৯২ আসনেই লড়তে চায় কংগ্রেস, আলিমুদ্দিনে আজ ফের জোট বৈঠক

সোমবার প্রায় ৪ ঘন্টা বামেদের সঙ্গে বৈঠক হয় কংগ্রেসের। কিন্তু এরপরও সমাধানে আসতে পারেনি জোট। মঙ্গলবার ফের আলিমুদ্দিনে বৈঠক হবে জোটের সমাধান সূত্র বের করতে। জানা যাচ্ছে প্রদেশ কংগ্রেস সভাপতি আইএসএফ-এর দাবি মেনে ৩০টি আসনের সঙ্গে মালদহ ও মুর্শিদাবাদ জেলাতেও কয়েকটি আসন বেশি চাওয়া মেনে নিচ্ছেন না। জানা গিয়েছে ওই দুই জেলাতেই কংগ্রেসের শক্তি বেশি। কাজেই তাঁরা এই দুই জেলা নিজেদের হাতেই রাখতে চাইছে। এ ছাড়াও আব্বাস সিদ্দিকীর ব্যবহার তাঁদের কাছে স্বাভাবিক বলে মনে হয়েনি। ব্রিগেডে আব্বাস কংগ্রেসকে পাত্তা না দেওয়ার বিষয়টি মর্যাদাহানী বলেই মনে করছে প্রদেশ কংগ্রেস নেতৃত্ব। সোমবার বিধানভবনে বামফ্রন্ট নেতৃত্বের সঙ্গে বৈঠকে বসেন প্রদেশ কংগ্রেস সভাপতি অধীর রঞ্জন চৌধুরী। তিনি মুর্শিদাবাদ চলে যাচ্ছিলেন, কিন্তু মাঝপথ থেকে ফিরে এসে বৈঠকে যোগ দেন। সেখানেই তিনি আইএসএফ প্রধান আব্বাস সিদ্দিকীর মনোভাব নিয়ে অসোন্তোষ প্রকাশ করেছেন বলেই সূত্রের খবর।

সোমবার বৈঠক শেষে অধীরবাবু বলেন, ‘বামেদের সঙ্গে জোট প্রক্রিয়া একরকম পথে এগোচ্ছিল। বহু আসন সমঝোতা হয়ে গিয়েছিল। তার মধ্যে দল অংশ নেওয়ায় গোটা পদ্ধতি রিমডেলিং করতে হচ্ছে। তাই  প্রায় ৯০ শতাংশ আসন নিয়ে সিদ্ধান্ত চূড়ান্ত হওয়ার পরও তা ধাক্কা খাচ্ছে’। জানা যাচ্ছে, বাম নেতারা বারবার কংগ্রেসকে বোঝানোর পরেও কংগ্রেস আব্বাসের দাবি মানতে নারাজ তাঁরা। কংগ্রেসের নেতারা ঠিকই করেছেন যে প্রথমে ঠিক হওয়া ৯২ আসনের একটিও ছাড়বেন না আব্বাসকে। অবশ্য সিপিএম চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে জোট ধরে রাখার। তাঁদের আশা দু এক দিনের মধ্যে সব ঠিক হয়ে যাবে।  

আরও পড়ুন:
এবার করোনা-যুদ্ধে মমতা...

 |  9 hours ago

ভ্যাকসিন চেয়ে মোদীকে চিঠি মমতারআবেদন পর্যাপ্ত ওষুধ-অক্সিজেনেরও রাজ্যে এল ৫ লক্ষ টিকা

 |  10 hours ago

ঘরে ফেরালেন তৃণমূল নেতা, বাড়ি ফিরল বিজেপির ঘরছাড়ারা

 |  11 hours ago

দুটি ডোজ নেওয়ার পরও মৃত্যু, মৃত্যু স্বাস্থ্যকর্মীর

 |  11 hours ago

পুলিস হাসপাতাল হল কোভিড হাসপাতাল

 |  11 hours ago

মমতার শপথের দিনেই ধরনায় বিজেপি

 |  11 hours ago

করোনা মোকাবিলায় উদ্যোগ

 |  11 hours ago

কোভিড যোদ্ধাদের পাশে ম্যানকাইন্ড

 |  12 hours ago

করোনার শৃঙ্খল ভাঙতে জারি একগুচ্ছ বিধিনিষেধ

 |  14 hours ago

তৃতীয়বারের জন্য মুখ্যমন্ত্রী হিসেবে শপথ নিলেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়

