিহান কংগ্রেসের হাইকমান্ড। বিজেপি দল ভাঙানোর চেষ্টা করছে রাজস্থান, কর্ণাটক এবং হরিয়ানায়। এই বিধায়করা যাতে অন্য দলে ভোট না দেয় বা ফের দল না ভাঙে সে কারণে এক ঝাঁক বিধায়ককে ১০ জুন অবধি রাজস্থানের কোনও এক রিসোর্টে লুকিয়ে রাখা হয়েছে। একেবারে ভোটের দিন তাদের বের করে ভোট কেন্দ্রে নিয়ে যাওয়া হবে। বিজেপিও বসে নেই এই কংগ্রেস বিধায়কদের পরিবারের সঙ্গে যোগাযো রাখছে। অর্থাৎ ফের ঘোড়া কেনাবেঁচা।






All rights reserved © 2021 Calcutta News   Home | About | Career | Contact Us

এই সংক্রান্ত আরও পড়ুন