পাকিস্তানে PAS পরীক্ষায় উর্ত্তীর্ণ প্রথম হিন্দু মহিলা

পেশায় চিকিৎসক সানা রামচাঁদ থাকেন পাকিস্তানের সিন্ধ প্রদেশের শিকারপুর এলাকায়। তিনিই পাকিস্তানের পাকিস্তান অ্যাডমিনিস্ট্রেটিভ সার্ভিসেস বা Pakistan Administrative Services (PAS) পরীক্ষায় উর্ত্তীর্ণ হয়েছেন। জানা যাচ্ছে মোট ১৮,৫৫৩ জন চলতি বছরে PAS পরীক্ষায় বসেছিলেন। এরমধ্যে লিখিত পরীক্ষায় উর্ত্তীর্ণ হয়েছে মাত্র ২২১ জন পরীক্ষার্থী। সফলদের তালিকায় নাম ছিল সানা রামচাঁদের। পরবর্তী মাইকোলজিক্যাল ও মৌখিক পরীক্ষার পর মেডিকেল পরীক্ষাতেও নির্বাচিত হন সানা। ফলে পাকিস্তানে ইতিহাস তৈরি করলেন প্রথম হিন্দু মহিলা হিসেবে পাকিস্তান অ্যাডমিনিস্ট্রেটিভ সার্ভিসেস পরীক্ষায় নির্বাচিত হয়ে। উর্ত্তীর্ণদের ২২১ জনের মধ্যে মহিলার সংখ্যা ৭৯ জন, যারমধ্যে একমাত্র হিন্দু হিসেবে নির্বাচিত হয়েছেন সানা। বিবিসি উর্দু জানিয়েছে, সানা রামচাঁদ পাকিস্তানের প্রথম হিন্দু মহিলা যিনি PAS পরীক্ষায় উর্ত্তীর্ণ হয়ে উচ্চ পদে আসীন হতে চলেছেন।


সানা নিজেও সোশাল মিডিয়ায় একটি পোস্ট করে জানিয়েছেন, ‘ওয়াহেগুরু জি কা খালসা ওয়াহেগুরু জী কি ফাতেহ... অত্যন্ত আন্দের সঙ্গে জানাচ্ছি, আল্লাহ তায়ালার কৃপায় সিএসএস ২০২০ পরীক্ষা পাশ করেছি এবং পাকিস্তান অ্যাডমিনিস্ট্রেটিভ সার্ভিসেস-এর জন্য নির্বাচিত হয়েছে। এর সমস্ত কৃতিত্ব আমার পিতামাতার’। প্রসঙ্গত ভারতের আইএএস (IAS) পরীক্ষার মতোই পাকিস্তানে অত্যন্ত এলিট পরীক্ষার মধ্যে পড়ে PAS পরীক্ষা। এই পরীক্ষায় পাস করলে পরীক্ষার্থীরা পুলিশের উচ্চপদে, জেলা শাসকের পদে বা পাকিস্তান বিদেশমন্ত্রকের নানা গুরুত্বপূর্ণ পদে যোগ দিতে পারেন। সানা রামচাঁদের বাড়ি সিন্ধ প্রদেশের শিকারপুরে। এই এলাকায় হিন্দুদের আধিক্য বেশি। ফলে সানার সাফল্যে খুশি শিকারপুরের বাসিন্দারা। সানা ইতিমধ্যেই এমবিবিএস (MBBS) পাস করে করাচির একটি সরকারি হাসপাতালে RMO হিসেবে কর্মরত। এবার PAS পরীক্ষায় উর্ত্তীর্ণ হয়ে সহকারি কমিশনার হিসেবে কাজে যোগ দিতে চলেছেন।

