ব্রিগেডে বক্তব্যের তাৎপর্য

রবিবারের ব্রিগেডে 'সংযুক্ত মোর্চার' সমাবেশে রাজ্য সহ দেশের বিভিন্ন প্রান্তের নেতারা উপস্থিত ছিলেন। নিজেদের বক্তব্যে তাঁরা আসন্ন নির্বাচন নিয়ে তাঁদের প্রতিক্রিয়াও জানালেন। খুবই তাৎপর্যপূর্ণ ছিল একেক দলের প্রতিনিধিদের বক্তব্য। কিন্তু এদিনের ‘ষ্টার’ বক্তা ছিলেন আব্বাস সিদ্দিকীই। সমস্ত দলই ভবিষ্যতের ভাবনা থেকেই বক্তব্য পেশ করেছেন। আব্বাসের আক্রমণের লক্ষ্য ছিল তৃণমূলই। বারবার মমতা সরকারকে হটানোর কথা বলেছেন। আব্বাস জানান, বাম শক্তিই ভবিষ্যৎ, কংগ্রেস নিয়ে খুব উৎসাহী ছিলেন না। আবার বিজেপি নিয়েও আক্রমণ ছিল মামুলি। কিন্তু সর্বত্র বামজোটকে ভোট দিতে আবেদন করেন | কংগ্রেসের রাজ্য সভাপতির বক্তব্যে বারবার থামতে হয়েছে কারণ আব্বাসের মঞ্চে আসা। ছত্রিশগড়ের মুখ্যমন্ত্রী ভূপেশ বাঘেল আবার বক্তব্যে তুলোধোনা করেছেন মোদি সরকারকে।
মহাম্মদ সেলিম ব্যাতিত বাকি বাম বক্তাদের বক্তব্যে চুড়ান্ত সমালোচনা করা হয়েছে কেন্দ্রকেই। মূল্যবৃদ্ধি থেকে কর্মহীনতা উঠে এসেছে তাঁদের ভাষণে। পক্ষান্তরে রাজ্য সরকারকে সমালোচনা করলেও কোথাও একটা সীমারেখা ছিল। বিশেষজ্ঞদের ধারণা, নির্বাচনের ফলাফলে ত্রিশঙ্কু ভাবনা হয়তো তাঁদের মাথায় রয়েছে। কিন্তু সেলিম ছিলেন চূড়ান্ত আক্রমনাত্বক। কালিঘাট, চিটফান্ড থেকে তৃণমূলের দলবদলকারী নেতা আবার অমিত শাহ থেকে নরেদ্র মোদি কেউই ছাড় পায়নি সেলিমের বক্তব্যের ঝাঁঝ থেকে।

