ফাইল চিত্র

Politics: শিশির~দিব্যেন্দু তৃণমূলের সংসদীয় কমিটিতে, জল্পনা শুরু

কলকাতাঃ ২০২৪ এর নির্বাচনকে সামনে রেখে দলকে ঢেলে সাজাচ্ছে তৃণমূল কংগ্রেস। বিভিন্ন রাজ্যে  দলীয় বিস্তার এর ক্ষেত্রে সেই সমস্ত রাজ্যের একাধিক নেতা নেত্রীকে দলে যোগদান করাচ্ছে তৃণমূল। ২০২৪ তৃণমূলের কাছে এখন পাখির চোখ। সেই লক্ষ্যেই আসাম, ত্রিপুরা, ঝাড়খন্ড, মনিপুর, মেঘালয় ও গোয়াসহ একাধিক রাজ্যে প্রভাব বিস্তার করতে চাইছে তৃনমূল কংগ্রেস। 

বিভিন্ন দপ্তরের সংসদীয় স্থায়ী কমিটিতে একাধিক পরিবর্তনসহ নতুন মুখ নিয়ে আসলো তৃণমূল। সাত বারের সাংসদ তথা তিনবার মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় তৃণমূলের সংসদীয় কমিটির চেয়ারপারসন। রাজ্য স্তরের রাজনীতি থেকে শুরু করে জাতীয় স্তরের রাজনীতির সহজপাঠ এবং সমীকরণ মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের কাছে অনেকটাই সরল। সে কথা মাথায় রেখেই তৃণমূলের সংসদীয় কমিটির চেয়ারপারসন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। 

দীর্ঘদিন ধরে তৃণমূল কংগ্রেস দাবি করে আসছিল সংসদীয় কমিটির পরিবর্তন। এবার সেই পরিবর্তনে দেখা গেল এমন কিছু নাম, যে নাম নিয়ে ইতিমধ্যেই তৈরি হয়ে রয়েছে রাজনৈতিক সংশয়। একদা তৃণমূলের মমতা ঘনিষ্ঠ শিশির অধিকারি এবং দিব্যেন্দু অধিকারি জায়গা পেয়েছে সংসদীয় কমিটিতে। ২০১৯ এর নির্বাচনের আগে মেদিনীপুরে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির রাজনৈতিক সভা মঞ্চে দেখা গিয়েছিল শিশির অধিকারীকে। মঞ্চে থাকলেও সেদিন তিনি বিজেপির পতাকা হাতে তুলে নেন নি। তারপর থেকে ক্রমাগত তৃণমূলের সঙ্গে দূরত্ব বাড়তে থাকে শিশির অধিকারীর। 

শুভেন্দু অধিকারি তৃণমূল ছেড়ে বিজেপিতে যাবার পর কার্যত অধিকারি পরিবার অনেকটাই ব্রাত্য হয়ে গিয়েছিল তৃণমূলের কাছে। ফলে তৃণমূলের থেকে আস্তে আস্তে দূরত্ব তৈরি হচ্ছিল দিব্যেন্দু অধিকারির। এবার তৃণমূলের সংসদীয় কমিটিতে গ্রাম উন্নয়ন মন্ত্রকের স্থায়ী কমিটির সদস্য হিসেবের নাম রয়েছে শিশির অধিকারি। পাশাপাশি রসায়ন ও সার মন্ত্রকের স্থায়ী কমিটির সদস্য হিসেবে নাম রয়েছে দিব্যেন্দু অধিকারির। 

আর এরপর থেকেই শুরু হয়েছে রাজনৈতিক জল্পনা। প্রশ্ন উঠতে শুরু করেছে তাহলে কি এই দুই অধিকারি আবার ঘনিষ্ঠ হচ্ছে তৃণমূলের? যদিও সে প্রশ্নের উত্তর দেবে সময় । অন্যদিকে সদ্য তৃণমূলে যোগদান কারী প্রাক্তন কংগ্রেসের সভানেত্রী  সুস্মিতা দেব এর নাম রয়েছে তৃণমূলের সংসদীয় কমিটিতে। স্বাস্থ্য ও ক্রীড়া মন্ত্রকের স্থায়ী কমিটিতে রয়েছেন সুস্মিতা দেব। তথ্য ও প্রযুক্তি মন্ত্রকের স্থায়ী কমিটিতে রয়েছেন প্রাক্তন প্রসার ভারতী অধিকর্তা জহর সরকার। খাদ্য ও গণবণ্টন মন্ত্রকের স্থায়ী কমিটির সদস্য হলেন সুদীপ বন্দ্যোপাধ্যায়। 

অন্যদিকে সংসদীয় কমিটির দুটি মন্ত্রকের স্থায়ী কমিটিতে পরিবর্তন আনল তৃণমূল। ডেরেক ও'ব্রায়েন কে পরিবহনমন্ত্রক থেকে সরিয়ে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রকের স্থায়ী কমিটির সদস্য করা হলো। সাংসদ নাদিমুল হককে তথ্য ও প্রযুক্তি মন্ত্রীকেও স্থায়ী কমিটি থেকে সরিয়ে পরিবহনমন্ত্রী স্থায়ী কমিটিতে আনা হলো। 

২০২৪ এর লোকসভা নির্বাচনকে সামনে রেখে যেমন নিজেদের ঘর গোছাতে তৎপর তৃণমূল। তেমনি তৃণমূলের সংসদীয় কমিটিতে শিশির অধিকারি এবং দিব্যেন্দু অধিকারির নাম রেখে আবার একটি নতুন জল্পনার জন্ম দিল তৃণমূল কংগ্রেস,এমনটাই মনে করছেন রাজনৈতিক মহল।


Tags:
tmc
Shishir
Divyendu



এই সংক্রান্ত আরও খবর পড়ুন :