চিটফাণ্ড কাণ্ডে এবার মুখ্যমন্ত্রীকেই গ্রেফতারের দাবি তুললেন দিলীপ ঘোষ

চিটফাণ্ড ইস্যুতে তৃণমূল কংগ্রেসের মুখপাত্র কুণাল ঘোষ বিজেপিতে যোগ দেওয়া তৃণমূল নেতাদের খোঁচা দিতেই এবার সরব হলেন দিলীপ ঘোষ। বিজেপির রাজ্য সভাপতি বৃহস্পতিবার সকালে মর্নিং ওয়াকের ফাঁকে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কেই গ্রেফতারের দাবি তুললেন। তাঁর কথায়, ‘চিটফাণ্ড কাণ্ডে তো গ্রেফতার করা উচিত মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে। উনি তো চিটফান্ড সংস্থাগুলির বিমান ব্যবহার করতেন। এমনকি এই সংস্থাগুলির অ্যাম্বুলেন্সও উদ্বোধন করেছিলেন। তাই তাঁকেও গ্রেফতারের দাবি করা উচিত’। তবে বাকি কাজ ইডি-সিবিআই করবে বলেও জানিয়েছেন বিজেপির রাজ্য সভাপতি। উল্লেখ্য, চিটফাণ্ডে বেআইনি লেনদেন ও বিদেশে টাকা পাচারের অভিযোগে বুধবারই এনফোর্সমেন্ট ডাইরেক্টরেট (ইডি) গ্রেফতার করে তৃণমূলের প্রাক্তন রাজ্যসভার সাংসদ কে ডি সিংকে। এরপরই তৃণমূলের মুখপাত্র কুণাল ঘোষ বিজেপি নেতা মুকুল রায়ের গ্রেফতারির দাবি করেন। এরই জবাবে দিলীপ ঘোষ একহাত নিলেন তৃণমূল নেত্রীকেই।
পাশাপাশি এদিন বাগবাজার অগ্নিকাণ্ডের ঘটনার পূর্ণাঙ্গ তদন্তের দাবিও জানিয়েছেন দিলীপ ঘোষ। তাঁর কথায়, দুখজনক ঘটনা, সরকারের দেখা উচিত। যদি কোনও চক্রান্ত হয়, তবে সঠিক তদন্ত হওয়া উচিত। রাজ্যের আসন্ন নির্বাচন প্রসঙ্গেও কয়েকটি মন্তব্য করেন দিলীপ ঘোষ। তিনি বলেন, এরাজ্যে ব্যাতিক্রমী নির্বাচন হয়। লোকসভা নির্বাচনে সারা দেশে কোথাও গন্ডগোল না হলেও এই রাজ্যের ৪২টি আসনেই গন্ডগোল হয়েছে। আমি প্রার্থী ছিলাম, আমার গাড়িও ভাঙচুর হয়েছে, খুন হয়েছে। এসব লিখিতভাবে নির্বাচন কমিশনকে জানিয়েছি। আশা করি তারা সব খতিয়ে দেখবে ও সেই সঙ্গে সুষ্ঠু নির্বাচনের ব্যবস্থা নেবে।
সবশেষে অনুব্রত মন্ডলের যজ্ঞ করা নিয়েও কটাক্ষ করেন বিজেপির রাজ্য সভাপতি। তিনি বলে লোকসভা নির্বাচনের আগে উনি ব্রাক্ষ্ণণ ভোজন ও গো-দান করেছিলেন। সেবার কি হয়েছিল সবাই জানে। এবার ২০০-র বেশি আসন বিজেপি পাবে। যারা সারাবছর লুটপাট করেন তারাএখন ভগবানকে ঘুষ দিলে কি হবে।

আরও পড়ুন:
‘গোলি মারো’ স্লোগানে গ্রেফতার বিজেপির ৩-তৃণমূলের ০! তুঙ্গে বিতর্ক

রাজ্য  |  4 minutes ago

ঢাকায় পৌঁছল ভারতের ২০ লাখ টিকার ডোজ

আন্তর্জাতিক  |  10 minutes ago

EPL আপডেটঃ জিতে শীর্ষেই ম্যান ইউ, জিতল ম্যান সিটি এবং লেস্টার সিটিও

খেলাধুলা  |  32 minutes ago

ইতিহাস শেয়ারবাজারে, সেনসেক্স ছাড়াল ৫০ হাজার

দেশ  |  35 minutes ago

বাংলার ভোটে আইনশৃঙ্খলায় সর্বাধিক গুরুত্ব দিচ্ছে কমিশনের ফুল বেঞ্চ

কলকাতা  |  48 minutes ago

দ্বিতীয় পর্বে টিকা নেবেন মোদি, মুখ্যমন্ত্রীরা

দেশ  |  an hour ago

ফের অন্ডালে শ্যুটআউট, আহত ১

রাজ্য  |  2 hours ago

বিদায়বেলায় খামখেয়ালি শীত, পারদ নামল ৫ ডিগ্রি সেলসিয়াস

কলকাতা  |  2 hours ago

কেরালার কাছে নাটকীয় হার সুনীলদের বেঙ্গালুরু এফসির

খেলাধুলা  |  2 hours ago

পিছু হটল কেন্দ্র, কৃষি আইন দেড়বছর স্থগিত রাখার প্রস্তাব কেন্দ্রের

দেশ  |  3 hours ago

শপথ নিয়েই ট্রাম্পের ১৭ নির্দেশ বাতিল করলেন বাইডেন

আন্তর্জাতিক  |  3 hours ago

নারদা মামলায় কেন চার্জশিট দিতে দেরি জানতে চেয়ে আদালতে মামলা করেন বিকাশরঞ্জন ভট্টাচার্য

