পেঁয়াজ আগলাতে জমিতে রাতপাহারা!

0
318

বর্তমানে সোনার দামে বিকোচ্ছে পেঁয়াজ। শহর থেকে গ্রাম, পেঁয়াজের দাম ছাড়িয়েছে ১৪০ টাকা প্রতি কিলো। ফলে রাজ্যের বেশ কয়েকটি জায়গায় লুট বা চুরি গিয়েছে মহার্ঘ্য পেঁয়াজ। ফলে কোনও ঝুঁকি নিতে চাইছেন না চাষিভাইয়েরা। তাই কোনও ঝক্কি না নিয়ে চাষের জমিতেই পিঁয়াজের বডিগার্ড হিসাবে রাতপাহারা দিচ্ছেন তাঁরা।

এই প্রথমবার এমন ঘটনায় যথেষ্ট সাড়া পড়েছে হুগলির পাণ্ডুয়া ব্লকের খন্যানের আবীরা গ্রামে। চাষিদের কথায়, নভেম্বরের প্রথম সপ্তাহেই এই এলাকায় বীজপেঁয়াজের চাষ শুরু হয়। আস্ত পেঁয়াজ মাটিতে পুঁতলে, সেই পেঁয়াজ থেকে বেরনো কলির মাথায় যে ফুল ফোটে সেই ফুল থেকেই পাওয়া পেঁয়াজের বীজ। সেটা দিয়েই নতুন পেঁয়াজ চারা তৈরি হয়। সেই বীজ পশ্চিমবঙ্গ ছাড়াও রাজ্যের বাইরেও পেঁয়াজ চাষের জন্য রফতানি করা হয়।
কিন্তু এখন পেঁয়াজের দাম আকাশছোঁয়া, তাই আস্ত পেঁয়াজ যাতে খেত থেকে চুরি বা লুট না হয় সেই কারণেই রাতপাহারা দিচ্ছেন দীপক দাস, ভাষ্কররা দাসের মতো পেঁয়াজ চাষিরা। তাঁদের কথায়, খন্যান এলাকায় মূল বড় সাইজের পেঁয়াজ দিয়ে উন্নত মানের বীজ তৈরি হয়। দিন দুয়েক আগে সেই পেঁয়াজ-ই জমিতে বসানো হয়েছে। যার বাজার দর বর্তমানে প্রায় ১২০ থেকে ১৩০ টাকা কেজি। তাই এক বিঘা জমিতে প্রায় এক লক্ষ টাকার পেঁয়াজ পুঁততে হয়েছে। কিন্তু এবারে পেঁয়াজের বর্ধিত দাম মানুষের লোভ বাড়িয়েছে। ফলে জমি থেকে পেঁয়াজ চুরির আশঙ্কা থাকছেই। তাই বাধ্য হয়ে চাষিরা রাতের ঘুম ভুলে জমিতে পেঁয়াজ পাহারা দিচ্ছেন। এমনকি ২০০ টাকা রোজে স্থানীয় যুবকদেরও পাহারার কাজে নিযুক্ত করেছেন।