গৃহবন্দি রাজ্যের মন্ত্রী

আদালতের নির্দেশে বাড়ি ফিরে ববির ‘ওয়ার্ক ফ্রম হোম’

শুক্রবার সন্ধ্যার পর প্রেসিডেন্সি জেল থেকে বাড়ি ফিরেছিলেন রাজ্যের পরিবহণ ও আবাসন দফতরের মন্ত্রী ও কলকাতা পুরসভার প্রশাসক ফিরহাদ হাকিম। আদালতের নির্দেশে তাঁকে আপাতত গৃহবন্দি হয়ে নজরদারিতে থাকতে হবে। সূত্রের খবর, রাতেই শুরু করে দিলেন কাজ। জানা যাচ্ছে, কলকাতা পুরসভার আধিকারিকদের সঙ্গে ভার্চুয়াল বৈঠক করেন ফিরহাদ হাকিম। করোনা সংক্রান্ত খুঁটিনাটি জেনে নেন তিনি। পাশাপাশি টিকাকরণ, কোভিডের দেহ সংরক্ষণ, সৎকার সহ স্যানিটাইজেশন সংক্রান্ত সমস্ত দিকের খোঁজখবর নেন। সেই সঙ্গে তিনি পুর আধিকারিকদের একগুচ্ছ নির্দেশও দিয়েছেন। সমস্ত আলোচনাই হয়েছে অনলাইনে। শুক্রবার রাতেই চেতলার বাড়ি থেকে তিনি ভিডিও কনফারেন্সে কথা বললেন, পুরসভার কমিশনার, মুখ্য স্বাস্থ্য আধিকারিক, যুগ্ম সচিব পর্যায়ের অফিসাররা এবং বেশ কয়েকজন পুর-চিকিৎসকের সঙ্গে। তাঁদের প্রয়োজনীয় নির্দেশও দেন কলকাতা পুরসভার মুখ্য পুর প্রশাসক। কোভিড পরিস্থিতি ছাড়াও ঘূর্ণিঝড় যশ সংক্রান্ত প্রয়োজনীয় নির্দেশও দিয়েছেন ফিরহাদ হাকিম।



শুক্রবার সন্ধ্যায় জেল থেকে বাড়ি ফেরেন ববি হাকিম। বিকেল থেকেই ছিল পুলিশের আয়োজন। গার্ডরেল দিয়ে আটকানো ছিল তাঁর বাড়ির সামনে পথ। তাঁকে আনতে এলাকার কোনও মানুষ প্রেসিডেন্সি জেল প্রাঙ্গনে ভিড় করেননি। কারণ আগেই নিষেধ করা হয়েছিল তাঁদের। পরে বাড়ির সামনে কিছু মানুষের ভিড় জমলেও কেউই বাড়াবাড়ি করেননি। শনিবার স্বাভাবিক ভাবে ঘুম থেকে উঠে খবরের কাগজ পরে ঠিক করে নেন, অনেকটা সময় নষ্ট হয়েছে জেলযাত্রায়। এবারে তিনি কাজে বসবেন এবং আদালতের নির্দেশে ভার্চুয়াল পদ্ধতিতে কাজ করবেন। কারণ ববি 'কাজের মানুষ’।


Tags:
Firhad Hakim
Firhad Hakim arrest
narada case
kolkata high court
review meetings