ব্রেকিং নিউজ
  বিধ্বংসী আগুনে পুড়ে ছাই মোটর যন্ত্রাংশের দোকান, ক্ষতি কয়েক লক্ষ টাকার জিনিস, চাঞ্চল্য বসিরহাটে     মহেশতলায় ভোররাতে কাপড়ের গোডাউনে আগুন, চাঞ্চল্য  
TMC-faces-massive-setback-in-Jhalda-Municpality-while-an-councillor-quits-the-party
Purulia: ঝালদায় তৃণমূলে বড়সড় ভাঙন! দল ছাড়লেন মহিলা কাউন্সিলর, অনাস্থা আনায় চাপে শাসক

Post By : সিএন ওয়েবডেস্ক
Posted on :2022-10-27 18:39:23


ঝালদা (Jhalda) পুরসভায় তৃণমূলে (TMC) বড়সড় ভাঙন। পুর প্রধানের বিরুদ্ধে অনাস্থা আনার পরই তৃণমূল দল ও সব পদ থেকে আচমকা ইস্তফা দিলেন তিন নম্বর ওয়ার্ডের কাউন্সিলার (Councillor Resign) শীলা চট্টোপাধ্যায়। গত পুরভোটে নির্দল প্রার্থী হিসেবে জিতেছিলেন তিনি। এই প্রসঙ্গে কাউন্সিলর জানান, তিনি নির্দল (Independent) হিসেবে জিতে তৃণমূলে যোগ দিয়েছিলেন। এখন আবার সেই দল ছাড়লেন। তাঁর সিদ্ধান্ত হোয়াটস অ্যাপের মাধ্যমে শীর্ষ নেতৃত্বকে জানিয়ে দিয়েছেন।

পাশাপাশি সংবাদমাধ্যমের মুখোমুখি হয়ে শীলা দেবী জানান, আমি নির্দল থেকে জয়ী হয়ে তৃণমূল কংগ্রেসে যোগদান করি এলাকার উন্নয়নের স্বার্থে। দল আমাকে ঝালদা শহর সভানেত্রীর দায়িত্বও দেন। কিন্তূ আজ ব্যক্তিগত কারণে তৃণমূল দল ও ঝালদা শহর তৃণমূল কংগ্রেসের সভানেত্রীর পদ থেকে ইস্তফা দিলাম। কাউন্সিলর জানান, বিষয়টি লিখিত ভাবে জেলা নেতৃত্বকেও জানিয়েছেন তিনি। যদিও ঝালদা পৌরসভায় পুর প্রধানের বিরুদ্ধে আনা অনাস্থা ও অন্য দলে যোগদান প্রসঙ্গ এড়িয়ে গিয়েছেন তিনি।

১২ আসন বিশিষ্ট ঝালদা পুরসভা গত পুর নির্বাচনের পর থেকেই চর্চায়। কংগ্রেস কাউন্সিলর তপন কান্দু হত্যা থেকে বোর্ড দখল। বরাবর একসময় খবরের শিরোনামে ছিল এই পুরসভা। এই পুরসভায় কংগ্রেসের পাঁচ ও একজন নির্দল প্রাথীর সমর্থনে ইতিমধ্যেই অনাস্থার ডাক দেওয়া হয়েছে। ঠিক এরই মধ্যে একজন কাউন্সিলর তৃণমূল দল ত্যাগ করায় শোরগোল পড়েছে ঝালদায়।

পরিসংখ্যান অনুযায়ী তৃণমুলের মোট কাউন্সিলর ৫ জন। অনাস্থায় সই আছে ৬ জনের। নির্দল শীলা চ্যাটার্জি দল ও পদ ত্যাগ করার ফলে দলের ভিত খানিকটা কেঁপেছে। এমনটাই দাবি বিরোধীদের।

এই বিষয়টি নিয়ে ঝালদা শহর তৃণমূল কংগ্রেস সভাপতি চিরঞ্জীব চন্দ্র জানান, আমার কাছে কোনও খবরনেই। আমাকে কেউ এবিষয়ে লিখিত বা মৌখিক জানাননি। তাই বিষয়টি নিয়ে তিনি কোনো মন্তব্য করতে চাননি।  পুরুলিয়া জেলা কংগ্রেস সভাপতি নেপাল মাহাতো জানান, আশ্চর্যজনক ঘটনা। ভোটের ফলাফল প্রকাশের পরেই ঝালদা থানার আইসি ও তৃণমূলের চাপে নির্দল কাউন্সিলর হিসেবে তিনি শাসক দলে যোগ দিয়েছিলেন। কোনওদিন শীলা চট্টোপাধ্যায় তৃণমূল কাউন্সিলর ছিলেন না। বিজেপির তরফে জানানো হয়েছে, তৃণমূলে কোনও কাজের পরিবেশ নেই। হিটলারি ব্যবস্থা কায়েম রয়েছে। একজন পোস্ট, বাকি সব ল্যাম্পপোস্ট। উনি হয়তো কাজ করতে পারছিলেন না, তাই এই সিদ্ধান্ত।






All rights reserved © 2021 Calcutta News   Home | About | Career | Contact Us

এই সংক্রান্ত আরও পড়ুন