আর মাত্র কয়েক ঘন্টা, ভারতে বন্ধ হতে পারে ফেসবুক-টুইটার-ইনস্টাগ্রাম!

কেন্দ্রীয় সরকারের নয়া গাইডলাউন অনুযীয় সোশাল মিডিয়ার জনপ্রিয় অ্যাপ ফেসবুক, টুইটার ও ইনস্টাগ্রাম ভারতে বন্ধ হয়ে যেতে পারে। এবং সেটা কাল থেকেই হতে পারে। গত ২৫ ফেব্রুয়ারি কেন্দ্রীয় তথ্য এবং সম্প্রচার মন্ত্রক সোশ্যাল মিডিয়া প্ল্যাটফর্মগুলির জন্য একটি গাইডলাইন জারি করেছিল। সেই অনুযায়ী ২৫ মে তারিখের মধ্যেই সংস্থাগুলির বেশ কিছু কাগজপত্র জমা দেওয়ার কথা সংশ্লিষ্ট মন্ত্রকে। সূত্রের খবর, একমাত্র ভারতীয় ম্যাসেজিং অ্যাপ ‘কু’ ছাড়া আর কোনও সংস্থাই সেগুলি জমা করেনি। ফলে নিয়ম অনুযায়ী ওই অ্যাপগুলি ভারতে বন্ধ করে দেওয়া উচিত। এখন দেখার কেন্দ্রীয় সরকার কড়া মনোভাব নেয় কিনা।


কেন্দ্রের নয়া গাইডলাইনে বলা হয়েছে, সোশাল মিডিয়া প্ল্যাটফর্ম এবং ওটিটি প্ল্যাটফর্মগুলিকে এক ছাতার তলায় নিয়ে আসা হবে। প্রত্যেক সংস্থাকেই তাঁদের ভারতীয় সদর দফতরের ঠিকানা, যোগাযোগ নম্বর, ই-মেল এবং দায়িত্বপ্রাপ্ত শীর্ষ আধিকারিকের নাম এবং নম্বর জমা দিতে হবে। এছাড়া অভিযোগ জানানোর মতো (কমপ্লায়েন্স) একজন অধিকর্তাও নিয়োগ করে তাঁর নাম ও নম্বর জমা দিতে হবে। এবং কোনও অভিযোগ এলেই দ্রুত তার সমাধান করতে হবে। সমস্ত আপত্তিকর কনটেন্টের উপর নজরদারি রাখা এবং ব্যবস্থা নিয়ে রিপোর্ট জমা দেওয়ার কথাও বলা হয়েছে ওই গাইডলাইনে। সূত্র মারফৎ জানা যাচ্ছে, এখনও পর্যন্ত একমাত্র ভারতীয় সংস্থা ‘কু’ ছাড়া কোনও সংস্থাই এই দায়িত্ব পালনে ব্যর্থ হয়েছে। ফলে নেট নাগরিকদের রক্তচাপ বাড়ছে। তবে জানা যাচ্ছে গাইডলাইনের নিয়মাবলী পালনের জন্য তাঁদের হেড কোয়ার্টার থেকে সবুজ সংকেত না আসায় সংস্থাগুলি এখনও সেগুলি দিয়ে উঠতে পারেনি। এখন দেখার কেন্দ্র তাঁদের কিছুটা সময় দেয় কিনা।

Tags:
facebook
twitter
instagram
social media
New rules



এই সংক্রান্ত আরও খবর পড়ুন :