কেন্দ্রীয় বাহিনীর রুটমার্চের মধ্যেই ফের রাজ্যে আসছেন উপ নির্বাচন কমিশনার

ভোট ঘোষণার আগেই রাজ্যে চলে এসেছে ১২ কোম্পানি কেন্দ্রীয় বাহিনী। ইতিমধ্যেই তাঁরা রাজ্যের বিভিন্ন এলাকায় রুটমার্চ শুরু করে দিয়েছে। এবার চূড়ান্ত প্রস্তুতি খতিয়ে দেখতে আসছেন উপ নির্বাচন কমিশনার সুদীপ জৈন। তিনিই পশ্চিমবঙ্গের ভোটে দায়িত্বপ্রাপ্ত আধিকারিক। নির্বাচন কমিশন সূত্রে খবর, চলতি মাসের সম্ভবত ২৫ তারিখ কলকাতায় পৌঁছবেন সুদীপ জৈন। ওইদিন ও ২৬ ফেব্রুয়ারি জেলাশাসক ও পুলিশ সুপারদের সঙ্গে বৈঠক করবেন তিনি। এরপরই ভোটের নির্ঘন্ট প্রকাশ করবে নির্বাচন কমিশন। সূত্র মারফৎ জানা যাচ্ছে মার্চের প্রথম সপ্তাহেই ভোট ঘোষণা করতে পারে কমিশন। এর আগে গত ডিসেম্বরে ভোট প্রস্তুতি খতিয়ে দেখতে রাজ্যে এসেছিলেন উপ নির্বাচন কমিশনার সুদীপ জৈন। সেবারও রাজ্যের সমস্ত জেলার জেলাশাসক এবং পুলিশ সুপারদের সঙ্গে বৈঠক করেছিলেন। পাশাপাশি প্রশাসনের শীর্ষ আধিকারিকদের সঙ্গেও বৈঠক করেন তিনি। কিন্তু এবার ভোট ঘোষণার দোরগোড়ায় এসে পৌঁছেছে নির্বাচন কমিশন। পশ্চিমবঙ্গের আইনশৃঙ্খলা নিয়ে যে তাঁরা কতটা চিন্তিত সেটা বোঝা যাচ্ছে তড়িঘড়ি রাজ্যে কেন্দ্রীয় বাহিনী পাঠানো দেখেই। রবিবার থেকেই রাজ্যের বিভিন্ন এলাকায় শুরু হয়েছে এরিয়া ডোমিনেশন। রুটমার্চের সময় কেন্দ্রীয় বাহিনীর জওয়ানরা সাধারণ মানুষের সঙ্গে কথাও বলছেন। সূত্রের খবর, ফেব্রুয়ারী মাসের মধ্যেই রাজ্যে ধাপে ধাপে ১২৫ কোম্পানী কেন্দ্রীয় বাহিনী পাঠাবে জাতীয় নির্বাচন কমিশন।

আরও পড়ুন:
হাজারো আশ্বাস, হাজারো প্রতিশ্রুতি ,পূরণ হয়নি কিছুই।

 |  3 hours ago

খেয়া পার হয়েই রোজকার যাতায়াত।

 |  3 hours ago

প্রচারে নেমে পড়লেন বেহালা পূর্ব কেন্দ্রের তৃণমূল প্রার্থী রত্না চট্টোপাধ্যায়।

 |  3 hours ago

ভোটের বাজারে হরেক রকমের মিস্টি।

 |  3 hours ago

কালনা মহকুমা হাসপাতালে মিলছে না ইউএসজি পরিষেবা সহ একাধিক পরিষেবা।

 |  3 hours ago

গ্রামে নিম্নমানের সামগ্রী দিয়ে কাজ, ঢালাই রাস্তার কাজ বন্ধ করলেন এলাকার মানুষ।

 |  3 hours ago

সিপিএম কংগ্রেসের জোটকে সাধারণ মানুষের কাছে পৌঁছতে দুই নেতার ছেলের বিয়েতে অভিনব আয়োজন।

 |  3 hours ago

পানীয় জলের দাবিতে প্রতিবাদে সরব ক্ষুব্ধ এলাকাবাসী।

 |  3 hours ago

অভিযোগ নারী নির্যাতনের তবুও কানে নেয়নি আমহার্স্ট স্ট্রিট থানা।

 |  4 hours ago

শুভেন্দুর বিরুদ্ধে মমতা

 |  4 hours ago

প্রার্থীতালিকা প্রকাশিত হতেই শুক্রবারের পর শনিবারও জেলায় জেলায় দলীয় নেতা কর্মীদের ক্ষোভ অব্যাহত।

 |  4 hours ago

ইসলামপুরের পুরোন বাজার যেন জতুগৃহ

 |  4 hours ago

শনিবারই ৬ জেলার ৬০ প্রার্থীকে নিয়ে জরুরি বৈঠকে তৃণমূল রাজ্য সভাপতি সুব্রত বক্সি।