আরও পড়ুন:
বুথে রওনা ভোটকর্মীদের করোনা বিধিতে বাড়তি জোর

 |  8 hours ago

বাড়ছে করোনা সংক্রমণ অনির্দিষ্টকালের জন্য বন্ধ বেলুড় মঠ

 |  8 hours ago

করোনার গ্রাফ ঊর্ধ্বমুখী

 |  8 hours ago

জেলার আনাচে কানাচে বোমাবাজি

 |  8 hours ago

ফের অবহেলায় করোনা রোগীর মৃত্যু এবারও কাঠগড়ায় বেলেঘাটা আইডি

 |  9 hours ago

কৃষ্ণেন্দু মুখোপাধ্যায়ের সমর্থনে প্রচারে স্মৃতি ইরানি

 |  9 hours ago

ছেঁড়া হল বিজেপির পোস্টার-ব্যানার দমদম উত্তরে অভিযুক্ত তৃণমূল

 |  9 hours ago

ফের উত্তপ্ত বারাকপুর একের পর এক বোমাবাজি মৃত ১, আহত ১

 |  9 hours ago

কোভিড আক্রান্ত না হয়েও ঘরবন্দি পালাতে গিয়ে পড়ে মৃত্যু বৃদ্ধের

 |  10 hours ago

বিদায়বেলায় তোপধ্বনি ছাড়াই রাষ্ট্রীয় সম্মানে শেষকৃত্য কবির

 |  10 hours ago

বন্ধ নাগেরবাজার-গোলপার্ক রুট

 |  10 hours ago

বয়সকে উপেক্ষা করে মানুষের পাশে তিনি করোনা সচেতনতায় উদ্যোগী পুলিসও

 |  10 hours ago

ব্যারাকপুরের জন্য অতিরিক্ত একজন পুলিশ পর্যবেক্ষক

 |  10 hours ago

নির্জনতা চান? ঘরের কাছেই ‘ওড়িশার কাশ্মীর’ দারিংবাড়ি

ভ্রমণ  |  11 hours ago

সিএনের খবরের জের, মৃত্যুর ১২ ঘন্টা পর দেহ উদ্ধার

ভ্রমণ  |  11 hours ago

ব্রিগেডে বক্তব্যের তাৎপর্য

রবিবারের ব্রিগেডে 'সংযুক্ত মোর্চার' সমাবেশে রাজ্য সহ দেশের বিভিন্ন প্রান্তের নেতারা উপস্থিত ছিলেন। নিজেদের বক্তব্যে তাঁরা আসন্ন নির্বাচন নিয়ে তাঁদের প্রতিক্রিয়াও জানালেন। খুবই তাৎপর্যপূর্ণ ছিল একেক দলের প্রতিনিধিদের বক্তব্য। কিন্তু এদিনের ‘ষ্টার’ বক্তা ছিলেন আব্বাস সিদ্দিকীই। সমস্ত দলই ভবিষ্যতের ভাবনা থেকেই বক্তব্য পেশ করেছেন। আব্বাসের আক্রমণের লক্ষ্য ছিল তৃণমূলই। বারবার মমতা সরকারকে হটানোর কথা বলেছেন। আব্বাস জানান, বাম শক্তিই ভবিষ্যৎ, কংগ্রেস নিয়ে খুব উৎসাহী ছিলেন না। আবার বিজেপি নিয়েও আক্রমণ ছিল মামুলি। কিন্তু সর্বত্র বামজোটকে ভোট দিতে আবেদন করেন | কংগ্রেসের রাজ্য সভাপতির বক্তব্যে বারবার থামতে হয়েছে কারণ আব্বাসের মঞ্চে আসা। ছত্রিশগড়ের মুখ্যমন্ত্রী ভূপেশ বাঘেল আবার বক্তব্যে তুলোধোনা করেছেন মোদি সরকারকে।
মহাম্মদ সেলিম ব্যাতিত বাকি বাম বক্তাদের বক্তব্যে চুড়ান্ত সমালোচনা করা হয়েছে কেন্দ্রকেই। মূল্যবৃদ্ধি থেকে কর্মহীনতা উঠে এসেছে তাঁদের ভাষণে। পক্ষান্তরে রাজ্য সরকারকে সমালোচনা করলেও কোথাও একটা সীমারেখা ছিল। বিশেষজ্ঞদের ধারণা, নির্বাচনের ফলাফলে ত্রিশঙ্কু ভাবনা হয়তো তাঁদের মাথায় রয়েছে। কিন্তু সেলিম ছিলেন চূড়ান্ত আক্রমনাত্বক। কালিঘাট, চিটফান্ড থেকে তৃণমূলের দলবদলকারী নেতা আবার অমিত শাহ থেকে নরেদ্র মোদি কেউই ছাড় পায়নি সেলিমের বক্তব্যের ঝাঁঝ থেকে।

Tags:
abbas siddiqui
left
congress
ISF
brigade

এই সংক্রান্ত আরও খবর পড়ুন :

বুথে রওনা ভোটকর্মীদের করোনা বিধিতে বাড়তি জোর
জেলার আনাচে কানাচে বোমাবাজি
কৃষ্ণেন্দু মুখোপাধ্যায়ের সমর্থনে প্রচারে স্মৃতি ইরানি
ছেঁড়া হল বিজেপির পোস্টার-ব্যানার দমদম উত্তরে অভিযুক্ত তৃণমূল
ফের উত্তপ্ত বারাকপুর একের পর এক বোমাবাজি মৃত ১, আহত ১
ব্যারাকপুরের জন্য অতিরিক্ত একজন পুলিশ পর্যবেক্ষক
প্রচারে ঝড় তুললেন বোলপুর বিধানসভার বিজেপি প্রার্থী অনির্বাণ গঙ্গোপাধ্যায়
বীরভূমে বোমা বাঁধার সময় বিস্ফোরণ, আমডাঙায় বিজেপি কর্মীর বাড়িতে হামলা
মাড়গ্রামের হামলায় এফআইআর ভারতীর জেলা জুড়ে রুটমার্চের দাবি
ষষ্ঠ দফার ভোটের আগে উত্তপ্ত ব্যারাকপুর-জগদ্দল-কাঁচড়াপাড়া, বোমাবাজি, মৃত ১