হাইকোর্টের নির্দেশে গৃহবন্দি নেতা

বাড়ি ফিরলেন ফিরহাদ, তবে থাকতে হবে কড়া নজরদারিতে

শুক্রবারই শর্তসাপেক্ষ জামিন পান নারদ মামলায় ধৃত চার নেতা। কিন্তু মদন মিত্র, সুব্রত মুখোপাধ্যায় এবং শোভন চট্টোপাধ্যায় গুরুতর অসুস্থ থাকায় এখনও হাসপাতালে চিকিৎসাধীন। তবে বাড়ি ফিরলেন রাজ্যের পরিবহন ও আবাসন মন্ত্রী ফিরহাদ (ববি) হাকিম। শুক্রবার সন্ধ্যায় তিনি প্রেসিডেন্সি সংশোধনাগার থেকে চেতলার বাড়ি পৌঁছান। ফলে স্বভাবতই খুশি তাঁর পরিবার। তবে এই অবস্থায় তাঁকে গৃহবন্দি হয়ে থাকতে হবে সিবিআই এবং আদালতের কড়া নজরদারিতে।


 ফিরহাদের অপেক্ষায় পরিবার...



এর আগে কলকাতা হাইকোর্টে শুনানি চলাকালীন অভিযুক্তদের আইনজীবীরা জানিয়েছিলেন করোনা পরিস্থিতির মধ্যে কাজ করতে দেওয়া হোক মন্ত্রী বিধায়কদের। পরে আদালত তাঁদের আংশিক অনুমতি দিয়েছে। আদালত জানিয়েছে, তাঁদের সব কাজই করতে হবে অনলাইনে। ফাইল আসবে অনলাইনে, আলোচনা করতে হবে ভিডিও কনফারেন্সে। যদি কোনও সরকারি আধিকারিক তাঁদের সঙ্গে দেখা করতে আসেন তবে তাঁদের যাবতীয় তথ্য নথিভূক্ত করতে হবে। প্রত্যেকের বাড়ির সামনে তিনটি করে সিসিটিভি ক্যামেরা বসাতে হবে। যদিও সিসিটিভি নাও থাকে তবে সেটার ব্যবস্থা করতে হবে জেল কর্তৃপক্ষকে। গোটা প্রক্রিয়ার ওপর নজরদারি চালাবে আদালত এবং সিবিআই আধিকারিকরা।

Tags:
narada scam
narada case
CBI
kolkata high court
firhad hakim