আরও পড়ুন:
করোনা চিকিৎসায় নেওয়া যাবে ৫লাখ টাকার ঋণ, ঘোষণা SBI

দেশ  |  an hour ago

পার্ক করা গাড়ি পড়ল জলের গর্তে

দেশ  |  2 hours ago

তালা খোলানোর ইশারা কেন? কটাক্ষ মনামীকে

বিনোদন  |  2 hours ago

রাজ্যে দৈনিক সংক্রমণ চার হাজারের নিচে নেমে এল

বিনোদন  |  3 hours ago

চিংড়ি ধরতে গিয়ে এবার তিমির পেটে

আন্তর্জাতিক  |  3 hours ago

প্রয়াত শিল্পমন্ত্রীর মা শিবানী চট্টোপাধ্যায়

আন্তর্জাতিক  |  4 hours ago

ফের তৃণমূলে ফিরতে মরিয়া দীপেন্দু বিশ্বাস

আন্তর্জাতিক  |  5 hours ago

ইউরো কাপে করোনার থাবা

খেলাধুলা  |  4 hours ago

ভ্যাকসিন না নিলে বন্ধ করে দেওয়া হবে মোবাইল

আন্তর্জাতিক  |  8 hours ago

করোনাকালে রোগা হতে লিচু খান

লাইফস্টাইল  |  5 hours ago

হাসপাতালে ক্ষেপণাস্ত্র হামলা, নিহত বহু রোগী

আন্তর্জাতিক  |  6 hours ago

নতুন প্রজাতির করোনার হদিশ,তোলপাড় দেশ

আন্তর্জাতিক  |  10 hours ago

'লিভ ইন' নিয়ে এবার নুসরাতকে খোঁচা মীরের

বিনোদন  |  7 hours ago

লকডাউন বিধিনিষেধে শিথিল,ঘোষণা কেজরিওয়ালের

দেশ  |  8 hours ago

মাস্ক ছাড়াই এবার বাইক মিছিল

আন্তর্জাতিক  |  10 hours ago

পাকিস্তানে PAS পরীক্ষায় উর্ত্তীর্ণ প্রথম হিন্দু মহিলা

পেশায় চিকিৎসক সানা রামচাঁদ থাকেন পাকিস্তানের সিন্ধ প্রদেশের শিকারপুর এলাকায়। তিনিই পাকিস্তানের পাকিস্তান অ্যাডমিনিস্ট্রেটিভ সার্ভিসেস বা Pakistan Administrative Services (PAS) পরীক্ষায় উর্ত্তীর্ণ হয়েছেন। জানা যাচ্ছে মোট ১৮,৫৫৩ জন চলতি বছরে PAS পরীক্ষায় বসেছিলেন। এরমধ্যে লিখিত পরীক্ষায় উর্ত্তীর্ণ হয়েছে মাত্র ২২১ জন পরীক্ষার্থী। সফলদের তালিকায় নাম ছিল সানা রামচাঁদের। পরবর্তী মাইকোলজিক্যাল ও মৌখিক পরীক্ষার পর মেডিকেল পরীক্ষাতেও নির্বাচিত হন সানা। ফলে পাকিস্তানে ইতিহাস তৈরি করলেন প্রথম হিন্দু মহিলা হিসেবে পাকিস্তান অ্যাডমিনিস্ট্রেটিভ সার্ভিসেস পরীক্ষায় নির্বাচিত হয়ে। উর্ত্তীর্ণদের ২২১ জনের মধ্যে মহিলার সংখ্যা ৭৯ জন, যারমধ্যে একমাত্র হিন্দু হিসেবে নির্বাচিত হয়েছেন সানা। বিবিসি উর্দু জানিয়েছে, সানা রামচাঁদ পাকিস্তানের প্রথম হিন্দু মহিলা যিনি PAS পরীক্ষায় উর্ত্তীর্ণ হয়ে উচ্চ পদে আসীন হতে চলেছেন।


সানা নিজেও সোশাল মিডিয়ায় একটি পোস্ট করে জানিয়েছেন, ‘ওয়াহেগুরু জি কা খালসা ওয়াহেগুরু জী কি ফাতেহ... অত্যন্ত আন্দের সঙ্গে জানাচ্ছি, আল্লাহ তায়ালার কৃপায় সিএসএস ২০২০ পরীক্ষা পাশ করেছি এবং পাকিস্তান অ্যাডমিনিস্ট্রেটিভ সার্ভিসেস-এর জন্য নির্বাচিত হয়েছে। এর সমস্ত কৃতিত্ব আমার পিতামাতার’। প্রসঙ্গত ভারতের আইএএস (IAS) পরীক্ষার মতোই পাকিস্তানে অত্যন্ত এলিট পরীক্ষার মধ্যে পড়ে PAS পরীক্ষা। এই পরীক্ষায় পাস করলে পরীক্ষার্থীরা পুলিশের উচ্চপদে, জেলা শাসকের পদে বা পাকিস্তান বিদেশমন্ত্রকের নানা গুরুত্বপূর্ণ পদে যোগ দিতে পারেন। সানা রামচাঁদের বাড়ি সিন্ধ প্রদেশের শিকারপুরে। এই এলাকায় হিন্দুদের আধিক্য বেশি। ফলে সানার সাফল্যে খুশি শিকারপুরের বাসিন্দারা। সানা ইতিমধ্যেই এমবিবিএস (MBBS) পাস করে করাচির একটি সরকারি হাসপাতালে RMO হিসেবে কর্মরত। এবার PAS পরীক্ষায় উর্ত্তীর্ণ হয়ে সহকারি কমিশনার হিসেবে কাজে যোগ দিতে চলেছেন।

Tags:
Pakistan Administrative Services
PAS
pakistan
first hindu woman
sana ramchand