 |  4 hours ago

সেলুন কারে প্যাকেজ ভ্রমণ, রেলের আকর্ষণীয় উদ্যোগ

দেশ  |  11 hours ago

গরুপাচারকাণ্ডে উঠে এল আরো এক নাম বিকাশ মিশ্র

দেশ  |  6 hours ago

কেন্দ্রীয় বাহিনীর রুটমার্চের মধ্যেই ফের রাজ্যে আসছেন উপ নির্বাচন কমিশনার

ভোট ঘোষণার আগেই রাজ্যে চলে এসেছে ১২ কোম্পানি কেন্দ্রীয় বাহিনী। ইতিমধ্যেই তাঁরা রাজ্যের বিভিন্ন এলাকায় রুটমার্চ শুরু করে দিয়েছে। এবার চূড়ান্ত প্রস্তুতি খতিয়ে দেখতে আসছেন উপ নির্বাচন কমিশনার সুদীপ জৈন। তিনিই পশ্চিমবঙ্গের ভোটে দায়িত্বপ্রাপ্ত আধিকারিক। নির্বাচন কমিশন সূত্রে খবর, চলতি মাসের সম্ভবত ২৫ তারিখ কলকাতায় পৌঁছবেন সুদীপ জৈন। ওইদিন ও ২৬ ফেব্রুয়ারি জেলাশাসক ও পুলিশ সুপারদের সঙ্গে বৈঠক করবেন তিনি। এরপরই ভোটের নির্ঘন্ট প্রকাশ করবে নির্বাচন কমিশন। সূত্র মারফৎ জানা যাচ্ছে মার্চের প্রথম সপ্তাহেই ভোট ঘোষণা করতে পারে কমিশন। এর আগে গত ডিসেম্বরে ভোট প্রস্তুতি খতিয়ে দেখতে রাজ্যে এসেছিলেন উপ নির্বাচন কমিশনার সুদীপ জৈন। সেবারও রাজ্যের সমস্ত জেলার জেলাশাসক এবং পুলিশ সুপারদের সঙ্গে বৈঠক করেছিলেন। পাশাপাশি প্রশাসনের শীর্ষ আধিকারিকদের সঙ্গেও বৈঠক করেন তিনি। কিন্তু এবার ভোট ঘোষণার দোরগোড়ায় এসে পৌঁছেছে নির্বাচন কমিশন। পশ্চিমবঙ্গের আইনশৃঙ্খলা নিয়ে যে তাঁরা কতটা চিন্তিত সেটা বোঝা যাচ্ছে তড়িঘড়ি রাজ্যে কেন্দ্রীয় বাহিনী পাঠানো দেখেই। রবিবার থেকেই রাজ্যের বিভিন্ন এলাকায় শুরু হয়েছে এরিয়া ডোমিনেশন। রুটমার্চের সময় কেন্দ্রীয় বাহিনীর জওয়ানরা সাধারণ মানুষের সঙ্গে কথাও বলছেন। সূত্রের খবর, ফেব্রুয়ারী মাসের মধ্যেই রাজ্যে ধাপে ধাপে ১২৫ কোম্পানী কেন্দ্রীয় বাহিনী পাঠাবে জাতীয় নির্বাচন কমিশন।

Tags:
deputy election commissioner
election commission
West Bengal
wb election 2021
central force

এই সংক্রান্ত আরও খবর পড়ুন :

হাজারো আশ্বাস, হাজারো প্রতিশ্রুতি ,পূরণ হয়নি কিছুই।
খেয়া পার হয়েই রোজকার যাতায়াত।
প্রচারে নেমে পড়লেন বেহালা পূর্ব কেন্দ্রের তৃণমূল প্রার্থী রত্না চট্টোপাধ্যায়।
কালনা মহকুমা হাসপাতালে মিলছে না ইউএসজি পরিষেবা সহ একাধিক পরিষেবা।
গ্রামে নিম্নমানের সামগ্রী দিয়ে কাজ, ঢালাই রাস্তার কাজ বন্ধ করলেন এলাকার মানুষ।
সিপিএম কংগ্রেসের জোটকে সাধারণ মানুষের কাছে পৌঁছতে দুই নেতার ছেলের বিয়েতে অভিনব আয়োজন।
পানীয় জলের দাবিতে প্রতিবাদে সরব ক্ষুব্ধ এলাকাবাসী।
প্রার্থীতালিকা প্রকাশিত হতেই শুক্রবারের পর শনিবারও জেলায় জেলায় দলীয় নেতা কর্মীদের ক্ষোভ অব্যাহত।
ইসলামপুরের পুরোন বাজার যেন জতুগৃহ
মানুষের কথা