নিষেধাজ্ঞা উঠতেই কোচবিহারে মমতা, বললেন প্রকৃত দোষীদের শাস্তি হবে

কথামতো নির্বাচন কমিশনের নিষেধাজ্ঞা উঠতেই শীতলকুচিতে পা রাখলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। দেখা করলেন নিহতদের পরিবারের লোকজনদের সঙ্গে। চতুর্থ দফার নির্বাচনে কেন্দ্রীয় বাহিনীর গুলিতে নিহত হয়েছিলেন চারজন, এর আগে রাজনৈতিক সংঘর্ষে আরও একজনের মৃত্যু হয়েছিল। এদিন পাঁচজনের পরিবারের সঙ্গেই দেখা করলেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। তবে বিজেপি কর্মী বলে দাবি করা আনন্দ বর্মণের মামা ও দাদু এদিন মুখ্যমন্ত্রীর সঙ্গে দেখা করেছেন। বুধবার বেলা সাড়ে ১১টা নাগাদ মাথাভাঙা হাসপাতালের পাশের মাঠে পৌঁছন তৃণমূল নেত্রী। সেখানে হাজির ছিলেন শীতলকুচির ১২৬ নম্বর বুথে নিহত চারজনের পরিবার। তাঁদের প্রত্যেকের সঙ্গেই এদিন কথা বলেন, সমবেদনা জানালেন তৃণমূলনেত্রী। নিহত মনিরুল হকের স্ত্রী-র কোল থেকে তাঁদের সদ্যোজাত সন্তানকেও কোলে তুলে নিলেন তিনি।