আরও বাড়ল দূরত্ব, এবার জেলা সভাপতির পদ খোয়ালেন শিশির

আরও বাড়ল দূরত্ব, কাঁথির অধিকারী পরিবারের সঙ্গে ক্রমশ দূরত্ব বাড়াচ্ছে তৃণমূল কংগ্রেস। এবার পূর্ব মেদিনীপুর জেলা সভাপতির পদ থেকেও সরিয়ে দেওয়া হল শিশির অধিকারীকে। নতুন দায়িত্বে এলেন সোমেন মহাপাত্র। তবে এখনই অধিকারী পরিবারের সঙ্গে সব সম্পর্ক শেষ করেনি শাসকদল। পূর্ব মেদিনীপুরের বর্ষীয়ান এই তৃণমূল নেতা জেলার কোর কমিটির চেয়ারম্যান পদেই রয়েছেন। 
এবিষয়ে শিশিরের পুত্র বিজেপি নেতা শুভেন্দু অধিকারী জানান, তৃণমূল কর্মচারী খোঁজে। যাঁরা কর্মচারী হতে চান না, তাঁরা বেরিয়ে আসবেন। এটা তৃণমূলের ব্যাপার। এব্যাপারে কোনও মন্তব্য নেই। যাঁরা করছেন তাঁরা বলতে পারবেন। তবে এই প্রেক্ষিতে শিশির অধিকারী বিজেপিতে যোগ দেবেন কিনা সেবিষয়ে স্পষ্ট করে কিছু না বললেও শুভেন্দু বলেন, 'আমি তৃণমূল কংগ্রেস প্রাইভেট লিমিটেড কোম্পানি করি না। এটা তাঁদের দলের ব্যাপার। ওঁরা কর্মচারী খোঁজে, খুঁজে নেবে। যাঁরা কর্মচারী হয়ে থাকতে চান না, তাঁরা বেরিয়ে আসবেন। আমি কী রাজনীতি করব আমার পরিবার বলে না, আমার বাবা-মা কী রাজনীতি করবে সে বিষয়ে আমি বলব না। আমার বাবা-মা সুস্থ থাকুক এটাই চাইব।'


উল্লেখ্য, মঙ্গলবার সকালেই দিঘা-শঙ্করপুর উন্নয়ন পর্ষদের চেয়ারম্যান পদ থেকে শিশির অধিকারীকে অপসারণ করেছিল নবান্ন। তাঁর জায়গায় আনা হয়েছে অখিল গিরিকে। শুভেন্দু অধিকারী বিজেপিতে যোগ দেওয়ার পরই কাঁথি পুরসভার চেয়ারম্যান পদ থেকে অপসারণ করা হয়েছিল তাঁর ভাই সৌম্যেন্দু অধিকারীকে। বদল করা হয়েছে অধিকারী পরিবারের ঘনিষ্ঠ তাম্রলিপ্ত ও এগরা পুরসভার প্রশাসককেও। রাজনৈতিক বিশেষজ্ঞদের মতে, প্রশাসনিক পদ থেকে অধিকারী পরিবার ও তাঁদের ঘনিষ্ঠদের অপসারণের কাজ শুরু করেছে তৃণমূল সরকার। দলের সংগঠন সহ বিভিন্ন পদে অখিল গিরি ও তাঁর ঘনিষ্ঠদের দায়িত্ব বৃদ্ধি তারই ইঙ্গিত। 


আরও পড়ুন:
ফেব্রুয়ারিতে কলকাতায় আসতে পারেন প্রধানমন্ত্রী, করবেন জনসভা

কলকাতা  |  8 hours ago

হাওড়ার তৃণমূলের মিছিলে অরূপ-প্রসুন, নেই রাজীব-বৈশালি

রাজ্য  |  9 hours ago

নন্দীগ্রামে মমতার সভায় আমন্ত্রিত নন শিশির, দিব্যেন্দু!

রাজ্য  |  9 hours ago

হিন্দু ভাবাবেগে আঘাত! 'তাণ্ডব' ওয়েব সিরিজ বয়কটের ডাক

বিনোদন  |  9 hours ago

বিধানসভা ভোটের আগেই রাজ্যে ৫টি রথযাত্রা বিজেপির

কলকাতা  |  9 hours ago

কন্যা সন্তানের জন্ম দেওয়ার আগেই নিজের সৎছেলেকে বিয়ে করলেন মা!

আন্তর্জাতিক  |  9 hours ago

ভোট আসন্ন বলেই কী ‘মওকা’ পেয়েছেন শাসকদলের বিদ্রোহীরা?

