ব্রিগেডে উধাও ‘বন্দেমাতরম’

রবিবারের ব্রিগেডে প্রায় সকলের ভাষণেই স্থান পেয়েছে ‘ইনকিলাব জিন্দাবাদ’। স্বাধীনতা সংগ্রামে সশস্ত্র আন্দোলনকারীদের কণ্ঠে থাকতো ইনকিলাব ধ্বনি। অবশ্য বন্দেমাতরমও থাকতো। বামেরা বিপ্লবের কথা ব্যবহার করতো বলে তাদের বিশ্ব কমিউনিস্টদের স্লোগান বিপ্লব দীর্ঘজীবী হোক অর্থাৎ ইনকিলাব জিন্দাবাদ ধ্বনি ভারতীয় স্লোগান হয়েছিল। আবার 'জয় হিন্দ' ধ্বনি হিন্দু দলগুলির না-পসন্দ ছিল, কারণ এই ধ্বনি নেতাজি ব্যবহার করতেন, যা নেতাজি সহযোগী জয়নাল আবেদিনের সৃষ্টি বলে কথিত আছে। তাই তাঁরা ‘ভারত মাতা কি জয়’ স্লোগান এনেছিলেন রাজনীতিতে।


কিন্তু ‘বন্দেমাতরম’ স্লোগান আসে বঙ্কিমচন্দ্রের লেখনী থেকে। বঙ্কিমচন্দ্রের লেখনীতে হিন্দু সংস্কৃতি স্থান পেয়েছিল, তাই বামেরা দেশকে মা হিসাবে বন্ধনা করতে নারাজ ছিলেন বলে শোনা যায়। অবশ্য এই নিয়ে বিতর্কও রয়েছে প্রচুর। কংগ্রেস কিন্তু ‘জয় হিন্দ’ এবং ‘বন্দেমাতরম’ দুইই ভাষণের শেষে ব্যবহার করে থাকে, তৃণমূলও তাই। বিজেপি আবার ভারত মাতার মতো বন্দেমাতরম ধ্বনি দিয়ে থাকেন। রবিবার কিন্তু কোনও বক্তা বন্দেমাতরম বললেন না। ভাষণ শেষে অধীর চৌধুরী বললেন, জয় হিন্দ, ইনকিলাব জিন্দাবাদ। ছত্রিশগড়ের মুখ্যমন্ত্রী বক্তব্য শেষে শুভ জয় হিন্দ বললেন।

Tags:
brigade meeting