মার্কিন সাংবাদিকের হত্যাকারীকে জেল থেকে মুক্তি পাকিস্তানে

১৯ বছর আগে মার্কিন সাংবাদিক ড্যানিয়েল পার্লের মুণ্ডচ্ছেদ করে নৃশংসভাবে হত্যা করা হয়েছিল। সেই হত্যাকাণ্ডের প্রধান অভিযুক্ত আহমেদ ওমর সইদ শেখকে পাকিস্তানের সুপ্রিম কোর্ট মঙ্গলবার করাচি সেন্ট্রাল জেলের ডেথ সেল থেকে বের করে সরকারি বিশ্রাম আবাসে নিয়ে যাওয়ার আদেশ দিয়েছে। তার পরিবারকে সরকারি পরিবহনে সেই বিশ্রাম গৃহে নিয়ে আসারও নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। দিন কয়েকের মধ্যেই সইদ শেখতে জেল থেকে সরাতে হবে বলেও শীর্ষ আদালত জানিয়েছে। তাকে করাচিতেই রাখতে হবে। হত্যাকারীরা ড্যানিয়েলের মুণ্ডচ্ছেদের ভিডিও প্রকাশ করেছিল।
এই আদেশের পর উদ্বিগ্ন আমেরিকা। ২০০২ সালে ৩৮ বছরের ড্যানিয়েলের অপহরণ ও হত্যার ঘটনায় অভিযুক্তকে জেল থেকে বের করার নির্দেশে আমেরিকা চিন্তিত। গত ২৯ জানুয়ারি মার্কিন স্বরাষ্ট্রসচিব অ্যান্টনি ব্লিনকেনের সঙ্গে পাক বিদেশমন্ত্রী শাহ মাহমুদ কুরেশির বৈঠকে ড্যানিয়েল পার্লের হত্যাকারীর বিরুদ্ধে তদন্তে বিশ্বাসযোগ্যতা নিয়ে কথা হয়েছে। শীর্ষ আদালতের নির্দেশ সন্ত্রাসের বলি নাগরিকদের বিরুদ্ধে। তারা রায়ের নতুন করে বিবেচনার দাবি করেছে। নিম্ন আদালত সইদ শেখকে মৃত্যুদণ্ড দিয়েছিল।
এর আগে সিন্ধ হাইকোর্ট সইদ শেখকে মুক্তি দেওয়ার আদেশ দিয়েছিল। শীর্ষ আদালত সেই রায় বহাল রেখেছে। তার সঙ্গে অন্য অভিযুক্তদেরও মুক্তির আদেশ দেয় তারা। হাইকোর্টের মুক্তির রায়ের বিরুদ্ধে সিন্ধ সরকার ও ড্যানিয়েলের পরিবার আপিল করেছিল। আমেরিকা বলেছে, পাকিস্তান সুবিচার করেব বলে তারা আশা করছে। তারা সইদ শেখের বিরুদ্ধে আমেরিকায় বিচার করার দাবিও জানিয়েছে।

Tags:
Daniel Pearl murder