 |  12 hours ago

বেড না পেয়ে অসহায় পরিবার, বাড়িতে চিকিৎসা আক্রান্তের

 |  12 hours ago

পূর্ব মেদিনীপুরের জেলাশাসককে সরাল নবান্ন, বদল ডিজি-এডিজি

 |  12 hours ago

কোভিড মোকাবিলায় শহরের দুই হাসপাতালে মমতা

 |  12 hours ago

এমন ঘটনা গণহত্যার চেয়ে কম নয়ঃ এলাহাবাদ হাইকোর্ট

 |  16 hours ago

বিরোধী নেতা কে ?

 |  14 hours ago

৯২ আসনেই লড়তে চায় কংগ্রেস, আলিমুদ্দিনে আজ ফের জোট বৈঠক

সোমবার প্রায় ৪ ঘন্টা বামেদের সঙ্গে বৈঠক হয় কংগ্রেসের। কিন্তু এরপরও সমাধানে আসতে পারেনি জোট। মঙ্গলবার ফের আলিমুদ্দিনে বৈঠক হবে জোটের সমাধান সূত্র বের করতে। জানা যাচ্ছে প্রদেশ কংগ্রেস সভাপতি আইএসএফ-এর দাবি মেনে ৩০টি আসনের সঙ্গে মালদহ ও মুর্শিদাবাদ জেলাতেও কয়েকটি আসন বেশি চাওয়া মেনে নিচ্ছেন না। জানা গিয়েছে ওই দুই জেলাতেই কংগ্রেসের শক্তি বেশি। কাজেই তাঁরা এই দুই জেলা নিজেদের হাতেই রাখতে চাইছে। এ ছাড়াও আব্বাস সিদ্দিকীর ব্যবহার তাঁদের কাছে স্বাভাবিক বলে মনে হয়েনি। ব্রিগেডে আব্বাস কংগ্রেসকে পাত্তা না দেওয়ার বিষয়টি মর্যাদাহানী বলেই মনে করছে প্রদেশ কংগ্রেস নেতৃত্ব। সোমবার বিধানভবনে বামফ্রন্ট নেতৃত্বের সঙ্গে বৈঠকে বসেন প্রদেশ কংগ্রেস সভাপতি অধীর রঞ্জন চৌধুরী। তিনি মুর্শিদাবাদ চলে যাচ্ছিলেন, কিন্তু মাঝপথ থেকে ফিরে এসে বৈঠকে যোগ দেন। সেখানেই তিনি আইএসএফ প্রধান আব্বাস সিদ্দিকীর মনোভাব নিয়ে অসোন্তোষ প্রকাশ করেছেন বলেই সূত্রের খবর।

সোমবার বৈঠক শেষে অধীরবাবু বলেন, ‘বামেদের সঙ্গে জোট প্রক্রিয়া একরকম পথে এগোচ্ছিল। বহু আসন সমঝোতা হয়ে গিয়েছিল। তার মধ্যে দল অংশ নেওয়ায় গোটা পদ্ধতি রিমডেলিং করতে হচ্ছে। তাই  প্রায় ৯০ শতাংশ আসন নিয়ে সিদ্ধান্ত চূড়ান্ত হওয়ার পরও তা ধাক্কা খাচ্ছে’। জানা যাচ্ছে, বাম নেতারা বারবার কংগ্রেসকে বোঝানোর পরেও কংগ্রেস আব্বাসের দাবি মানতে নারাজ তাঁরা। কংগ্রেসের নেতারা ঠিকই করেছেন যে প্রথমে ঠিক হওয়া ৯২ আসনের একটিও ছাড়বেন না আব্বাসকে। অবশ্য সিপিএম চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে জোট ধরে রাখার। তাঁদের আশা দু এক দিনের মধ্যে সব ঠিক হয়ে যাবে।  

Tags:
left congress alliance