ব্রেকিং নিউজ
AbhishekBanerjee-held-meeting-in-haldia-and-attacks-suvendu-adhikary
Haldia:'ঠিকাদারি আর তৃণমূল একসঙ্গে করা যাবে না', হলদিয়ার সভায় বার্তা অভিষেকের

Post By : সিএন ওয়েবডেস্ক
Posted on :2022-05-28 16:39:55


প্রসূন গুপ্ত: শনিবার হলদিয়া শিল্পাঞ্চলে সভা করতে এসেছিলেন তৃণমূল কংগ্রেসের সর্বভারতীয় সাধারণ সম্পাদক অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়। বেশ কিছুদিন ধরেই শিল্পাঞ্চলে ঠিকাদার এবং রাজনীতির একটা যৌথ পেশার কাজ চলছিল। অভিষেকের কাছে এই অভিযোগ আসার পর তিনি ঠিকই করে ফেলেন যে, ব্যবসায়ীরা ব্যবসা করবে এবং তাঁকে কোনওভাবেই রাজনৈতিক সুবিধা দেওয়া হবে না। বরং কন্ট্রাক্টর সততার সঙ্গে কাজ করুক এবং যারা রাজনৈতিক নেতা তাঁরা দলের কাজে আসুক। এদিন তাই অভিষেক স্পষ্ট করে দেন দল আর ঠিকাদারি একসঙ্গে করা যাবে না। যারা একদম প্রথম থেকেই তৃণমূল কর্মী, তাঁরাই আগামি পুরভোটে টিকিট পাবেন। সিপিএম থেকে যারা তৃণমূলে এসেছেন, তাঁরাও পাবেন না টিকিট। এদিন এমনটাই জানান অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়।

তাঁর দাবি, 'যা বললাম, মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের অনুমোদন নিয়ে বললাম।' অভিষেক চান কোনওভাবেই দুয়ের মিশেল চলবে না। সেই মোতাবেক আজ অভিষেক হলদিয়া সফর করে প্রধানত এই বার্তাই দিলেন হলদিয়ার শ্রমজীবী মানুষকে। দীর্ঘদিন এই বন্দর এলাকার অবিসংবাদিত নেতা ছিলেন তৎকালীন তৃণমূল মন্ত্রী এবং বর্তমানে  বিধানসভার বিরোধী দলনেতা শুভেন্দু অধিকারী।

শুভেন্দু দল ছেড়েছেন দেড় বছর আগে। গত এক দশক ধরে তৃণমূলের যুব নেতা ছিলেন অভিষেক ও শুভেন্দু। দ্রুত অভিষেক উঠে আসেন সামনের সারিতে, অন্যদিকে নিজের একটি গোষ্ঠী বানিয়ে শুভেন্দুও উঠে আসতে শুরু করে। কিন্তু অভিষেকের সঙ্গে দৌড়ে পিছিয়ে পড়েন। তিনি দল ছাড়েন এবং দল ছাড়ার কারণ হিসাবে অভিষেককেই আক্রমণ করেন রাজনীতিগত ভাবে। সরাসরি ভাষণে 'তোলাবাজ ভাইপো' বলে আক্রমণ করে বিজেপির মঞ্চে প্রথম ভাষণ দেন শুভেন্দু। 

তারপরেই মহাযুদ্ধ ২০২১ এর বিধানসভা ভোট। বিপুল ভোট পেয়ে জিতে আসে তৃণমূল এবং কৃতিত্বের অন্যতম ভাগিদার হিসাবে দ্রুত অনেকটাই রাজনীতির মুখ হয়ে ওঠেন অভিষেক। এবার অভিষেক পূর্ব মেদিনীপুরে হাত দেন। ফের পৌরসভা ভোটে পর্যুদস্তু হয়েছেন শুভেন্দু। এমনকি নিজের খাসতালুক পূর্ব মেদিনীপুরেও। এবারে হলদিয়াতে শুভেন্দুর হাতে থাকা শ্রমিক সংগঠনে হাত দিলেন অভিষেক।

রাজ্যের বিরোধী দলনেতাকে পরোক্ষে দুষে তাঁর বক্তব্যে জানালেন যে, এক ব্যক্তি যাঁর মন ছিল বিজেপিতে এবং তৃণমূলে ছিল ক্ষমতা, তিনি বিশ্বাসঘাতকতা করেছেন হলদিয়াতে। গত ১১ বছর হলদিয়ার ১২টা বাজিয়ে দিয়ে গিয়েছে। রাজ্য সরকার এবং হলদিয়ার উন্নয়নের মাঝে দাঁড়িয়ে ছিলেন সেই ব্যক্তি।  শুভেন্দুর নামোচ্চারণ না করে তৃণমূল সাংসদ আরও বলেন, 'এবারে তাঁকে জেলের ঘানি টানতে হবে। এই অঞ্চলের শ্রমিকদের সাথে মালিকদের এক সমঝোতা রাখতে হবে। এই শ্রমজীবী মানুষদের দায়িত্ব এবার তিনিই হাতে নিচ্ছেন।' তাঁর মন্তব্য, 'ওই ব্যাক্তিকে দলে রেখে যে ভুল হয়েছিল এবার তার প্রায়শ্চিত্ত করতে হবে। অর্থাৎ সম্পূর্ণ বক্তব্যে পরিষ্কার করে দিয়ে এলেন অভিষেক যে  হলদিয়ায় শুভেন্দুর আধিপত্যকে শেষ করতে দায়িত্বে আসছেন অভিষেক। এমনটাই পূর্ব মেদিনীপুর তৃণমূল সুত্রে খবর।






All rights reserved © 2021 Calcutta News   Home | About | Career | Contact Us

এই সংক্রান্ত আরও পড়ুন