রাজ্য  |  10 hours ago

দাউদাউ করে জ্বলে উঠল যাত্রীবোঝাই বাস, জীবন্ত দগ্ধ ৬

দেশ  |  15 hours ago

নির্জনতাকে সঙ্গী করে মনের মানুষকে নিয়ে ঘুরে আসুন আদিম আন্দামানে (দ্বিতীয় পর্ব)

ভ্রমণ  |  10 hours ago

প্রধান মন্ত্রী গ্রামীণ সড়ক যোজনার কাজ বদলে গেল পথশ্রী প্রকল্পে

রাজ্য  |  10 hours ago

ভোট আবহাওয়ায় গরম ভাটপাড়া

রাজ্য  |  10 hours ago

জানুয়ারির শেষে দুদিনের সফরে রাজ্যে আসছেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ

রাজ্য  |  10 hours ago

কথা মতো শনিবার দুপুরে ফেসবুক লাইভে এলেন রাজীব বন্দ্যোপাধ্যায়

রাজ্য  |  10 hours ago

সরকার পরিবর্তনের বেফাঁস মন্তব্য তৃণমূল বিধায়ক খগেশ্বর রায়ের

রাজ্য  |  10 hours ago

ভেস্তে গেল বাম-কং জোট বৈঠক, ফের বৈঠক ২৫-শে

কলকাতা  |  11 hours ago

আরও বাড়ল দূরত্ব, এবার জেলা সভাপতির পদ খোয়ালেন শিশির

আরও বাড়ল দূরত্ব, কাঁথির অধিকারী পরিবারের সঙ্গে ক্রমশ দূরত্ব বাড়াচ্ছে তৃণমূল কংগ্রেস। এবার পূর্ব মেদিনীপুর জেলা সভাপতির পদ থেকেও সরিয়ে দেওয়া হল শিশির অধিকারীকে। নতুন দায়িত্বে এলেন সোমেন মহাপাত্র। তবে এখনই অধিকারী পরিবারের সঙ্গে সব সম্পর্ক শেষ করেনি শাসকদল। পূর্ব মেদিনীপুরের বর্ষীয়ান এই তৃণমূল নেতা জেলার কোর কমিটির চেয়ারম্যান পদেই রয়েছেন। 
এবিষয়ে শিশিরের পুত্র বিজেপি নেতা শুভেন্দু অধিকারী জানান, তৃণমূল কর্মচারী খোঁজে। যাঁরা কর্মচারী হতে চান না, তাঁরা বেরিয়ে আসবেন। এটা তৃণমূলের ব্যাপার। এব্যাপারে কোনও মন্তব্য নেই। যাঁরা করছেন তাঁরা বলতে পারবেন। তবে এই প্রেক্ষিতে শিশির অধিকারী বিজেপিতে যোগ দেবেন কিনা সেবিষয়ে স্পষ্ট করে কিছু না বললেও শুভেন্দু বলেন, 'আমি তৃণমূল কংগ্রেস প্রাইভেট লিমিটেড কোম্পানি করি না। এটা তাঁদের দলের ব্যাপার। ওঁরা কর্মচারী খোঁজে, খুঁজে নেবে। যাঁরা কর্মচারী হয়ে থাকতে চান না, তাঁরা বেরিয়ে আসবেন। আমি কী রাজনীতি করব আমার পরিবার বলে না, আমার বাবা-মা কী রাজনীতি করবে সে বিষয়ে আমি বলব না। আমার বাবা-মা সুস্থ থাকুক এটাই চাইব।'


উল্লেখ্য, মঙ্গলবার সকালেই দিঘা-শঙ্করপুর উন্নয়ন পর্ষদের চেয়ারম্যান পদ থেকে শিশির অধিকারীকে অপসারণ করেছিল নবান্ন। তাঁর জায়গায় আনা হয়েছে অখিল গিরিকে। শুভেন্দু অধিকারী বিজেপিতে যোগ দেওয়ার পরই কাঁথি পুরসভার চেয়ারম্যান পদ থেকে অপসারণ করা হয়েছিল তাঁর ভাই সৌম্যেন্দু অধিকারীকে। বদল করা হয়েছে অধিকারী পরিবারের ঘনিষ্ঠ তাম্রলিপ্ত ও এগরা পুরসভার প্রশাসককেও। রাজনৈতিক বিশেষজ্ঞদের মতে, প্রশাসনিক পদ থেকে অধিকারী পরিবার ও তাঁদের ঘনিষ্ঠদের অপসারণের কাজ শুরু করেছে তৃণমূল সরকার। দলের সংগঠন সহ বিভিন্ন পদে অখিল গিরি ও তাঁর ঘনিষ্ঠদের দায়িত্ব বৃদ্ধি তারই ইঙ্গিত। 


Tags:
Sisir Adhikari
tmc
district president
suvendu adhikari
west bengal govt