ব্রেকিং নিউজ
Clashes-erupted-between-TMC-and-ISF-led-to-massive-panic-in-Bhangar-South-24-Pargana
Bhangar: টিএমসি-আইএসএফ সংঘর্ষে অগ্নিগর্ভ ভাঙর! তৃণমূলের পার্টি অফিসে আগুন, জখম বহু

Post By : সিএন ওয়েবডেস্ক
Posted on :2023-01-21 16:31:05


তৃণমূল কংগ্রেস-আইএসএফ-র (TMC ISF clashes) দফায় দফায় সংঘর্ষে শুক্রবার রাত থেকে অগ্নিগর্ভ ভাঙর। দুই পক্ষের একাধিক সমর্থকের আহত হওয়ার খবর মিলেছে। এই সংঘর্ষ চলাকালীন বোমাবাজি, ইটবৃষ্টিতে তপ্ত ভাঙরের (Bhangar Incident)) কাশীপুর থানার অন্তর্গত গাজীপুর। পরিস্থিতি এতটাই উত্তপ্ত ছিল যে কাশীপুর থানার পুলিসের উপস্থিতিতে শনিবার সকালেও বোমাবাজির অভিযোগ উঠেছে। ইটের ঘায়ে এক তৃণমূল কর্মীর মাথা ফেটেছে বলে অভিযোগ শাসক শিবিরের। তৃণমূলের অভিযোগ, 'আইএসএফ-র কর্মী-সমর্থকরা এক তৃণমূল সমর্থকের বাড়িতে দলীয় পতাকা লাগায়। আরাবুল ইসলামের নামে গালিগালাজ শুরু করে। এতে আমাদের সমর্থকরা প্রতিবাদ করলে লাঠি, বন্দুকের বাট দিয়ে হামলা চালানো হয়।'

যদিও আইএসএফ-র পাল্টা দাবি, 'দলের প্রতিষ্ঠা দিবস উপলক্ষে পতাকা লাগাতে বাধা দেয় তৃণমূল। ফ্ল্যাগ না খুললে মারধরের হুমকি দেওয়া হয়। তখন দলীয় কর্মী-সমর্থকরা প্রতিবাদ করলে তাঁদের মারধর করেছে শাসক দল। এই মারধরের ঘটনায় ইন্ধন দিয়েছে আরাবুল এবং হাকিমুল। লাঠি দিয়েও মারধরে এক আইএসএফ সমর্থকের মাথা ফাটে। পুলিস এসে উলটে আমাদের ধরপাকড় শুরু করে।'


ভাঙড়ের তৃণমূল নেতা আরাবুল ইসলামের দাবি, 'নৌশাদ সিদ্দিকের নির্দেশে তৃণমূলের পার্টি অফিসে ভাঙচুর এবং অগ্নিসংযোগের ঘটনা চলেছে। আইএসএফ চেষ্টা করছে তৃণমূলের পার্টি অফিস দখল করতে। একজন মৃত্যুর সঙ্গে লড়ছে, তিন-চার জন তৃণমূল কর্মীর অবস্থা আশঙ্কাজনক। নৌশাদ সিদ্দিকি দাঁড়িয়ে থেকে গুণ্ডামি করেছে, ভাঙচুর চালিয়েছে।'

তিনি জানান, 'নৌশাদের নির্দেশে এবং উপস্থিতিতে বহিরাগত দুষ্কৃতীরা এসে এই গণ্ডগোল করেছে।' অবিলম্বে নৌশাদ সিদ্দিকির গ্রেফতারির দাবিতে সরব আরাবুল ইসলাম। নয়তো কলকাতা থেকে আইএসএফ-র যারা ভাঙরে ঢুকবেন, তাঁদের আটকানো হবে, পথ অবরোধ, অবস্থান বিক্ষোভ চলবে। এমনটাই হুমকি আরাবুল ইসলামের।

পাল্টা নৌশাদ সিদ্দিকির অভিযোগ, 'আরাবুল দা শুক্রবার রাত থেকে শূন্যে গুলি চালিয়েছে, বোমাবাজি করিয়েছে। শনিবার সকালে আমাদের কর্মীদের উপর হামলা হয়েছে, নির্বিচারে মারধর করেছে। পুলিস নীরব দর্শকের ভূমিকা পালন করেছে। আমরা এই অন্যায়ের বিহিত চাই।'

এদিকে, আইএসএফ-র প্রতিষ্ঠা দিবস উপলক্ষে ধর্মতলার রানী রাসমণি রোডে শনিবার সমাবেশের ডাক দিয়েছিল আইএসএফ। ভাঙর থেকে হাতিশালা হয়ে সিক্স লেন ধরে কলকাতার পথে যাওয়ার সময় তৃণমূল কর্মী-সমর্থকদের পথ অবরোধের মুখে পড়েন আইএসএফ কর্মী-সমর্থকরা। নৌশাদ সিদ্দিকির গ্রেফতারির দাবিতে এই অবস্থান বিক্ষোভ।

যদিও কলকাতার পথে যাওয়ার সময় স্থানীয় তৃণমূল নেতার উপস্থিতিতে হামলার মুখে পড়ে আইএসএফ। এমন অভিযোগ করেন আক্রান্ত আইএসএফ কর্মীরা। পাল্টা এক তৃণমূল নেতার গাড়িতে হামলা চলেছে বলে অভিযোগ।







All rights reserved © 2021 Calcutta News   Home | About | Career | Contact Us

এই সংক্রান্ত আরও পড়ুন