চিনের উহানে গিয়েও করোনার উৎপত্তি বের করতে পারল না হু

কোনও ল্যাবরেটরি থেকে নয়, মধ্যবর্তী কোনও প্রাণীর মাধ্যমেই তা মানবদেহে ছড়িয়েছে। তবে চিনের উহানে একমাস ঘুরেও কোন প্রাণী থেকে করোনাভাইরাস ছড়াল তা খুঁজে বের করতে পারল না বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা হু-র বিশেষজ্ঞদল। তাঁদের বিশ্বাস, পৃথিবীতে ২৩ লাখ লোকের মৃত্যুর কারণ যে ভাইরাস তা বাদুড় থেকেই ছড়িয়েছে। তবে অন্য কোনও স্তন্যপায়ী জীবের সাহায্য ছাড়া এই সংক্রমণ ছড়াতে পারে না। প্রাক্তন মার্কিন প্রেসিডেন্ট টডোনাল্ড ট্রাম্প সরাসরি অভিযোগ করেছিলেন, চিনের ল্যাবরেটরি থেকেই করোনা ছড়িয়েছে।
হু-র পিটার বিশেষজ্ঞ বেন এমবারেক জানিয়েছেন, উহানের তদন্তে নতুন কিছু বিষয় উঠে এসেছে। তবে করোনা সংক্রমণের ব্যাপারে নাটকীয় কোনও তথ্য আসেনি। ২০১৯ সালের ডিসেম্বরে উহানের বাজারের বাইরে যে ব্যাপকভাবে করোনাভাইরাস ছড়িয়েছে তার প্রমাণ মিলেছে। তবে তার আগে এই ভাইরাস ছড়ানোর পিছনে করোনাভাইরাস থাকার কোনও প্রমাণও মেলেনি। এর আগে এক চিনা বিশেষজ্ঞ লিয়াং ওয়ান্নিয়নান বলেছেন, করোনাভাইরাস উহানে ছড়ানোর আগে অন্য অঞ্চলেও ছড়াচ্ছিল। ২০১৯ সালের শেষে তা ধরা পড়ে উহানে। তার আগে উহানে এই ভাইরাস ছিল না। গত ১৪ জানুয়ারি এই বিশেষজ্ঞদল উহানে পৌঁছেছিল। তারা মাছবাজার, উহান ইন্সটিটিউট অফ ভাইরোলজি সহ বিভিন্ন জায়গা ঘুরে দেখেন। তাঁরা বলছেন, করোনার উৎপত্তি বুঝতে বহু বছর লাগবে।

Tags:
WHO