তৃণমূলে ‘দলত্যাগ’ অব্যাহত

নারী দিবসে তৃণমূল ছেড়ে বিজেপিতে যোগ দিতে চলেছে তৃণমূলের তিন নেত্রী সহ বেশ কয়েকজন নেতা-নেত্রী। এক সময়ে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের ছায়াসঙ্গী সোনালী গুহ, তাঁর সঙ্গে বেশ কিছুদিন দূরত্ব বাড়ছিল দলের এবং নেত্রীর। এবারে তাঁকে টিকিট না দেওয়াতে বিদ্রোহী হন সোনালী। আজই তাঁর বিজেপিতে যোগ দেওয়ার সম্ভাবনা। যদিও তিনি জানিয়েছেন যে টিকিট লাগবে না, শুধু প্রচারই করবেন এই বছর। বাঁকুড়ার বিধায়ক শম্পা দরিপাকে এবারে টিকেট দেওয়া হয়নি, ফলে 'কাজের মেয়ে' হিসাবে জনপ্রিয় শম্পাও যোগ দিচ্ছেন বিজেপিতে। তিনি জানান, ‘তৃণমূলে আর সততার মূল্য নেই তাই দল ছাড়ছেন’। অপরদিকে মালদা জেলা পরিষদের প্রাক্তন প্রধান সরলা মুর্মু কিন্তু টিকিট পাওয়ার পরও দল ছাড়তে চলেছেন। তিনি জানিয়েছেন যে, তাঁর দাবি ছিল পুরাতন মালদহ, কিন্তু তাঁকে হাবিবপুর থেকে প্রার্থী করায় তিনি দল ছাড়তে বাধ্য হচ্ছেন।


তৃণমূল দলের কাছে সরলার বিজেপি যোগাযযোগের খবর নাকি ছিলই তাই দল ছাড়ার আগেই হাবিবপুর কেন্দ্রে তারা নতুন প্রার্থী প্রদীপ বাস্কেকে মনোনয়ন দিয়ে দিয়েছে। সরলা ১৫ সদস্য নিয়ে আজই বিজেপিতে  যোগ দিচ্ছেন, এরফলে মালদহ জেলা পরিষদ হাতছাড়া হতে পারে তৃণমূলের।  অপরদিকে সোমেন মিত্রের স্ত্রী শিখা মিত্রও যোগ দিতে পারেন বিজেপিতে। সূত্রের খবর, তিনি ইতিমধ্যেই বিজেপি নেতা শুভেন্দু অধিকারীর সঙ্গে দেখা করেছেন এবং বৈঠকও করেছেন। তাঁরও বিজেপিতে যোগদানের সম্ভাবনা প্রবল। এই পরিস্থিতিতে আন্তর্জাতিক নারী দিবসেই শাসকদলের কয়েকজন নেত্রীর এভাবে দলত্যাগ যথেষ্ঠই অস্বস্তিতে ফেলবে বলেই মনে করছেন বাংলার রাজনৈতিক মহল।

Tags:
tmc leader