করোনা আবহেই শিয়ালদা পেল অত্যাধুনিক লোকাল ট্রেন

0

একেবারে ঝাঁ চকচকে ইএমইউ রেক এল শিয়ালদায়। করোনা সংক্রমণের জেরে এমনিতেই দীর্ঘদিন ধরে বন্ধ যাত্রীবাহী ট্রেন পরিষেবা। দূরপাল্লার কয়েকটি স্পেশাল ট্রেন চলাচল করলেও পুরোপুরি বন্ধ লোকাল ট্রেন পরিষেবা। ফলে হাওড়া ও শিয়ালদা স্টেশনের মত বড় ও ব্যস্ততম স্টেশনগুলিতে ভিড়ের চাপ নেই। ফলে স্টেশনগুলি সাজিয়ে গুছিয়ে নেওয়ার সুযোগ পেয়ে গিয়েছে রেল কর্তৃপক্ষ। আর সেই সুযোগটা ভালোই কাজে লাগালো রেল কর্তৃপক্ষ। লোকাল ট্রেনের ক্ষেত্রেও আসছে ব্যপক পরিবর্তন। সূত্রের খবর, ইতিমধ্যেই শিয়ালদায় চলে এসেছে কয়েকটি অত্যাধুনিক ইএমইউ রেক। যেগুলি তৈরি করেছে আইসিএফ-বোম্বার্ডিয়ার রেক ফ্যাক্টারি।

কেমন এই নতুন রেকগুলি? শিয়ালদার ডিআরএম এস পি সিং জানিয়েছেন, ‘এর আগে এমন ৬টি রেক এসেছিল। তার থেকে আরও আধুনিক এখনকার রেকগুলি। বর্তমান করোনা পরিস্থিতির জন্যও এই রেকগুলি উপযুক্ত’। আগের ইএমইউ রেকগুলি চালাত ডিসি মোটর। এবার এসি থ্রি ফেজে চলবে বর্তমান আধুনিক রেকগুলি। জানা গিয়েছে, অত্যাধুনিক এই রেকগুলির কামরায় অনেকটা জায়গা পাবেন যাত্রীরা। মুখোমুখি সিটের মাঝেও অনেকটা ফাঁকা জায়গা থাকছে। বাইরে থেকে কামরায় যাতে বেশি হাওয়া ঢোকে তার জন্য কামরায় থাকছে ফোর্স ভেন্টিলেশন সিস্টেম। এবং কামরার মাথার ওপরে রয়েছে এয়ারডাক।

আত্যাধুনিক এই রেকে সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ বৈশিষ্ট হল সিসিটিভি ক্যামেরার উপস্থিতি। প্রতিটি মহিলা কামরায় রয়েছে সিসি ক্যামেরা। যা লুকোনো রয়েছে কামরার ভিতর, কেউ চেষ্টা করলেই সহজে খুঁজে পাবেন না ক্যামেরাগুলি। ফলে প্রয়োজন হলে রেল কর্তৃপক্ষ ও পুলিশ ক্যামেরার ফুটেজ খতিয়ে দেখতে পারবেন। রেল কর্তাদের কথায় অপরাধ দমনের ক্ষেত্রে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা নেবে এই উদ্যোগ। এছাডা়ও বিশেষ পদ্ধতিতে তৈরি এই আধুনিক রেকগুলিতে ঝাঁকুনি অনুভূত হবে না যাত্রীদের।

ছবি প্রতিকী..