৩৫৬ বছর আগে ইংল্যান্ডের এই গ্রামেই হয়েছিল প্রথম ‘লকডাউন’

১৬৬৫ খ্রিস্টাব্দ, গোটা ইংল্যান্ড জুড়েই ভয়াবহ মহামারি ছড়িয়ে পড়েছিল সেবার। মহামারি হয়েছিল প্লেগের জন্য। ইংল্যান্ডের ডার্বিশায়ারের একটি ছোট্ট গ্রাম ইয়ামে তখনও ছড়িয়ে পড়েনি প্লেগ মহামারি। ৩৫৬ বছর আগে এই গ্রামের মানুষজন একটা সিদ্ধান্ত নিয়েছিল নিজেদের মধ্যে আলোচনা করে। আধুনিক পৃথিবীর ইতিহাস খুঁজে একদল গবেষক এক অবাক করা তথ্য সামনে এনেছেন। কী সেই তথ্য?


সেই ৩৫৬ বছর আগে ইংল্যান্ডের এই গ্রামেই হয়েছিল লকডাউন। কি অবাক হচ্ছেন তো? হ্যাঁ, এটাই সত্যি, ইয়াম গ্রামের সবাই গ্রামের সীমানা আটকে নিজেদের ঘরবন্দি করেছিলেন। বাইরের জগতের থেকে নিজেদের বিচ্ছিন্ন করে ফেলেছিলেন ইয়াম গ্রামের বাসিন্দারা। ফলে সেবার মহামারি প্লেগ ইয়াম গ্রামে সুবিধা করতে পারেনি। তাই আজও এই গ্রামকে প্লেগ গ্রাম নামেই পরিচিত। ফলে বলাই যায়, এই গ্রামই গোটা বিশ্বকে লকডাউনের অর্থ শিখিয়েছিল, তাও সেই সাড়ে তিনশো বছর আগে।
ইংল্যান্ডের ডার্বিশায়ার কাউন্টির পিক জেলার জাতীয় উদ্যানের মধ্যে অবস্থিত এই ইয়াম গ্রাম। বর্তমানে করোনা ভাইরাসকেও জয় করে ফেলেছে এই গ্রাম। এখন এই গ্রামের জনসংখ্যা মাত্র ৯৬৯ জন।