ব্রেকিং নিউজ
  সাতসকালে আরামবাগের গোঘাটে রাস্তার উপর রক্তাক্ত মৃতদেহ উদ্ধার ঘিরে চাঞ্চল্য      তারকেশ্বর বি পি আর রোড এলাকায় বাইক ও মারুতি গাড়ির মুখোমুখি সংঘর্ষে মৃত এক, আহত চার     দক্ষিণ হাবরা এলাকায় সিভিক ভলেন্টিয়ারের বাড়িতে দুঃসাহসিক চুরি   
babul-surpiyo-have-exceptional-luck-in-indian-politics-see-why
Babul Supriyo: দল বদলে মন্ত্রী হওয়ার উদাহরণ প্রচুর, কিন্তু ব্যতিক্রমী ভাগ্য বাবুলের!

Post By : সিএন ওয়েবডেস্ক
Posted on :2022-08-03 19:36:19


প্রসূন গুপ্ত: রাজনীতির রণাঙ্গনে এক দলে মন্ত্রী থেকে দল পাল্টে অন্য দলে গিয়ে ফের মন্ত্রিত্ব পাওয়ার ঘটনা প্রচুর আছে ভারত তথা পশ্চিমবঙ্গে। ভারতীয় রাজনীতিতে প্রথম ডিগবাজিতে মন্ত্রী হওয়ার নাম সম্ভবত জগজীবন রামের। ৭৭ এ ইন্দিরার ক্যাবিনেটে ছিলেন। রাতারাতি দল পাল্টে জনতা পার্টিতে গিয়ে ফের প্রতিরক্ষামন্ত্রীর আসন পেয়েছিলেন জগজীবন। অবশ্য তা দীর্ঘস্থায়ী হয়নি। অন্যদিকে, বাংলার প্রথম মুখ্যমন্ত্রী ডঃ প্রফুল্ল ঘোষ কংগ্রেস ছেড়ে যুক্তফ্রন্টে ঢুকে মন্ত্রী হয়েছিলেন (মুখ্যমন্ত্রী নয়)। একই সময়ে অজয় মুখোপাধ্যায়, প্রফুল্ল সেনের মন্ত্রিসভা ছেড়ে যুক্তফ্রন্টে এসে মুখ্যমন্ত্রী হন। সেই ট্র্যাডিশন সমানেই চলেছে।

এই তো সেদিন কংগ্রেসের অন্যতম মুখ জ্যোতিরাদিত্য সিন্ধিয়া দল ছেড়ে বিজেপিতে গিয়ে মন্ত্রীপদ পেয়েছেন। মমতার ক্যাবিনেটে বাম মন্ত্রিসভার কেউ কেউ দল ছেড়ে তৃণমূলে এসে মন্ত্রীপদ পেয়েছেন। ব্যতিক্রম নয় বামফ্রন্টেও। কিরণময় নন্দ ৭৭ এ ছিলেন জনতা পার্টির বিধায়ক। ৮২ র ভোটের আগে সোশ্যালিস্ট পার্টির সদস্য হিসাবে ভোটে জিতে বামফ্রন্টে যোগ দেন। জ্যোতিবাবুর স্নেহধন্য কিরণময় বাম মন্ত্রিসভার মৎস্যমন্ত্রী ছিলেন শেষদিন অবধি।

বাবুলের বিষয়টি ভিন্ন। রাজনীতিবিদদের দল বদল নতুন ব্যাপার নয়। কিন্তু বাবুল একেবারেই রাজনীতি জগতের মানুষ ছিলেন না। সংগীতশিল্পী হিসাবেই এ রাজ্য থেকে মুম্বইতে গিয়ে রাহুল দেব বর্মনের নজরে পড়েন। তারপর ধীরে ধীরে উঠে আসেন। একটা সময় প্লে-ব্যাক সিঙ্গার হিসাবে দুর্দান্ত নাম করেন। সিনেমাতেও অভিনয়ে আসেন একসময়। এরপর একবার দিল্লি যাওয়ার পথে বিমানে আলাপ হয় যোগী রামদেবের সঙ্গে। রামদেব তাঁকে বিজেপিতে আসতে অনুরোধ করেন এবং ভোটে দাঁড়াতে বলেন। এরপর নজরে পড়েন ২০১৪ তে খোদ নরেন্দ্র মোদীর। বাবুল আসানসোল কেন্দ্রে ভোটে দাঁড়ান। মোদী, বাবুলের প্রচারে এসে আবেদন করেন, বাবুলকে ভোট দেওয়ার জন্য।

তিনি প্রতিশ্রুতি দেন, বাবুলকে মন্ত্রী করবেন। করেওছেন। দ্রুত মোদী ঘনিষ্ঠ হয়ে পড়েন বাবুল। ২০১৯ এর ভোটে ফের আসানসোল থেকে জিতে মন্ত্রী হন বাবুল কেন্দ্রে। এরপর ২০২১ এর বিধানসভা ভোটে টালিগঞ্জ কেন্দ্রে দাঁড়িয়ে পরাজিত হন। চলে যায় তাঁর কেন্দ্রের মন্ত্রিত্ব। ক্ষোভে তিনি সাংসদ পদ ত্যাগ করে অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়ের হাত ধরে তৃণমূলে যোগ দেন। সুব্রত মুখোপাধ্যায়ের মৃত্যুর পর বালিগঞ্জ কেন্দ্রে উপনির্বাচনে দাঁড়িয়ে জয়লাভ করেন। আজ একেবারে উল্টো জমিতে ক্যাবিনেট মন্ত্রীর দায়িত্ব পেলেন। এর আগে কোনও অরাজনৈতিক চরিত্রের রাজনীতিতে ক্রমাগত এত সৌভাগ্য দেখা গিয়েছে কি?






All rights reserved © 2021 Calcutta News   Home | About | Career | Contact Us

এই সংক্রান্ত আরও পড়ুন