ব্রেকিং নিউজ
cm-mamata-meets-workers-and-supporters-of-tmc-in-midnapore-during-her-district-visits
Mamata: 'সবাইকে নিয়ে চলতে হবে, একার জন্য কিছু করলেই ঘ্যাচাং ফু', দলীয় কর্মিসভায় সরব মুখ্যমন্ত্রী

Post By : সিএন ওয়েবডেস্ক
Posted on :2022-05-18 14:11:23


জেলা সফরের (Medinipur) দ্বিতীয় দিনে তৃণমূলের কর্মিসভা (Workers Meet) করেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় (CM Mamata)। বুধবার তিনি বলেন, 'যাঁরা মাঠে বসে থাকেন, তাঁরাই দলের বড় কর্মী। আর মঞ্চে বসে থাকেন গুটিকয়েক মানুষ। কারণ কাজের মধ্যে দিয়ে নেতা তৈরি হয়। দলের কর্মী মানে মানুষের সমস্যার সঙ্গে থাকা। সমাধানের পথ খুঁজে দেওয়া। সরকারি প্রকল্পের সুযোগ-সুবিধা মানুষের বাড়ি অবধি পৌঁছে দেওয়া।'

তিনি জানান, যারা কুকর্ম করে মানুষ তাদের চিহ্নিত করে ঘৃণা করে। তাদের ভালোবাসে না। আর মানুষ যাদের ভালবাসে না, আমি কেন তাকে ভালোবাসবো। এই ব্যাপারে আমি খুব রাফ অ্যান্ড টাফ। এভাবেই দুর্নীতি এবং দলীয় শৃঙ্খলাভঙ্গে অভিযুক্ত তৃণমূল নেতা-কর্মীদের বার্তা পাঠান দলের সুপ্রিমো। এদিন তিনি স্বাধীনতা আন্দোলনের ভারত ছাড়ো আন্দোলনকে সামনে রেখে মেদিনীপুর সফরে আবার আসার কথা ঘোষণা করেন।

বাংলার প্রত্যন্ত এলাকায় কীভাবে সরকারি প্রকল্প পৌঁছে গিয়েছে, কীভাবে সাধারণ মানুষ উপকৃত হয়েছে, এদিন সেই দাবিও কর্মিসভা থেকে করেন মুখ্যমন্ত্রী। ২১ মে-৩১মে দুয়ারে সরকার ক্যাম্প চলবে বলে এদিন ঘোষণা করেন তিনি। পাড়ার কোনও সমস্যা সমাধানের জন্য পাড়ায় পাড়ায় সমাধান ক্যাম্পে যান। আবেদন করেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা।

তিনি জানান, খড়গপুর বিদ্যাসাগর পার্কে সাইকেল ম্যানুফ্যাকচারিং হাব হবে। শালবনি স্টেডিয়াম ইন্ডোর স্টেডিয়াম হবে। এদিনও কেন্দ্রের বিরুদ্ধে সুর চড়িয়ে মুখ্যমন্ত্রীর দাবি, 'কেন্দ্রীয় সরকার আশাকর্মীদের টাকা দেওয়া বন্ধ করে দিয়েছে। আইসিডিএস-এ আগে কেন্দ্র টাকা দিত। কেন্দ্র মানে শূন্য ভাঁড়ার। আয়কর, টোল ট্যাক্স, কাস্টমসের সব টাকা বাংলা থেকে তুলে নিয়ে গিয়ে ওদের ভাঁড়ার পূর্ণ করে। সেখানে থেকে আমাদের প্রাপ্য টাকাও ওরা দিচ্ছে না। ৯২ হাজার কোটি টাকা মোদী সরকার আমাদের দিচ্ছে না।'

সুর চড়িয়ে মুখ্যমন্ত্রী বলেন, 'আজ রান্নার গ্যাসের দাম লাফিয়ে লাফিয়ে বাড়ছে, সমুদ্রের ঢেউ, দামের ঢেউ উঠছে। গ্যাসের যেন সমুদ্র। মানুষের পকেট কেন্দ্র লুঠ করছে, লুঠ, লুঠ। ডিজেল, পেট্রোল, গ্যাসের দাম বেড়ে গিয়েছে। ৮০০ ওষুধের দাম বাড়িয়েছে। এই সরকার মানুষ মারার সরকার। মানুষের পকেট লুটে কাটমানি খাচ্ছে। ১৭ লক্ষ কোটি টাকা জ্বালানি থেকে তুলে কাটমানি খাচ্ছে কেন্দ্র সরকার। মানুষ প্রতিবাদ করলেই হিন্দু-মুসলমান দেখায়। ওটা খুড়োর কল। মুল্যবৃদ্ধি হলেই দাঙ্গা লাগিয়ে দিচ্ছে। সব রাষ্ট্রায়ত্ত সংস্থা কেন্দ্র সরকার বন্ধ করে দিচ্ছে। একশো দিনের কাজে পাঁচ মাস ধরে টাকা দিচ্ছে না।'

কেন্দ্র সরকারের বিরুদ্ধে ধর্না কর্মসূচি নিতে হবে ব্লকে-ব্লকে, পাড়ায়-পাড়ায়। এদিন এই আবেদন করেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। পাশাপাশি কর্মীদের মধ্যে দূরত্ব কমিয়ে, আমি নই, আমরা স্লোগান নিয়ে চলতে হবে। সবাইকে নিয়ে চললে, সেটা সবার দল। বুধবার কর্মিসভায় জানান দলের সুপ্রিমো। এদিন তিনি ঘুরিয়ে দলের পুরনো কর্মীদের কাছে টানার বার্তাও দেন। সব জনপ্রতিনিধিদের, সবাইকে নিয়ে চলতে হবে। একার জন্য কিছু করলেই ঘ্যাচাং ফু করে দেব। যারা মানুষের কাজ করবে, তাঁদের আমি নমস্কার করব। আর যারা শুধু নিজের জন্য কাজ করবেন তাঁদের বসিয়ে দেব। এভাবেই দলকে আরও শৃঙ্খলাবদ্ধ এবং স্বচ্ছ হওয়ার বার্তা দেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। তৃণমূল কংগ্রেস আমার সৃষ্টি, সেই সৃষ্টি কখনও ব্যর্থ হয়ে দেব না। এটা আমাদের স্বপ্ন। এদিন জানান দলের সুপ্রিমো।






All rights reserved © 2021 Calcutta News   Home | About | Career | Contact Us

এই সংক্রান্ত আরও পড়ুন