৯২ আসনেই লড়তে চায় কংগ্রেস, আলিমুদ্দিনে আজ ফের জোট বৈঠক

সোমবার প্রায় ৪ ঘন্টা বামেদের সঙ্গে বৈঠক হয় কংগ্রেসের। কিন্তু এরপরও সমাধানে আসতে পারেনি জোট। মঙ্গলবার ফের আলিমুদ্দিনে বৈঠক হবে জোটের সমাধান সূত্র বের করতে। জানা যাচ্ছে প্রদেশ কংগ্রেস সভাপতি আইএসএফ-এর দাবি মেনে ৩০টি আসনের সঙ্গে মালদহ ও মুর্শিদাবাদ জেলাতেও কয়েকটি আসন বেশি চাওয়া মেনে নিচ্ছেন না। জানা গিয়েছে ওই দুই জেলাতেই কংগ্রেসের শক্তি বেশি। কাজেই তাঁরা এই দুই জেলা নিজেদের হাতেই রাখতে চাইছে। এ ছাড়াও আব্বাস সিদ্দিকীর ব্যবহার তাঁদের কাছে স্বাভাবিক বলে মনে হয়েনি। ব্রিগেডে আব্বাস কংগ্রেসকে পাত্তা না দেওয়ার বিষয়টি মর্যাদাহানী বলেই মনে করছে প্রদেশ কংগ্রেস নেতৃত্ব। সোমবার বিধানভবনে বামফ্রন্ট নেতৃত্বের সঙ্গে বৈঠকে বসেন প্রদেশ কংগ্রেস সভাপতি অধীর রঞ্জন চৌধুরী। তিনি মুর্শিদাবাদ চলে যাচ্ছিলেন, কিন্তু মাঝপথ থেকে ফিরে এসে বৈঠকে যোগ দেন। সেখানেই তিনি আইএসএফ প্রধান আব্বাস সিদ্দিকীর মনোভাব নিয়ে অসোন্তোষ প্রকাশ করেছেন বলেই সূত্রের খবর।

সোমবার বৈঠক শেষে অধীরবাবু বলেন, ‘বামেদের সঙ্গে জোট প্রক্রিয়া একরকম পথে এগোচ্ছিল। বহু আসন সমঝোতা হয়ে গিয়েছিল। তার মধ্যে দল অংশ নেওয়ায় গোটা পদ্ধতি রিমডেলিং করতে হচ্ছে। তাই  প্রায় ৯০ শতাংশ আসন নিয়ে সিদ্ধান্ত চূড়ান্ত হওয়ার পরও তা ধাক্কা খাচ্ছে’। জানা যাচ্ছে, বাম নেতারা বারবার কংগ্রেসকে বোঝানোর পরেও কংগ্রেস আব্বাসের দাবি মানতে নারাজ তাঁরা। কংগ্রেসের নেতারা ঠিকই করেছেন যে প্রথমে ঠিক হওয়া ৯২ আসনের একটিও ছাড়বেন না আব্বাসকে। অবশ্য সিপিএম চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে জোট ধরে রাখার। তাঁদের আশা দু এক দিনের মধ্যে সব ঠিক হয়ে যাবে।  

Tags:
left congress alliance