ব্রেকিং নিউজ
This-woman-from-Kerala-cannot-live-without-a-mustache
Moustache:এই মহিলা গোঁফ ছাড়া বাঁচতেই পারেন না, কেন?

Post By : সিএন ওয়েবডেস্ক
Posted on :2022-07-28 19:05:12


“গোঁফকে বলে তোমার আমার—গোঁফ কি কারো কেনা? গোঁফের আমি গোঁফের তুমি, তাই দিয়ে যায় চেনা।” সুকুমার রায়ের সেই গোঁফ চুরির শেষ দুটি লাইন নিশ্চয়ই মনে আছে। সত্যিই তো, গোঁফ (Moustache) কি কারও কেনা? নাকি পুরুষদেরই (Male) একচ্ছত্র আধিপত্য এই গোঁফে? 

চিরাচরিত এই দাবিকে ভেঙে তছনছ করে দিয়েছেন এক মহিলা (Woman)। কেরলের (Keral) কানৌরোর বাসিন্দা। এক-দু বছর নয়, বছরের পর বছর ধরে গোঁফই যেন তাঁর আসল পরিচয়। বয়স বাড়তেই মনের কোনে ইচ্ছে জাগে, পুরুষদের মতো গোঁফ রাখলে কেমন হয়? ব্যস, শুরু হয়ে গেল প্রস্তুতি। দেখতে দেখতে বেশ দৃশ্যমান হতে শুরু করল গোঁফ। একজন মহিলা হয়ে এমন গোঁফ? অনেকেই নাক সিঁটকেছেন। অনেকেই বলেছেন, কেটে ফেলো বাপু, মানাচ্ছে না। কিন্তু কে কার কথা শোনে। এ যে তাঁর কতদিনের লালন পালন করা মনের সুপ্ত বাসনা, তাকে দমিয়ে রাখবে কে? অথএব, গোঁফ ছেঁটে ফেলার কোনও প্রশ্নই নেই।

৩৫ বছরের সিজার কাছে তাঁর গোঁফই যেন গর্বের বিষয়। তাই তো বলতে পারেন, আমি বেঁচে আছি, কিন্তু আমার গোঁফ নেই, এ যেন ভাবতেই পারি না। যখন করোনার বাড়বাড়ন্ত চলছে, সেই সময় মুখে মাস্ক লাগানো বাধ্যতামূলক ছিল। আর মাস্ক মানেই তো মুখের অর্ধেক ঢাকা। সিজার মোটেই তা ভালো লাগত না। মুখই যদি না দেখা গেল, তাহলে তাঁর গোঁফজোড়া কে দেখবে? তাঁর সাফ কথা, এ নিয়ে বিতর্কের কিছু নেই। এটা সম্পূর্ণ পছন্দের ব্যাপার। আমার এটা পছন্দ, আমি তাই করছি। এর সঙ্গে অন্য কিছুর সম্পর্ক খোঁজা অনর্থক।

জীবনের অভিজ্ঞতার কথা বলতে গিয়ে তিনি স্বীকার করেছেন, অনেকে তাঁকে দেখে অনেক কিছুই বলে। কিন্তু কে আর বুঝবে যে, তিনি তাঁর গোঁফজোড়ার প্রেমে পড়ে গিয়েছেন। ফলে এদের ছাড়া যে বড়ই বেদনাদায়ক।

তবে, সুখের কথা একটাই। তাঁর স্বামী বা পরিবারের লোকজন এ নিয়ে কিছুই বলেন না। তাঁরা কোনওদিন এর প্রতিবাদ করেননি। ফলে কে কী বলল, তা নিয়ে তাঁর কিছুই যায় আসে না।






All rights reserved © 2021 Calcutta News   Home | About | Career | Contact Us

এই সংক্রান্ত আরও পড়ুন