ভয় পেয়েছেন মমতা, কটাক্ষ বাম-বিজেপির

নন্দীগ্রাম থেকেই উত্থান তৃণমূলের। এরপর পরপর দুবার বঙ্গশাসন হয়ে গেল তৃণমূল কংগ্রেসের। আর মুখ্যমন্ত্রী পদেও ১০ বছর পূর্ণ করতে চলেছেন তৃণমূল নেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। কিন্তু ২০২১-এর লড়াইটা সম্পূর্ণ আলাদা। কারণ এবার ঘাড়ের ওপর নিঃশ্বাস ফেলছে বিজেপি। এছাড়াও দলের মধ্যে গোষ্ঠীকোন্দল এবং অসন্তোষ মাথা চাড়া দিয়ে উঠেছে। এই পরিস্থিতিতে দল ছেড়ে বিজেপিতে চলে গিয়েছেন অনেকেই। এখনও অনেকে বেসুরো গাইছেন।
এরকমই একটা টালমাটাল পরিস্থিতিতে মুখ্যমন্ত্রী সভা করলেন পূর্ব মেদিনীপুরের নন্দীগ্রামে। যা অধিকারী পরিবারের বড় পুত্র শুভেন্দু অধিকারীর গড় বলেই পরিচিত। সভা থেকেই তৃণমূল নেত্রী ঘোষণা করলেন তিনি নন্দীগ্রাম থেকে ভোটে দাঁড়াতে ইচ্ছুক। এমনকি দলের রাজ্য সভাপতি সুব্রত বক্সিকেও নির্দেশ দিলেন, প্রার্থীতালিকা তৈরির সময় তাঁর নাম যেন বিবেচনা করা হয়। রাজনৈতিক বিশ্লেষকদের একাংশের মতে, মমতার এই ঘোষণা মাস্টারস্ট্রোক। আবার বিরোধী রাজনৈতিক দলের নেতারা কটাক্ষ করতে ছাড়লেন না তৃণমূল নেত্রীর এই সিদ্ধান্ত নিয়ে।