রাজ্য  |  17 hours ago

রাজ্যজুড়ে টানা তিনদিন বাস ধর্মঘটের ডাক দিল জয়েন্ট কাউন্সিল অব বাস সিন্ডিকেট

রাজ্য  |  17 hours ago

গরু পাচার চক্রে মঙ্গলবার বিএসএফের ডেপুটি কমাড্যান্ট মহেন্দ্র সিং রানওয়াতকে জেরা করে সিবিআই

রাজ্য  |  17 hours ago

নন্দীগ্রামে শুভেন্দুর সভায় জনজোয়ার, অন্যদিকে ফাঁকা মাঠেই সভা করতে হল মদন মিত্রকে

রাজ্য  |  17 hours ago

চিটফাণ্ড কাণ্ডে এবার মুখ্যমন্ত্রীকেই গ্রেফতারের দাবি তুললেন দিলীপ ঘোষ

চিটফাণ্ড ইস্যুতে তৃণমূল কংগ্রেসের মুখপাত্র কুণাল ঘোষ বিজেপিতে যোগ দেওয়া তৃণমূল নেতাদের খোঁচা দিতেই এবার সরব হলেন দিলীপ ঘোষ। বিজেপির রাজ্য সভাপতি বৃহস্পতিবার সকালে মর্নিং ওয়াকের ফাঁকে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কেই গ্রেফতারের দাবি তুললেন। তাঁর কথায়, ‘চিটফাণ্ড কাণ্ডে তো গ্রেফতার করা উচিত মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে। উনি তো চিটফান্ড সংস্থাগুলির বিমান ব্যবহার করতেন। এমনকি এই সংস্থাগুলির অ্যাম্বুলেন্সও উদ্বোধন করেছিলেন। তাই তাঁকেও গ্রেফতারের দাবি করা উচিত’। তবে বাকি কাজ ইডি-সিবিআই করবে বলেও জানিয়েছেন বিজেপির রাজ্য সভাপতি। উল্লেখ্য, চিটফাণ্ডে বেআইনি লেনদেন ও বিদেশে টাকা পাচারের অভিযোগে বুধবারই এনফোর্সমেন্ট ডাইরেক্টরেট (ইডি) গ্রেফতার করে তৃণমূলের প্রাক্তন রাজ্যসভার সাংসদ কে ডি সিংকে। এরপরই তৃণমূলের মুখপাত্র কুণাল ঘোষ বিজেপি নেতা মুকুল রায়ের গ্রেফতারির দাবি করেন। এরই জবাবে দিলীপ ঘোষ একহাত নিলেন তৃণমূল নেত্রীকেই।
পাশাপাশি এদিন বাগবাজার অগ্নিকাণ্ডের ঘটনার পূর্ণাঙ্গ তদন্তের দাবিও জানিয়েছেন দিলীপ ঘোষ। তাঁর কথায়, দুখজনক ঘটনা, সরকারের দেখা উচিত। যদি কোনও চক্রান্ত হয়, তবে সঠিক তদন্ত হওয়া উচিত। রাজ্যের আসন্ন নির্বাচন প্রসঙ্গেও কয়েকটি মন্তব্য করেন দিলীপ ঘোষ। তিনি বলেন, এরাজ্যে ব্যাতিক্রমী নির্বাচন হয়। লোকসভা নির্বাচনে সারা দেশে কোথাও গন্ডগোল না হলেও এই রাজ্যের ৪২টি আসনেই গন্ডগোল হয়েছে। আমি প্রার্থী ছিলাম, আমার গাড়িও ভাঙচুর হয়েছে, খুন হয়েছে। এসব লিখিতভাবে নির্বাচন কমিশনকে জানিয়েছি। আশা করি তারা সব খতিয়ে দেখবে ও সেই সঙ্গে সুষ্ঠু নির্বাচনের ব্যবস্থা নেবে।
সবশেষে অনুব্রত মন্ডলের যজ্ঞ করা নিয়েও কটাক্ষ করেন বিজেপির রাজ্য সভাপতি। তিনি বলে লোকসভা নির্বাচনের আগে উনি ব্রাক্ষ্ণণ ভোজন ও গো-দান করেছিলেন। সেবার কি হয়েছিল সবাই জানে। এবার ২০০-র বেশি আসন বিজেপি পাবে। যারা সারাবছর লুটপাট করেন তারাএখন ভগবানকে ঘুষ দিলে কি হবে।

Tags:
dilip ghosh
chitfund scam
mamata banerjee
west bengal bjp
sardaha scam